বিকাশ পিন রিসেট করুন সহজেই

বিকাশ একাউন্ট লক হলে করণীয় ২০২৩ । বিকাশ পিন নিজেই রিসেট করবেন যেভাবে

বিকাশ পিন যদি আপনি ৩ বার ভুল ইনপুট দেন তাহলে আপনার বিকাশ একাউন্টটি সাময়িকভাবে লক করে দেওয়া হবে। আপনি পিন নম্বর ভুলে গেলে সেটি ঘরে বসেই রিসেট করতে পারেন। *২৪৭# ডায়াল করেও পিন রিসেট করতে পারেন। হেল্প লাইনে কল করে তথ্য দিয়েও পিন রিসেট করতে পারেন। আজ আমরা পিন রিসেট বা লক হওয়া বিকাশ একাউন্ট আনলক করা শিখবো।

সূচীপত্র

নিজেই পিন রিসেট করার উপায় ২০২৩

অগাস্ট ২৪, ২০২০ ঢাকাপিন ভুলে গেলে বা কয়েকবার ভুল পিন দেওয়ার কারণে বিকাশ অ্যাকাউন্ট ব্লক হয়ে গেলে এখন নিজেই নিজের বিকাশ অ্যাকাউন্টের তথ্য যাচাই(ভেরিফাই) করে পিন রিসেট করতে পারবেন গ্রাহক। সর্বাধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে গ্রাহকের বিকাশ অ্যাকাউন্টের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করার পাশাপাশি প্রকৃত গ্রাহককে আরো বেশি সক্ষম করে তুলতে সম্প্রতি এই সেবা চালু করেছে দেশের সবেচেয়ে জনপ্রিয় মোবাইল আর্থিক সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান বিকাশ। ধাপে ধাপে কিভাবে পিন রিসেট করতে পারবেন তা https://www.bkash.com/bn/pin-reset এই লিংকে ক্লিক করে জেনে নিতে পারবেন গ্রাহক।

ভুলে যাওয়া পিন কি ফিরে পাওয়া যাবে?

বিকাশ অ্যাকাউন্টের সমস্ত লেনদেন সম্পন্ন করতে পারসোনাল আইডেন্টিফিকেশন নম্বর (পিন) নম্বর প্রয়োজন। পিন নম্বর সুরক্ষিত এবং গোপন রেখেই বিকাশ অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সম্ভব। বিকাশ গ্রাহকের পিন তিনি নিজেই সেট করে নেন, ফলে একজন গ্রাহকের পিন কেবল তিনিই জানেন। অর্থ্যাৎ পিন সেট করা হয়ে গেলে স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে তা সুরক্ষিত হয়ে যায় এবং কারো পক্ষেই বিকাশ সিস্টেম থেকে ঐ পিন জানার কোন সুযোগ থাকে না। তাই পিন ভুলে গেলে গ্রাহকের সেট করা আগের পিন ফিরিয়ে দেয়ার কোন সুযোগ নেই।

টেম্পোরারি পিন পরিবর্তন করে নিতে হবে

গ্রাহক পিন ভুলে গেলে নতুন একটি অস্থায়ী( টেম্পোরারি) পিন রিসেট করে আবার গ্রাহককেই পিন রিসেট করার সুযোগ দেয় বিকাশ। সাধারণত কাস্টমার কেয়ার সেন্টারের ফোন নম্বর ১৬২৪৭, বিকাশ ফেসবুক পেজ এর লাইভ চ্যাট অপশন এবং ইমেইল এর মাধ্যমে যথাযথ তথ্য দিয়ে নতুন পিন রিসেট এর জন্য অস্থায়ী পিন পেতে পারেন গ্রাহক।

বিকাশের নতুন এই সেবায় গ্রাহক এখন ইউএসএসডি চ্যানেল *২৪৭# ডায়াল করে নিজেই নিজের অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই করে অস্থায়ী পিন পেয়ে যাবেন। *২৪৭# ডায়াল করে ৯ নম্বর অপশনের পিন রিসেট ডায়াল করতে হবে। পরের ধাপে জাতীয় পরিচয়পত্র/ড্রাইভিং লাইসেন্স/পাসপোর্ট যে পরিচয়পত্র দিয়ে অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে সেই নম্বরটি দিতে হবে। পরের ধাপে জন্ম সালের চারটি সংখ্যা দিতে হবে। এরপর গ্রাহককে বিগত ৯০ দিনের মধ্যে তার করা শেষ ১০টি আউটগোয়িং ট্রানজেকশনের যেকোন একটির তথ্য দিতে হবে। আর যদি শেষ ৯০ দিনের মধ্যে কোন আউটগোয়িং ট্রানজেকশন না করে থাকনে তাহলে ‘নো ট্রানজেকশন’ অপশন নির্বাচন করবেন। গ্রাহকের দেয়া সব তথ্য সঠিক থাকলে তিনি পাঁচ সংখ্যার অস্থায়ী পিন পেয়ে যাবেন।

এরপর *২৪৭# ডায়াল করে অথবা বিকাশ অ্যাপ থেকে নিজেই নতুন পিন রিসেট করে নিতে পারবেন গ্রাহক।

অস্থায়ী পিন এসএমএস-এ পাবার পর বিকাশ অ্যাপে পিন রিসেট করতে লগইন পেজ থেকে ‘পিন ভুলে গিয়েছেন’ বাটনে ট্যাপ করতে হবে। এরপর বিকাশ অ্যাকাউন্ট নম্বর দিতে হবে। পরের ধাপে ওয়ান টাইম পাসওর্য়াড (ওটিপি) এবং অস্থায়ী পিন দিয়ে গ্রাহক নিজের পছন্দ অনুসারে এলোমেলো পাঁচ সংখ্যার নতুন পিন দিয়ে আর একবার রিএন্টার করে সফলতার সাথে পিন রিসেট করে নিতে পারবেন।

ইউএসএসডি চ্যানেলে পিন রিসেট করতে *২৪৭# ডায়াল করে মাই বিকাশ থেকে ‘চেঞ্জ মোবাইল মেন্যু পিন’ নির্বাচন করতে হবে। পরের ধাপে পুরাতন পিন চাইলে অস্থায়ী পিন নম্বরটি দিতে হবে। এরপর গ্রাহক নিজের পছন্দ অনুসারে পাঁচ সংখ্যার নতুন এলোমেলো পিন দিয়ে আর একবার রিএন্টার করে সফলতার সাথে পিন রিসেট করে নিতে পারবেন।

 *247# ডায়াল করে পিন রিসেট করার উপায় ২০২৩

step 1

*২৪৭# কোড ডায়াল করুন। Reset PIN বেছে নিতে “9” লিখে সেন্ড করুন। বিকাশ একাউন্ট খুলতে ব্যবহৃত আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র/পাসপোর্ট/ড্রাইভিং লাইসেন্স নাম্বার টাইপ করে পরের ধাপে যান।

বিকাশ পিন রিসেট

আপনার জন্মসাল টাইপ করুন। আপনার শেষ ১০ টি লেনদেন থেকে যে কোন একটি সিলেক্ট করুন (গত ৯০ দিনের মধ্যে)। লেনদেন না করে থাকলে “7” লিখে সেন্ড করুন। উক্ত সার্ভিসে কত টাকা লেনদেন করেছিলেন তা লিখুন। তথ্য সঠিক হলে কিছুক্ষণের মধ্যে ম্যাসেজের মাধ্যমে একটি অস্থায়ী পিন নাম্বার পাবেন। এরপর শর্ট কোড ডায়াল করে বা বিকাশ অ্যাপ থেকে এই অস্থায়ী পিন নাম্বার ব্যবহার করে নতুন পিন সেট করে নিন।

পিন রিসেটের পর নতুন পিন সেট করার নির্দেশাবলী

  1. পিন (PIN) নাম্বার অবশ্যই ৫ ডিজিটের হতে হবে
  2. পিন (PIN) নাম্বার দেয়ার সময় শুধু সংখ্যা ব্যবহার করতে হবে
  3. নতুন পিন (PIN) নাম্বার সেট করার ক্ষেত্রে সর্বশেষ ব্যবহৃত তিনটি পিনের কোনোটিই ব্যবহার করা যাবে না
  4. পর-পর তিন বার ভুল পিন (PIN) দিলে, পিন (PIN) লক হয়ে যাবে
  5. পিন (PIN) নাম্বারের প্রথম সংখ্যাটি শূন্য (০) হওয়া যাবে না
  6. আট (৮) ঘণ্টার মধ্যে দুই বার পিন (PIN) পরিবর্তন করা যাবে না
  7. ধারাবাহিক এবং একই ডিজিটের নাম্বারগুলো পিন (PIN) নাম্বার হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না; যেমন 11111, 22222, 12345, 23456, 98765, 87654, 54321 ইত্যাদি

এসএমএস-এ অস্থায়ী পিন পাবার পর *247# পুনরায় ডায়াল করে নতুন পিন সেট করার নিয়ম ২০২৩

*২৪৭# কোড ডায়াল করুন। 1 টাইপ করে My Bkash সিলেক্ট করুন। 1 টাইপ করে Change Mobile Menu PIN সিলেক্ট করুন। এসএমএস এ পাওয়া অস্থায়ী পিন টাইপ করুন। 

আপনার পছন্দমতো ৫ সংখ্যার গোপন পিন নাম্বার দিন। নতুন পিনটি আবার দিয়ে কনফার্ম করুন। আপনি একটি কনফার্মেশন মেসেজ পাবেন।

অ্যাপ থেকে এসএমএস-এ অস্থায়ী পিন পাবার পর নতুন পিন সেট করার নিয়ম ২০২৩

অ্যাপ ওপেন করে “পিন ভুলে গিয়েছেন?” বাটনে ট্যাপ করুন। “পিন রিসেট করুন” বাটনে ট্যাপ করুন। আপনার ফোন নাম্বারটি এন্ট্রি করা অবস্থায় দেখতে পাবেন। এরপর “পরবর্তী” বাটনে ট্যাপ করুন।

আপনার মোবাইল অপারেটর সিলেক্ট করুন। এন্ড্রয়েড ফোনে ওটিপি অটোফিল এর জন্য ” Allow” বাটতে ট্যাপ করুন। এরপর নিচের বাটনে ট্যাপ করুন। এসএমএস থেকে পাওয়া অস্থায়ী পিন দিন।

আপনার পছন্দমতো ৫ সংখ্যার গোপন পিন দিয়ে কনফার্ম করুন। লগইন পেজে গিয়ে নতুন পিন দিয়ে লগইন করুন। আপনার লগইন সফল হলে অ্যাপের হোম স্ক্রীন দেখতে পাবেন।

কীভাবে *247# ডায়াল করে বর্তমান পিন পরিবর্তন করবেন

আপনার বিকাশ একাউন্ট আরো সুরক্ষিত করতে ৫ ডিজিট-এর পিন (PIN) নাম্বার ব্যবহার করুন। পিন (PIN) নাম্বার পরিবর্তন করতে *247# ডায়াল করে নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন:

  • ৮ টাইপ করে My bKash সিলেক্ট করুন
  • ৩ টাইপ করে Change Mobile Menu PIN সিলেক্ট করুন
  • আপনার বর্তমান পিন (PIN) নাম্বারটি দিন
  • ৫ ডিজিটের একটি নতুন পিন (PIN) নাম্বার দিন
  • পুনরায় নতুন পিন (PIN) নাম্বার দিয়ে কনফার্ম করুন
  • আপনার মোবাইলে একটি কনফার্মেশন পাবেন

পিন (PIN) নাম্বার পরিবর্তনের ক্ষেত্রে নিচের বিষয়গুলো খেয়াল রাখুন

  • পিন (PIN) নাম্বার অবশ্যই ৫ ডিজিটের হতে হবে
  • পিন (PIN) নাম্বার দেয়ার সময় শুধু সংখ্যা ব্যবহার করতে হবে
  • নতুন পিন (PIN) নাম্বার সেট করার ক্ষেত্রে সর্বশেষ ব্যবহৃত তিনটি পিনের কোনোটিই ব্যবহার করা যাবে না
  • এক ঘণ্টার মধ্যে তিন বার ভুল পিন (PIN) দিলে, পিন (PIN) লক হয়ে যাবে
  • পিন (PIN) নাম্বারের প্রথম সংখ্যাটি শূন্য (০) হওয়া যাবে না
  • আট (৮) ঘণ্টার মধ্যে দুই বার পিন (PIN) পরিবর্তন করা যাবে না
  • ধারাবাহিক এবং একই ডিজিটের নাম্বারগুলো পিন (PIN) নাম্বার হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না; যেমন 11111, 22222, 12345, 23456, 98765, 87654, 54321 ইত্যাদি

সূত্র: বিকাশ

  • প্রশ্ন: ভুলে যাওয়া পিন কি জানা যাবে?
  • উত্তর: না। যা ভুলে গেছেন তো গেছেনই। পিন রিসেট করে নতুন পিন পাওয়া যাবে।

সরাসরি কাস্টমার কেয়ারে গিয়ে পিন পরিবর্তন বা রিসেট ২০২৩

আপনার নিকটস্থ জেলার বিকাশ পয়েন্টে গিয়ে আপনি পিন রিসেট করতে পারেন। গুগলে সার্চ গিয়ে আপনি আপনার বিকাশ পয়েন্ট জেনে নিতে পারেন। “bkash point near me” লিখে গুগল করলেই আপনি List of Customer Care Center & Care Centers providing service নামে একটি পেইজ পাবেন সেখান থেকে আপনার এলাকার Customer Care Center Address দেখে নিতে পারেন। কাস্টকারকে সরাসরি নিজে এনআইডি নিয়ে যেতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *