তথ্য সংশোধন এবং তথ্য পরিবর্তন এক জিনিস নয়।

জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন একটি চলমান প্রক্রিয়া যা সারা বছর ধরেই চলতে থাকে। অনলাইনে services.nidw.gov.bd তে অথবা সংস্লিষ্ট উপজেলা/থানা নির্বাচন অফিসে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধনের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

এনআইডি’র তথ্য সংশোধণ এবং তথ্য পরিবর্তন ২০২২

সংশোধনের স্বপক্ষে উপযুক্ত কাগজপত্র দিলে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন হবে। অন্যদিকে, উপযুক্ত কাগজপত্র দাখিল করতে না পারলে সংশোধন করা কোনভাবেই সম্ভব নয়। আবার, অবাস্তব কোন সংশোধন আবেদন কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।

সবাইকে একটি বিষয় বুঝতে হবে – তথ্য সংশোধন এবং তথ্য পরিবর্তন এক জিনিস নয়। আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রে কোন ভুল তথ্য থাকলে উপযুক্ত প্রমাণপত্র দিলে সংশোধনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়ে থাকে।

উপযুক্ত প্রমানক থাকলে অনলানেই সংশোধনের আবেদন করুন

জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন

অনলাইনে তথ্য সংশোধন ঝামেলামুক্ত: এখানে ক্লিক করুন

অন্যদিকে, আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রে এক নাম আছে এবং আপনি ওই নামে স্বাক্ষরও করেছেন, কিন্তু আপনার সন্তান তার শিক্ষাগত সনদে আপনার অন্য নাম দিয়েছে বিধায় আপনি সন্তানের সার্টিফিকেট অনুযায়ী আপনার নাম পরিবর্তন করতে চান। এমন ক্ষেত্রে আপনার তথ্য পরিবর্তনের কোন সুযোগ নেই।

আবার দেখা গেল যে আপনি ভোটার হয়েছেন ২০০৭ সালে, আর আপনি মাধ্যমিক পাশ করেছেন পরবর্তীতে ২০১৫ সালে। এখন ২০১৫ সালের মাধ্যমিক সনদ দিয়ে নাম এবং জন্ম তারিখ পরিবর্তনের কোন সুযোগ নেই।

আবার দেখা যায় যে, আপনি ভোটার হয়েছেন ২০০৮ সালে, আর আপনি সংশোধন আবেদনের সাথে ২০১৭ সালের জন্মসনদ দাখিল করেছেন। জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধনের ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্রের পরে করা জন্মসনদ বিবেচ্য নয়।

তাই, আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যিকারের কোন তথ্যের সংশোধনের প্রয়োজন হলে উপযুক্ত কাগজপত্র দাখিল করে আবেদন করে সংশোধিত জাতীয় পরিচয়পত্র সংগ্রহ করুন।

(Visited 144 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published.

close