সরকারি ঋণ আইন ২০২২ । জনগণের নিকট হতে গৃহীত ঋণের নিষ্পত্তির বিধি বিধান

সরকারি ঋণ আইন ২০২২ । জনগণের নিকট হতে গৃহীত ঋণের নিষ্পত্তির বিধি বিধান

সরকারি জনগণ ও প্রতিষ্ঠানের নিকট হতে বিভিন্ন উৎস হতে ঋণ গ্রহণ করে থাকে – সরকারি ঋণের নিষ্পত্তি ও বিনিয়োগ বিধান– সরকারি ঋণ আইন ২০২২

সরকারি ঋণ সংগ্রহ- সরকার, সরকারি অর্থ ও বাজেট ব্যবস্থাপনা আইন, ২০০৯ (২০০৯ সনের ৪০ নং আইন) এর ধারা ২১ এর বিধান সাপেক্ষে,বাজেট ঘাটতি পূরণের লক্ষ্যে, ঘাটতি অর্থায়ন বা অন্য কোনাে উদ্দেশ্যে সরকার কর্তৃক গৃহীত দেশীয় বা বৈদেশিক উৎস হইতে দেশীয় বা বৈদেশিক মুদ্রায় গৃহীত সুদযুক্ত বা মুনাফাযুক্ত অথবা সুদমুক্ত বা মুনাফামুক্ত যে কোনাে প্রকারের ঋণ বা বিনিয়ােগ সংগ্রহ করিতে পারিবে।

ট্রাস্টের নােটিশ প্রদানের ক্ষেত্রে আইন- ১) সরকারি সিকিউরিটি বা জাতীয় সঞ্চয় স্কীমের আওতায় ইস্যুকৃত সার্টিফিকেটের ক্ষেত্রে এই আইনের অধীন সরকার কর্তৃক গঠিত বা নিযুক্ত কোনাে ট্রাস্ট ব্যতীত, সরকার অন্য কোনাে ট্রাস্টের

(ক) কোনাে প্রকার নােটিশ গ্রহণ করিতে বাধ্য থাকিবে না; বা

(খ) উক্তরূপ কোনাে নােটিশ দ্বারা সরকারকে কোনাে কার্যক্রম গ্রহণ করিতে বাধ্য করা
যাইবে না; অথবা

(গ) উক্তরূপ বিষয়ে সরকারকে ট্রাস্টি হিসাবে গণ্য করা যাইবে না।

(২) উপ-ধারা (১) এ যাহা কিছুই থাকুক না কেন, সরকারি সিকিউরিটি বা জাতীয় সঞ্চয় স্কীমের আওতায় ইস্যুকৃত সার্টিফিকেটের ধারকের অনুরােধের পরিপ্রেক্ষিতে, বাংলাদেশ ব্যাংক বা, ক্ষেত্রমত, জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর বা সরকারের কোনাে দায়বদ্ধতা সৃষ্টি না করিয়া, সুদ বা মুনাফা বা মেয়াদ পূর্তিতে অর্থ পরিশােধের জন্য বা হস্তান্তরের জন্য বা তৎসংশ্লিষ্ট কোনাে বিষয়ের উপর বাংলাদেশ ব্যাংক বা, ক্ষেত্রমত, জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর উপযুক্ত মনে করিলে, উক্তরূপ অনুরােধ ও তৎসংশ্লিষ্ট বিষয়ে কার্যক্রম গ্রহণপূর্বক উহা নিজস্ব বহিতে লিপিবদ্ধ করিতে পারিবে।

সরকারি সঞ্চয়পত্র বা বন্ডের ক্রেতা বা ধারক মৃত্যুবরণ করিলে প্রযােজ্য বিধান- ১) এই ধারার অন্যান্য বিধানসাপেক্ষে, সরকারি সিকিউরিটি বা জাতীয় সঞ্চয় স্কীমের আওতায় ইস্যুকৃত সার্টিফিকেটের ধারক মৃত্যুবরণ করিলে, উক্ত সরকারি সিকিউরিটি বা জাতীয় সঞ্চয় স্কীমের আওতায় ইস্যুকৃত সার্টিফিকেটের প্রশাসকগণ (Administrator) অথবা নির্বাহীগণ (Executor) এর মধ্য হইতে যিনি Succession Act, 1925 Act No. XXXIX of 1925) এর Part X এর বিধান অনুযায়ী ঘােষিত উত্তরাধিকারী, তাহাকে বাংলাদেশ ব্যাংক বা, ক্ষেত্রমত, জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর ধারা ১৫, ১৬ ও ১৮ এর বিধানসাপেক্ষে উক্ত সরকারি সিকিউরিটি বা জাতীয় সঞ্চয় স্কীমের আওতায় ইস্যুকৃত সার্টিফিকেটের স্বত্বাধিকারী হিসাবে গণ্য করিতে পারিবে।

সরকার কর্তৃক গৃহীত ঋণের গ্যারান্টি ২০২২ / সরকারি ঋণ ও বিনিয়োগ আইন ২০২২

সরকারি সকল প্রকার ঋণের নিষ্পত্তি এই আইন কর্তৃক নিষ্পত্তি হইবে।

সরকারি ঋণ আইন ২০২২

সরকারি ঋণ আইন ২০২২

বাংলাদেশ সরকার যে সকল উৎস হতে ঋণ গ্রহণ করে থাকে এবং তা নিষ্পত্তির আইন জারি

  1. “জাতীয় সঞ্চয় স্কীম” অর্থ জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর কর্তৃক ইস্যুকৃত যে কোনাে ধরনের সঞ্চয় স্কীম;
  2. “ট্রেজারি বন্ড” অর্থ এই আইন বা বিধির অধীন সরকার কর্তৃক নির্ধারিত শর্তে ইস্যুকৃত ১ (এক) বৎসরের উর্ধ্বে যে কোনাে মেয়াদি সরকারি সিকিউরিটি;
  3. “ট্রেজারি বিল”অর্থ এই আইন বা বিধির অধীন সরকার কর্তৃক নির্ধারিত শর্তে ইস্যুকৃত ১ (এক) বৎসরের নিম্নে যে কোনাে মেয়াদি সরকারি সিকিউরিটি;
  4. “ট্রাস্টি” অর্থ সরকারি সিকিউরিটি ব্যবস্থাপনার উদ্দেশ্যে ধারা ৮ এর উপ-ধারা (১) ও (২) এর অধীন সরকার কর্তৃক নিযুক্ত ট্রাস্টি;
  5. “তপশিলি ব্যাংক” অর্থ Bangladesh Bank Order, 1972 (P. 0. No. 127 of 1972) এর Article 2(j)-তে সংজ্ঞায়িত তপশিলি ব্যাংক (Scheduled Bank);
  6. “ধারক” অর্থ সরকারি সিকিউরিটি বা জাতীয় সঞ্চয় স্কীমের আওতায় ইস্যুকৃত সার্টিফিকেটের আইনসম্মত স্বত্বাধিকারী বা উক্তরূপ দলিলের আইনসম্মত ধারক;
  7. “নির্ধারিত” অর্থ বিধি দ্বারা নির্ধারিত;
  8. “প্রচ্ছন্ন দায় (Contingent Liability)” অর্থ কোনাে সরকারি সংস্থা বা প্রতিষ্ঠান | কর্তৃক সংগৃহীত ঋণের বিপরীতে সরকার কর্তৃক রাষ্ট্রীয় গ্যারান্টি প্রদান করা হইয়াছে এইরূপ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সংস্থা অথবা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক ঋণ পরিশােধে ব্যর্থতার কারণে সরকারের উপর আরােপিত হইতে পারে এইরুপ প্রত্যক্ষ দায় অথবা উক্ত সংস্থা বা প্রতিষ্ঠানের আর্থিক অক্ষমতার কারণে সৃষ্ট অথবা আদালতের আদেশে বা প্রাকৃতিক কারণে সৃষ্ট কোনাে আর্থিক দায় যাহা সরকারের উপর আরােপিত হইতে পারে এইরূপ পরােক্ষ দায়;
  9. “প্রমিসরি নােট” অর্থ Negotiable Instruments Act, 1881 (Act No. XXVI of 1881) এর section 4 অনুসারে প্রদত্ত প্রমিসরি নােট, এবং ট্রেজারি বন্ড ও ট্রেজারি বিলও ইহার অন্তর্ভুক্ত হইবে;
  10. “প্রস্তাবক বা অরিজিনেটর” অর্থ কোনাে সরকারি সিকিউরিটি বা সুকুকের প্রস্তাবক; ব্যাখ্যা—কোনাে সরকারি সিকিউরিটি বা সুকুক ইস্যুর ক্ষেত্রে সরকার প্রস্তাবক বা অরিজিনেটর হিসাবে গণ্য হইবে;
  11. “ফ্রন্ট অফিস (Front Office)” অর্থ ঋণ ব্যবস্থাপনার জন্য সরকার কর্তৃক ঘােষিত ও নির্দিষ্টকৃত কার্যালয়, যেখানে প্রত্যক্ষভাবে সরকারি ঋণ গ্রহণে ঋণ দাতাদের সহিত যােগাযােগ স্থাপন, আলাপ-আলােচনা (negotiation), চুক্তি, ইত্যাদি কার্য সম্পাদিত হইবে;
  12. “বাংলাদেশ ব্যাংক” অর্থ Bangladesh Bank Order, 1972 (P. O. No. 127 of 1972) এর Article 3 এর অধীন প্রতিষ্ঠিত কেন্দ্রীয় ব্যাংক;
  13. “বাংলাদেশ ব্যাংক কর্মকর্তা” অর্থ এই আইনের অধীন প্রদত্ত ও নির্ধারিত কার্য সম্পাদনের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক নিযুক্ত কোনাে কর্মকর্তা;
  14. “বিধি” অর্থ এই আইনের অধীন প্রণীত বিধি;
  15. “ব্যাক অফিস (Back Office)” অর্থ সরকার কর্তৃক ঘােষিত ও নির্দিষ্টকৃত কার্যালয়, যেখানে সরকারি ঋণের হিসাবায়ন, সামঞ্জস্য বিধান (reconciliation), পরিশােধ ও ঋণ সংক্রান্ত তথ্য সংরক্ষণ করা হইবে;
  16. “মিডল অফিস (Middle Office)” অর্থ ঋণ ব্যবস্থাপনার জন্য সরকার কর্তৃক ঘােষিত ও নির্দিষ্টকৃত কার্যালয়, যেখানে সরকারি ঋণ ব্যবস্থাপনার লক্ষ্যে সুষ্ঠু পরিকল্পনা ও প্রয়ােজনীয় নীতি প্রণয়ন করা হইবে এবং বিভিন্ন ঋণ অফিসসমূহের মধ্যে সমন্বয় সাধন করা হইবে;
  17. “সরকারি ঋণ” অর্থ ধারা ৪ এর অধীন গৃহীত ঋণ বা বিনিয়ােগ;
  18. “সরকারি ঋণ অফিস (Public Debt Office)” অর্থ ধারা ৬ এ উল্লিখিত সরকারি ঋণ অফিস ও সরকারি ঋণ ব্যবস্থাপনার সহিত সম্পৃক্ত ফ্রন্ট অফিস বা মিডল অফিস বা ব্যাক অফিস;
  19. “সরকারি দায়” অর্থ সরকার কর্তৃক পরিশােধ করিতে হইবে এইরূপ দায়; (২০) “সরকারি সিকিউরিটি (Government Security);
  20. “সরকারি সিকিউরিটির ডিপােজিটরি” অর্থ রেজিস্টার বহিতে লিপিবদ্ধকরণের মাধ্যমে ইস্যুকৃত সরকারি সিকিউরিটির সংরক্ষণ, হস্তান্তর, পরিচালনা, সামগ্রিক ব্যবস্থাপনা ও তত্ত্বাবধানের সহিত সম্পৃক্ত যাবতীয় তথ্যের ইলেকট্রনিক বা অন্য কোনাে উপায়ে রক্ষিত তথ্যের সংরক্ষণাগার;
  21. “স্পেশাল পারপাস ভেহিকল বা এসপিভি (Special Purpose Vehicle বা | SPV)” অর্থ ধারা ৮ এর উপ-ধারা (১) ও (২) এর অধীন গঠিত বা নিযুক্ত স্পেশাল পারপাস ভেহিকল;
  22. “স্টক” অর্থ ধারক বা অন্য কোনাে আইনানুগ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক রক্ষিত সরকারি সিকিউরিটি;
  23. “সার্বভৌম বন্ড (Sovereign Bond)” অর্থ আন্তর্জাতিক বাজার হইতে অর্থ সংগ্রহের উদ্দেশ্যে সরকার কর্তৃক দেশীয় বা বৈদেশিক মুদ্রায় ইস্যুকৃত সরকারি সিকিউরিটি;
  24. “সুকুক” অর্থ শরীয়াহসম্মত বিনিয়ােগ চুক্তির আওতায় সরকার কর্তৃক বিনিয়ােগ গ্রহণের উদ্দেশ্যে দায়িত্বপ্রাপ্ত কোনাে এসপিভি কর্তৃক ইস্যুকৃত সরকারি সিকিউরিটি; এবং
  25. “রাষ্ট্রীয় গ্যারান্টি” অর্থ সরকার কর্তৃক কোনাে স্বায়ত্তশাসিত বা আধা-স্বায়ত্তশাসিত বা সংবিধিবদ্ধ সরকারি কর্তৃপক্ষ বা পাবলিক নন-ফাইনান্সিয়াল কর্পোরেশন বা স্বশাসিত সংস্থা বা রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান কর্তৃক অভ্যন্তরীণ অথবা আন্তর্জাতিক উৎস হইতে গৃহীত ঋণের আসল ও সুদ বা মুনাফা এবং এতদ্‌সংক্রান্ত অন্য কোনাে দায় আংশিক বা সম্পূর্ণরূপে পরিশােধে অসমর্থ হইলে সরকার কর্তৃক উহা পরিশােধের নিশ্চয়তা প্রদান বা এই ধরনের নিশ্চয়তা প্রদান সংক্রান্ত সরকার কর্তৃক প্রদত্ত কোনাে গ্যারান্টি বা কাউন্টার গ্যারান্টি, যাহা Contract Act, 1872(Act No. IX of 1872) এর বিধান অনুযায়ী বলবৎ হইবে।

সরকারি প্রতিষ্ঠান দেওলিয়া হইলে ঋণের কি হবে?

সরকারি সিকিউরিটির ধারক প্রতিষ্ঠান দেউলিয়া হইলে বা প্রতিষ্ঠানের অবসায়ন ঘটিলে প্রযােজ্য বিধান।সরকারি সিকিউরিটির ধারক প্রতিষ্ঠান আদালত কর্তৃক দেউলিয়া ঘােষিত হইলে বা আইনানুগ প্রক্রিয়ায় প্রতিষ্ঠানের অবসায়ন ঘটিলে, উক্ত প্রতিষ্ঠানের পক্ষে নিযুক্ত প্রশাসক বা নির্বাহী সরকারি সিকিউরিটি ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে নিযুক্ত হইতে পারিবে এবং নিযুক্ত প্রশাসক বা নির্বাহী উক্ত প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধীন সরকারি সিকিউরিটির বিষয়ে আইনানুগ কার্যক্রম গ্রহণ করিতে পারিবে।

সরকারি ঋণ আইন ২০২২ । জনগণের নিকট হতে গৃহীত ঋণের নিষ্পত্তির বিধি বিধান: ডাউনলোড

(Visited 207 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *