জমি হেবার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ২০২৩ । জমি ক্রয়ের পূর্বে কি কি প্রশ্নের উত্তর খুঁজে বের করবে?

জমি হেবার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ২০২৩ । জমি ক্রয়ের পূর্বে কি কি প্রশ্নের উত্তর খুঁজে বের করবে?

জমি ক্রয় বা বিক্রয়ের ক্ষেত্রে রিটার্ন দাখিলের প্রমানক আবশ্যক- টিন সার্টিফিকেট এবং রিটার্ন দাখিলের রশিদ লাগবে –জমি হেবার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ২০২৩

হেবা দলিলের মাধ্যমে প্রাপ্ত সম্পত্তি নামজারির ক্ষেত্রে হস্তান্তরকারীর কি ওয়ারিশন সনদ প্রয়োজন আছে? না। মিউটেশনে রেজিষ্টার্ড দলিল থাকলে ওয়ারিশান সনদের প্রয়েজন নাই। আদালতে চ্যালেঞ্জ হলে এবং আদালত চাইলে ভিন্ন কথা। হেবা সূত্রে প্রাপ্ত জমির নামজারির সময় ওয়ারিশ সনদ সংযুক্ত করার প্রয়োজন নেই।

আমার নামে হেবা হয়েছে এখন কি মিউটেশন করতে পারবো? ঘরোয়া আপষবন্টন এ আমার বাবা বিএস রেকর্ড মালিক হইয়া ৫ বছর হইল আমাকে হেবা করে দিয়েছে আমি মিউটেশন করি নাই। এখন ই-মিউটেশন বা নামজারি করতে পারবেন।

আমার দাদার নামে আরএস খতিয়ান/পর্চা , বাবা সেখান হতে কিছু অংশ নিজের নামে নামজারি করে খাজনা/ভূমি উন্নয়ন কর দিয়ে আসছে। বাকি অংশ খাজনা/ভূমি উন্নয়ন কর দেয় না অনেক বছর। কিন্তু সেখান হতে কিছু অংশ আমার নামে হেবা করে দেয়। নামজারি করতে গেলে নাকি পিছনের খাজনা/ভূমি উন্নয়ন কর আপডেট থাকতে হয়? হ্যাাঁ। নামজারি করতে গেলে নাকি পিছনের খাজনা/ভূমি উন্নয়ন কর আপডেট থাকতে হয়। https://mutation.land.gov.bd/ এই ওয়েবসাইটটি তে প্রবেশ করুন এবং আবেদন অপশনটি সঠিকভাবে তথ্য দিয়ে পূরন করে আবেদন করবেন। আবেদন জমা হয়ে গেলে আবেদন নম্বর সহ যে পেজ আসবে সেই পেজে আবেদন ও নোটিশ ফি একত্রে ৭০/-টাকা অন-লাইনে জমা করার জন্য মোবাইল ওয়ালেট কিংবা ইন্টারনেট ব্যাংকিং থেকে সুবিধাজনক একটি অপশনে ক্লিক করে অগ্রসর বাটন চেপে নির্দেশনা অনুসরণ করে আপনি নগদ, রকেট, বিকাশ, উপায়,ভিসা কার্ড, মাস্টার্ড কার্ড সহ অন্যান্য ইনস্ট্রুমেন্টস ব্যবহার করে পেমেন্ট করার সুযোগ পাবেন। পেমেট হবার পর আবেদন নম্বর সহ পেমেন্ট কনফার্মেশনের একটি মেসেজ আসবে। এই মেসেজের নীচে থাকা পেমেন্ট রিসিপ্ট বাটন চেপে টাকা জমার রিসিপ্ট পাবেন ও প্রিন্ট করে নিতে পারবেন, তাছাড়া মেসেজের নীজে থাকা আবেদন প্রিন্ট বাটন চেপে আবেদনটি প্রিন্ট করতে বা পিডিএফ কপি সংরক্ষণ করে নিতে পারবেন।

হেবার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ২০২৩ । জমি হেবা করার জন্য রিটার্ন দাখিলের প্রমানক লাগবে

আপনার জমির নামজারি করুন এবং নিয়মিত ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করুন

Caption: land.gov.bd

জমি কেনার পূর্বে যা অবশ্যই জানা প্রয়োজন ২০২৩ । যে প্রশ্নগুলো উত্তর সার্চ করে বের করবেন

  1. মালিকানা সঠিক আছে কি না?
  2. হাল রেকর্ড অনুযায়ী খতিয়ান ও দাগ নম্বর সঠিক আছে কি না?
  3. নকশা মোতাবেক অবস্থান ও পরিমাণ সঠিক আছে কি না?
  4. হিস্যা মোতাবেক বিক্রেতার প্রাপ্য অংশ সঠিক আছে কি না?
  5. জমিতে দলিলদাতার দখল আছে কি না?
  6. দেওয়ানি আদালতে মামলা আছে কি না?
  7. রেন্ট সার্টিফিকেট মামলা আছে কি না?
  8. ভূমি উন্নয়ন কর (খাজনা) পরিশোধ আছে কি না?
  9. ভায়া দলিল (রেফারেন্স দলিল) আছে কি না?
  10. নামজারি/খারিজ করা আছে কি না ?
  11. সরকারি স্বার্থ জড়িত আছে কি না ?
  12. খাস জমি কি না?
  13. অর্পিত সম্পত্তি/পরিত্যক্ত জমি কি না ?
  14. কোন প্রতিষ্ঠানের নিকট দায়বদ্ধ কি না ?
  15. আদিবাসীর সম্পত্তি বিক্রয়ের ক্ষেত্রে জেলা প্রশাসকের বিক্রয় অনুমতিপত্র আছে কি না?
  16. নাবালকের সম্পত্তি বিক্রয়ের ক্ষেত্রে বৈধ ওয়ারিশ নির্ধারণ করা আছে কি না?
  17. বিক্রেতা বা ক্রেতা রিটার্ন দাখিল করেছেন কিনা?

অনলাইনে একাউন্টে খতিয়ানের তথ্য আপলোড করার মাধ্যমে হোল্ডিং নং পেতে পারি?

হ্যাঁ। যার নামে নামজারি বা মিউটেশন করা আছে কেবল তিনিই খাজনা পরিশোধ করতে পারবেন। অনলাইনে মৃত ব্যক্তির নামে খাজনা পরিশোধ করা যায় না। বকেয়া খাজনা/ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ এ বিষয়টি সম্পর্কে তথ্য জানতে সরাসরি ইউনিয়ন ভূমি অফিসে যোগাযোগ করে তথ্যটি সংগ্রহ করার চেষ্টা করবেন। https://mutation.land.gov.bd/ এই ওয়েবসাইটটি তে প্রবেশ করুন এবং আবেদন অপশনটি সঠিকভাবে তথ্য দিয়ে পূরন করে আবেদন করবেন। আবেদন জমা হয়ে গেলে আবেদন নম্বর সহ যে পেজ আসবে সেই পেজে আবেদন ও নোটিশ ফি একত্রে ৭০/-টাকা অন-লাইনে জমা করার জন্য মোবাইল ওয়ালেট কিংবা ইন্টারনেট ব্যাংকিং থেকে সুবিধাজনক একটি অপশনে ক্লিক করে অগ্রসর বাটন চেপে নির্দেশনা অনুসরণ করে আপনি নগদ, রকেট, বিকাশ, উপায়,ভিসা কার্ড, মাস্টার্ড কার্ড সহ অন্যান্য ইনস্ট্রুমেন্টস ব্যবহার করে পেমেন্ট করার সুযোগ পাবেন।

পেমেট হবার পর আবেদন নম্বর সহ পেমেন্ট কনফার্মেশনের একটি মেসেজ আসবে। এই মেসেজের নীচে থাকা পেমেন্ট রিসিপ্ট বাটন চেপে টাকা জমার রিসিপ্ট পাবেন ও প্রিন্ট করে নিতে পারবেন, তাছাড়া মেসেজের নীজে থাকা আবেদন প্রিন্ট বাটন চেপে আবেদনটি প্রিন্ট করতে বা পিডিএফ কপি সংরক্ষণ করে নিতে পারবেন। https://ldtax.gov.bd/ এই website প্রবেশ করে ভূমি উন্নয়ন কর নাগরিক নিবন্ধন করুন।এসএমএস এর মাধ্যমে হোল্ডিং নম্বর পাবেন।একই সাইটের নাগরিক প্রোফাইলে হোল্ডিং এর বিস্তারিত অপশন থেকে তথ্য যাঁচাই করতে পারবেন।হোল্ডিং এর বিস্তারিত অপশনেথাকা অনলাইন পেমেন্ট অপশনেপেমেন্ট গেইট ওয়ে বেছে নিন- মোবাইল ব্যাংকিং (বিকাশ/রকেট/নগদ) বা ইন্টারনেট ব্যাংকিং বেছে নিন। বাছাইকৃত পেমেন্টগেইটওয়ে থেকে ভূমি উন্নয়ন করের দাবি পরিশোধ করুন।সরাসরি ব্যাংকেও ভূমি উন্নয়ন করা জমা দেয়া যাবে। ভূমি উন্নয়ন করা জমা হয়ে গেলে আপনার নাগরিক নিবন্ধনে আপনার দাখিলা পাবেন।

জমি ক্রয়ের নিয়ম ২০২৩ । জমি কেনার আগে ও পরে করণীয় দেখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *