মৃত্যু নিবন্ধন সনদ বাতিলের জন্য আবেদন

জন্ম বা মৃত্যু নিবন্ধন সনদ বাতিল করার নিয়ম ২০২২

কখন আপনি মৃত্যু নিবন্ধন বাতিল করতে পারবেন? – অনলাইনেই মৃত্যু নিবন্ধন বাতিলের আবেদন করা যায় – জন্ম বা মৃত্যু নিবন্ধন বাতিল করার নিয়ম ২০২২

মৃত্যু নিবন্ধন সনদ বাতিলের জন্য আবেদন ২০২২–জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন বিধিমালা ২০১৮ এর অনুচ্ছেদ ১৫ মোতাবেক জন্ম বা মৃত্যু সনদ সংশোধন ও বাতিল করা যাইবে—১) আইনের ধারা ১১, ১৩ ও ১৫ তে বর্ণিত বিধান অনুসরণপূর্বক রেজিস্ট্রার জেনারেল অথবা তাহার পক্ষে অনা কোন ক্ষমতাসম্পন্ন কর্মচারীর নিকট হইতে কারিগরি সহায়তা গ্রহণ করিয়া জন্ম বা মৃত্যু সনদ বাতিল বা সংশােধন করা যাইবে।

জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন বিধিমালা ২০১৮ এর অনুচ্ছেদ ১৫ এর (১) বিধি ২১ এ নির্ধারিত ফিস প্রদান করিয়া জমনি ফরম-৮ অনুযায়ী কোন ব্যক্তি জন্ম বা মৃত্যু সনদ সংশােধন বা বাতিলের জন্য আবেদন করিতে পারিবেন। (৩) কোন ব্যক্তির অনুকূলে সরল বিশ্বাসে বা অন্য কোন যৌক্তিক কারণে একাধিক জন্ম বা মৃত্যু নিবন্ধন সনদ ইস্যু হইয়া থাকিলে, নিবন্ধনপ্রাপ্ত উক্ত ব্যক্তি বা, ক্ষেত্র বিশেষে, তাহার আইনানুগ অভিভাবকেন্দ্র আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে নিবন্ধক যাচাই করিয়া অপ্রয়ােজনীয় সনদটি বাতিল করিবেন।

জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন বিধিমালা ২০১৮ এর অনুচ্ছেদ ১৫ এর (৪) নিবন্ধক, কোন ব্যক্তির অনুকূলে অসৎ উদ্দেশাে মিথ্যা তথ্যের ভিত্তিতে একাধিক জন্ম বা মৃত্যু নিবন্ধন সনদ ইস্যুর দ্ধা প্রাপ্ত হইলে, উহা যাচাই করিয়া দায়ী ব্যক্তির সনদ বাঙ্গি এবং উক্ত দায়ী ব্যক্তি বা উহার সহত সংশ্লিষ্ট কর্মচারীর বিরুদ্ধে আইনের ধারা ২১ এর বিধান অনুযায়ী দমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করিতে পারিবেন।

জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন বিধিমালা ২০১৮ এর অনুচ্ছেদ ১৫ এর (৫) মিথ্যা তথ্যের ভিত্তিতে জন্ম বা মৃত্যু নিবন্ধন সনদ বাঙ্গি করা হইলে সংক্ষুব্ধ ব্যক্তির আবেদনক্রমে নিবন্ধক শুনানি গ্রহণ করবেন এবং মিথ্যা তথ্য প্রদানকারী বা সনদ লিপিবদ্ধকারী বা ইস্যুকারীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করিতে পারিবেন এবং উক্তরূপ অভিযােগ উত্থাপিত হইলে ব্লোজিস্ট্রার জেনারেল বা উপ-রেজিস্ট্রার জেনারেলের পূর্বানুমােদনক্রমে উপযুক্ত আদালতে মামলা দায়ের করতে এবং মামলার রায়ের ভিত্তিতে আইনের ধারা ১৫ অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করিতে পারিবেন ।

জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন বিধিমালা ২০১৮ এর অনুচ্ছেদ ১৫ এর (৬) বালিকৃত জন্ম বা মৃত্যু সনদের বিষয়ে নিবন্ধকগণ স্ব স্ব কার্যালয়ের নােটিশ বাের্ডে প্রকাশ্যে নােটিশ টাঙ্গানাের মাধ্যমে সর্বসাধারণকে অবহিত করিবেন।

মৃত্যু নিবন্ধন বাতিল আবেদন অনলাইনে করা যায় / জন্ম নিবন্ধন বাতিলের অনলাইন আবেদন এখনও চালু হয়নি

মৃত্যু নিবন্ধন বাতিল করতে মৃত্যু নিবন্ধন নম্বর এবং মৃত্যুর তারিখ প্রয়োজন পড়বে। পিতা,মাতা ব্যতিরেকে অন্য কেহও মৃত্যু নিবন্ধন বাতিলের আবেদন করতে পারবে।

মৃত্যু নিবন্ধন সনদ বাতিলের জন্য আবেদন

Caption: Death certificate cancelation online application Submission Process 2022

মৃত্যু নিবন্ধন বাতিলের অনলাইন আবেদন করার নিয়ম ২০২২

  1. প্রথমে আপনি গুগল bdris লিখে বা  bdris.gov.bd লিংকে যান।
  2. মৃত্যু নিবন্ধন মেন্যুতে কার্সর রাখুন এবং সার্টিফিকেট বাতিলের আবেদন মেন্যুতে ক্লিক করুন।
  3. মৃত্যু নিবন্ধন সনদ নম্বর এবং মৃত্যুর তারিখ, বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানা এবং আবেদনকারীর তথ্য দিয়ে সাবমিট করুন।
  4. হার্ড কপি প্রিন্ট করে সংযুক্তিগুলো দিয়ে দাখিল করুন। ব্যাস কাজ শেষ। ৩-৭ দিনের মধ্যে মৃত্যু নিবন্ধন সনদ বাতিল হবে।

মূলত কি কি কারনে মৃত্যু নিবন্ধন বাতিল করা যায়?

মৃত্যু নিবন্ধন বাতিলের একটি মাত্র কারণ থাকতে পারে তা হলো ডুপ্লিকেট মৃত্যু নিবন্ধন সনদ করে থাকলে আবেদন করে একটি বাতিল করতে হবে। আপনি অনলাইনে মৃত্যু নিবন্ধন বাতিলের আবেদন করবেন। আবেদন শেষে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নপরিষদে সংযুক্তি সহ আবেদনপত্র পেশ করবেন। কর্তৃপক্ষ যাচাই বাছাই করে মৃত্যু নিবন্ধনটি বাতিল করে দিবে। এক্ষেত্রে দুটি মৃত্যু নিবন্ধন কপিই আপনি আবেদনের সাথে যুক্ত করবেন।

বি:দ্র: অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সনদ বাতিলের আবেদন পদ্ধতি এখনও সক্রিয় হয়নি। তবে কিছু দিনের মধ্যেই জন্ম নিবন্ধন সনদ বাতিলের আবেদনও অনলাইনে করতে পারবেন।

(Visited 1,334 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *