Bkash Loan without Security । বিকাশ লোন নেয়ার নিয়ম ২০২২

Bkash Loan Pilot Project – কোন রকম জামানত ছাড়াই পাওয়া যাবে ঋণ– Bkash Loan

বিকাশ লোন – প্রশ্ন জাগতেই পরে সিটি ব্যাংক কেন এই লোন দিচ্ছে এবং এটি সবাইকেই দিচ্ছে? – না। এটি একটি পাইলট প্রকল্প হিসাবে নিয়েছে সিটি ব্যাংক। ছোট খাট ব্যক্তিগত প্রয়োজন মেটাতে বিকাশ এ ঋণ দেওয়া শুরু করেছে।

ব্যাংক লোন এখন আপনার হাতের মুঠোয়! কারণ, সিটি ব্যাংক নিয়ে এলো বিকাশ গ্রাহকদের জন্য কোনো কাগজপত্র ছাড়া মুহূর্তেই লোন নেওয়ার সুবিধা। এই লোন সুবিধার আওতায় একজন গ্রাহক বিকাশ অ্যাপ দিয়ে সিটি ব্যাংক থেকে ৫০০ টাকা থেকে ২০,০০০ টাকা পর্যন্ত লোন গ্রহণ করতে পারবেন।। গ্রাহকের বিকাশ একাউন্টে এই লোনের টাকা জমা হবে, এবং বিকাশ একাউন্ট থেকে গ্রাহক এই লোনের টাকা উত্তোলন করতে পারবেন। একজন গ্রাহক একবারে একটি লোনই নিতে পারবেন। বাংলাদেশ ব্যাংক-এর নির্দেশনা অনুযায়ী লোন এমাউন্টের উপর বাৎসরিক ৯% ইন্টারেস্ট রেট প্রযোজ্য হবে।

বিকাশ অ্যাপ থেকেই সিটি ব্যাংক-এর লোন নিন মুহূর্তেই! জি এই লোন যেহেতু কোন জামানত ছাড়াই তাই মুহুর্তেই লুফে নেয়া যাবে । তবে আপনার বিকাশ একাউন্টটি পাইলট প্রকল্পের জন্য নির্বাচিত হতে হবে। আপনি লোন পাবেন কি পাবেন না এটি সম্পূর্ণ বিকাশ এবং সিটি ব্যাংক কর্তৃপক্ষের উপর নির্ভর করছে।

বিকাশ লোনের জন্য কি আবেদন করা লাগে / কিভাবে বিকাশ লোনের জন্য আবেদন করতে হয়?

এমন প্রশ্ন হর হামেশাই পাওয়া যায়। আপনি যদি লোনের জন্য প্রযোজ্য হন তবে বিকাশ অ্যাপের লোন অপশনে গেলে আপনার লোনের পরিমাণ দেখাবে এবং আপনি আবেদন করতে পারবেন। কিন্তু নিচের মত ম্যাসেজ দেখালে আপনাকে উপযুক্ত হতে অপেক্ষা করতে হবে। আপনি ইচ্ছা প্রকাশ করলেই এই মুহুর্তে পাচ্ছেন না আপনার কাঙ্খিত লোন।

Bkash Loan Terms and conditions

Caption: Terms of City Bank Loan / Check your Bkash App to check eligibility of Bkash Loan 2022

টার্মস এন্ড কন্ডিশন অব দিস লোন । কেন বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমে সিটি ব্যাংক থেকে লোন নেবেন?

  1. আবেদন করার সাথে সাথেই লোন পাবেন
  2. ৩ মাস মেয়াদী লোন
  3. কোনো ব্যাংক একাউন্ট বা জামানত লাগবে না
  4. কোন কাগজ-পত্র লাগবে না
  5. একাউন্ট ব্যালেন্স থেকেই অটো-কিস্তি পরিশোধের সুবিধা
  6. ব্যাংক-এর কোন প্রসেসিং ফি নেই

Repay system of Bkash Loan / লোন পরিশোধের নিয়মাবলি

  1. লোন অ্যাপ্লাই করার সময় ও লোন পাওয়ার পর ড্যাশবোর্ড-এ গ্রাহক লোন কিস্তির পরিমাণ ও পরিশোধের তারিখ দেখতে পাবেন
  2. গ্রাহক চাইলে লোন পরিশোধের নির্দিষ্ট তারিখে গ্রাহকের বিকাশ একাউন্ট থেকে নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ অটো ডেবিট হিসেবে কেটে নেয়া হবে। অথবা, গ্রাহক চাইলে নির্দিষ্ট দিনের আগে নিজেই লোনের অর্থ পরিশোধ করতে পারেন, যার ফলে ইন্টারেস্টের খরচ কমে আসার সুবিধা পেতে পারেন।
  3. নির্দিষ্ট তারিখে গ্রাহকের বিকাশ একাউন্টে যথাযথ পরিমাণ অর্থ না থাকলে এবং নির্দিষ্ট দিনের আগেই লোনের অর্থ গ্রাহক কর্তৃক পরিশোধ না করা হলে, সেক্ষেত্রে বিলম্ব ফি প্রযোজ্য হবে।
  4. বিলম্ব ফি’র হার লোনের পরিমাণের উপর বাৎসরিক ২%।

বিকাশের কোন গ্রাহক এই লোন সুবিধা পাবেন?

নির্দিষ্ট গ্রহকের জন্যই বিকাশ লোন –ঋণ প্রদানের নীতিমালা অনুযায়ী, সিটি ব্যাংক নির্দিষ্ট বিকাশ গ্রাহকদের এই লোন সুবিধা প্রদান করবে। আপনি বিকাশ গ্রাহক হিসেবে সিটি ব্যাংক থেকে লোন পাবেন কি না, তা জানতে বিকাশ অ্যাপের লোন অপশনে যান। ইন্টারেস্ট রেট, প্রসেসিং ফি, লোন লিমিট, লোন পরিশোধের নিয়মাবলি, লোন পাওয়ার যোগ্যতা, এবং ক্রেডিট পলিসি নির্ধারণের ক্ষমতা বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী সিটি ব্যাংক কর্তৃক সংরক্ষিত।

সূত্র: বিকাশ

(Visited 14,285 times, 2 visits today)

16 comments

  1. শোন দিবে ঠিক আছে কিন্তু বলে লেনদেন করতে লেনদেন তো করি। আমি টাকা পাঠাই বিকাশ থেকেই। টাকা পাঠাই এজেন্ট (দোকান) থেকে এছাড়া যদি কেউ আমাকে পাঠায় তা উত্তলণ করি এজেন্ট থেকে তাহলে লেনদেন করি কি না, লেনদেন এর জন্য লোন দিবেন না এটা কেমন নিয়ম ঐ বললাম লেনদেন হয় এজেন্টের মাধ্যমে।
    পরামর্শ : আপনাদের দেখা উচিৎ নাম্বার টি রেজিস্ট্রেশন করা কিনা এবং নিকটবর্তী সিটি ব্যাংকে গ্রাহকের হাজির হয়ে লোন বিতরণ করা।

    1. আপনি ভালই বলেছেন কিন্তু সিটি ব্যাংক এগ্রিমেন্ট টু বিকাশ রুলস মোতাবেক ঋণ বিতরণ করা হবে।

    1. সিটি ব্যাংক এবং বিকাশ সিদ্ধান্ত নিবে। অনুগ্রহ করে অপেক্ষা করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

close