ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড । ফিঙ্গার হলেই মোবাইল মেসেজে NID নম্বর চলে আসে জাতীয় পরিচয় পত্র, ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড ২০২২, ভোটার আইডি কার্ড চেক, ফরম নম্বর দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড 2022, ভোটার আইডি কার্ড চেক 2022, ভোটার স্লিপ দিয়ে আইডি কার্ড ডাউনলোড, ফরম নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করা, service.nidw.gov bd/nid-pub,

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড । ফিঙ্গার হলে মোবাইল মেসেজে NID নাম্বার চলে আসে

নতুন ভোটারদের এনআইডি নমম্বর ভোটার হওয়ার কার্যক্রম সস্পন্ন হওয়ার পরই মেসেজে পাওয়া যাচ্ছে- ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড

আপনি জানেন কি? আপনারা জানেন যে কেউ নতুন ভোটার হওয়ার জন্য সংস্লিষ্ট উপজেলা/থানা নির্বাচন অফিসে ছবি তোলার পরে ও বায়োমেট্রিক প্রদান করার পরে উক্ত ভোটারের ডাটা নির্বাচন কমিশন এর সার্ভারে আপলোড করা হয় এবং সার্ভারে উক্ত ভোটারের AFIS যাচাই (ফিংগার প্রিন্ট যাচাই) সম্পন্ন হলে উক্ত ভোটারের প্রদত্ত মোবাইল নম্বরে এসএমএস এর মাধ্যমে তার NID নম্বর জানিয়ে দেয়া হয়।

এসএমএস এর মাধ্যমে NID নম্বর পাওয়ার পরে উক্ত ব্যক্তি নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইট থেকে তার NID কার্ড ডাউনলোড করে নিতে পারে। NID Transfer System 2022 । ভোটার এলাকা পরিবর্তন করতে কি কি লাগে

ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসূচি-২০২২ শুরুর পূর্বে একজন ভোটার উপজেলা/থানা নির্বাচন অফিসে ছবি তোলার কয়েকদিনের মধ্যেই তার NID নম্বর ও NID কার্ড পেয়ে যেতো। এর কারন ছিলো যে তখন সারা বাংলাদেশের উপজেলা/থানা নির্বাচন অফিসে প্রতিদিন ভোটার হওয়া ব্যক্তিদের সংখ্যা কম ছিলো এবং তাই দ্রুতই তাদের AFIS যাচাই সম্পন্ন হতো। কিন্তু বর্তমানে ভোটার তালিকা হালনাগাদ উপলক্ষে প্রতিদিন দেশব্যাপী হাজার হাজার ব্যক্তি ভোটার হচ্ছেন এবং তাদের ডাটা সার্ভারে আপলোড করা হচ্ছে।

মোবাইলের মেসেজেই আসবে এনআইডি কার্ড নম্বর

জানুয়ারি/২২ হতেই এনআইডি কার্ড চূড়ান্ত সংশোধন শুরু হবে

এই বিপুল সংখ্যক ভোটারের AFIS যাচাই করার জন্য স্বভাবতই বেশি সময় লাগছে। তাই আগে যেখানে ১-২ দিনেই এসএমএস এর মাধ্যমে NID নম্বর পাওয়া যেত, এখন সেখানে আনুমানিক ১৫-২০ দিনের মত বা ক্ষেত্রবিশেষে তার বেশিও সময় লাগছে।

তাই যারা ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসূচি-২০২২ এ ভোটার নিবন্ধন করছেন, তাদের NID নম্বর পাওয়ার জন্য ধৈর্য্য ধারন করতে হবে। এটা যেহেতু সার্ভারে অটোমেটিক হয়ে থাকে, তাই অধৈর্য্য হলেও আপনার করনীয় কিছু নাই। ভোটার আইডি কার্ড যাচাই পদ্ধতি ২০২২ । ছবি সহ যে কারও জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাই করুন

যোগাযোগ করলে দ্রুত হবে?

ব্যাপারটি এমন নয়। যদি আপনার তথ্যে ঘাটতে বা ভুল থাকে তবে মোবাইলে মেসেজ দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হবে। তাই তারাহুরা না করে অপেক্ষা করুন। সংগৃহীত এই বিপুল পরিমান ডাটা এন্ট্রি, প্রসেস, ভেরিফাই, অনুমোদন করতে হবে। অনুমোদন করে সার্ভারে আপলোড হতে হবে। যদিও এখন ফিঙ্গার সম্পন্ন হলেই মোবাইলে এনআইডি চলে আসে।

অনলাইনে services.nidw.gov.bd তে গিয়ে ফর্ম নম্বর দিয়ে এনআইডি কার্ড ডাউনলোড করা না গেলেও এনআইডি নম্বর দিয়ে ডাউনলোড করা যাবে। ভোটার স্লিপ আর ভোটার আইডি নম্বর এক জিনিস নয়। ভোটার আইডি বা এনআইডি নম্বর পাওয়া মানেই অনলাইনে আপনার তথ্য আপলোড ও অনুমোদন হয়েছে। তাই NID Download করতে পারবেন।

এনআইডি কার্ড সংশোধনের নিয়ম ২০২২

অনলাইনে ভোটার হওয়ার সুযোগ ২০২২- আপনি নাগরিক আপনার মনে প্রশ্ন আসতেই পারে যে, ভুল করেছে সরকার এখন মাসুল দিতে হচ্ছে আমাদের!! হ্যাঁ তা বলতেই পারেন তবে সরকার ভোটার তথ্য ফ্রি সংশোধনের জন্য ভোটার তালিকা হালনাগাদের জন্য ফ্রি বা বিনা ফিতে সংশোধন সুযোগ দেয়। যারা এই সুযোগ গ্রহণ করে না তাদের ক্ষেত্রেই ফি দিয়ে জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন করতে হয়। তাছাড়া জাতীয় পরিচয়পত্র বা ভোটার হওয়ার ক্ষেত্রে সেল্ফ অনলাইন আবেদন করার সুযোগ দিয়েছে তাই নির্ভুল ভাবে প্রথমে অনলাইনে নিজে ফরম পূরণ করে প্রিন্ট করে জমা দিন তাতে ভুলের হার অনেকাংশেই কমে যাবে। জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন ২০২২ । আগামী জানুয়ারি মাসে বিনা খরচে সংশোধন করা যাবে

NID কার্ড ডাউনলোড । নতুন ভোটারদের NID SMS আসতে কত দিন সময় লাগে?

 

(Visited 1,962 times, 11 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *