আয়কর রিটার্ন দাখিলের নিয়ম ২০২৩-২০২৪ । এখনও কি ট্র্যাক্স রিটার্ন জমা করা যাবে?

আয়কর রিটার্ন দাখিলের নিয়ম ২০২৩-২০২৪ । এখনও কি ট্র্যাক্স রিটার্ন জমা করা যাবে?

টিআইএন আছে অথবা এ পর্যন্ত এখনও আয়কর রিটার্ন জমা দেননি প্রথম বার ট্যাক্স দিবেন তারা জরিমানা ছাড়াই দিতে পারবেন– আয়কর রিটার্ন দাখিলের নিয়ম ২০২৩-২০২৪

এখনও জারিমানা ছাড়া রিটার্ন জমা দেওয়া যাবে? – হ্যাঁ। নতুন আয়কর আইন ২০২৩ অনুযায়ী, কর দিবস–পরবর্তী যেকোনো সময় করদাতা রিটার্ন দাখিল করতে পারবেন। আইনে উপ–কর কমিশনারকে প্রদেয় করের ওপর ১০ শতাংশ হারে জরিমানা করার ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। জরিমানা সর্বনিম্ন এক হাজার টাকা প্রদান করতে হবে। কর কর্তৃপক্ষ চাইলে প্রয়োজনে প্রতিদিনের জন্য ৫০ টাকা করে জরিমানা আরোপ করতে পারবেন। আয়কর রিটার্ন জমা দিচ্ছেন কিন্তু আরোপযোগ্য কর হয়নি, এমন করদাতাদের সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা যাবে। দেশে বর্তমানে প্রায় ৯৯ লাখ কর শনাক্তকরণ নম্বরধারী (টিআইএন) আছেন। এ বছর তাঁদের মধ্যে এখন পর্যন্ত ৩৫ লাখ ৪০ হাজার ৪০৬ জন করদাতা রিটার্ন জমা দিয়েছেন। এ বছর রিটার্ন বাবদ কর পাওয়া গেছে ৫ হাজার ৭৯৯ কোটি টাকা। এখনও পর্যন্ত প্রায় ৬০ লক্ষ টিনধারী রিটার্ন জমা দেয়নি। আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় ২০২৩-২০২৪ । ৩১ জানুয়ারি ২০২৪ পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে কি?

অনেক আগে টিন খুলেছিলেন কিন্তু কপি নেই? ভয়ের কিছু নেই। সংশ্লিষ্ট কর অফিসে গেলে এনআইডি অথবা মোবাইল নম্বর দিয়ে টিন নম্বর এবং টিন সার্টিফিকেট বের করা যাবে। এছাড়াও অনলাইনে মোবাইল নম্বর এবং এনআইডি’র তথ্য দিয়ে টিন সার্টিফিকেট বের করা যায়। অনেক আগে খুলে নাম্বার হারিয়ে ফেলেছি। রিটার্ন সাবমিট করা হয় নাই কখনো। ৫ বছরের মত হবে।

আমি কি রিটার্ন দাখিল করবো? কখনও রিটার্ন সাবমিট না করলে নিতান্তই প্রয়োজন না হলে রিটার্ন দেওয়ার দরকার নাই কারণ আপনাকে শুধুমাত্র কর সীমার মধ্য পড়লেই রিটার্ন সাবমিট বাধ্যতামূলক। আপনি আয় যদি করযোগ্য সীমার মধ্যে না হয় অথবা আপনি বাধ্যতামূলক রিটার্ন জমাকারী হিসেবে পরিগণিত না হউন তবে সখ করে রিটার্ন জমা দেওয়ার দরকার নেই।

রিটার্ন জমা নিয়ম ২০২৪ /প্রতি বছর ৩০ নভেম্বরের মধ্যে রিটার্ন দাখিল করতে হয়।

চলতি বছর ৩০ নভেম্বর শেষ তারিখ ছিল। পরবর্তীতে সময় বৃদ্ধি করে ৩১ জানুয়ারি করা হয়। সে সময়ও শেষ। বর্তমানে অনলাইনে দাখিল করা যাবে না। তাহলে উপায়? ম্যানুয়ারী জমা দিতে হবে।

https://etaxnbr.gov.bd/#/user-panel/tax-and-payment

https://etaxnbr.gov.bd

ম্যানুয়ালি রিটার্ন জমা দেওয়ার পদ্ধতি ২০২৪ । আপনি যদি অনলাইনে দাখিল করার সুযোগ মিস করে থাকে তবে আপনাকে কর অফিসে গিয়ে দাখিল করতে হবে

  1. প্রথমে আপনার টিআইএন সার্টিফিকেট চেক করে দেখুন কর অঞ্চল ও সার্কেল কোনটি সেই কর অফিসে চলে যান।
  2. এক পাতার রিটার্ন ফরম অথবা ৮ পাতার ফরমটি পূরণ করে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট যেমন- টিন সার্টিফিকেট, বেতন বা আয় বিবরণী, ব্যাংক স্টেটমেন্ট, জিপিএফ বা বিনিয়োগের তথ্য, সঞ্চয়পত্র বা ডিপিএস প্রমানক, জমি, ফার্নিচার, গোল্ড ইত্যাদির তথ্য নিয়ে যাবেন।
  3. কর অফিসে গিয়ে কারও হেল্প নিয়ে পূরণ করবেন অথবা তারা পূরণ করবেন এবং অল্প কিছু হাদিয়া নিবেন।
  4. রিটার্ন দাখিল শেষ একটি রিটার্ন স্লিপ দেবে।
  5. রিটার্ন দাখিলের সমস্ত কাগজ একটি কপি আপনি সংগ্রহ করুন।

প্রতি বছর অনলাইনে কিভাবে রিটার্ন জমা দিতে হয়?

রেজিস্টেশন সম্পন্ন হলে তথ্য এন্ট্রি করে সাবমিশন শেষ করতে হবে। প্রথমে https://etaxnbr.gov.bd এই লিংকে গিয়ে Registration এ ক্লিক করুন। প্রথম বক্সে আপনার টিআইন (TIN) নম্বরটি লিখুন। তারপর আপনার নিজের জাতীয় পরিচয়পত্র দ্বারা বায়োমেট্রিক রেজিস্ট্রেশন করা আছে এমন মোবাইল নম্বরটি লিখুন (প্রথম শুন্য বাদে)। এরপর ক্যাপচা কোডটি সঠিকভাবে লিখুন এবং সবশেষে Verify বাটনে ক্লিক করুন। মোবাইলের ওটিপি লিখে পাসওয়ার্ড সেট করুন এবং Submit ক্লিক করে রেজিস্ট্রেশন শেষ করে লগিন করলেই আপনি ড্যাসবোর্ড দেখতে পারেন। ড্যাসবোর্ডে অটোমেটিক তথ্য দেখাবে।

https://bdservicerules.info/%e0%a6%b6%e0%a7%82%e0%a6%a8%e0%a7%8d%e0%a6%af-%e0%a6%b0%e0%a6%bf%e0%a6%9f%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a7%8d%e0%a6%a8-%e0%a6%a6%e0%a6%be%e0%a6%96%e0%a6%bf%e0%a6%b2-%e0%a7%a8%e0%a7%a6%e0%a7%a8%e0%a7%a9/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *