Pensioner’s Death Information entry । পেনশন বন্ধ করার নিয়ম ২০২২

সরকারি কর্মচারীগণ চাকুরী শেষে মাসিক পেনশন পেয়ে থাকেন। প্রতিমাসেই বর্তমানে পেনশন পেনশনারের ব্যাংক হিসাবে জমা হয়। একজন পেনশনার ১১ মাসে একবার যে কোন হিসাবরক্ষণ অফিসে গিয়ে Live ভেরিফিকেশনের মধ্যে পেনশন সচল রাখে। পেনশনারের মৃত্যুর পর যদি তার স্ত্রী থাকে সে আজীবন পেনশন পায় এবং যদি প্রতিবন্ধী সন্তান থাকে সেও আজীবন পেনশন পায়। 

অন্যদিকে যদি পেনশনের যাওয়ার ১৫ বছরের মধ্যে একজন পেনশনার মারা যায় তবে তার ছেলে সন্তান যে বয়সেরই হোক না কেন সে পেনশন পাবে। অন্যদিকে যদি অপ্রাপ্ত বয়স ছেলে বা মেয়ে থাকে তাদের বয়স ২৫ বছর পর্যন্ত পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত পেনশন প্রাপ্য হবেন। তাই পেনশনার মারা গেলে সাথে সাথেই পেনশন বন্ধ করে পুনরায় পরিবারিক পেনশনের জন্য আবেদন করতে হবে। অন্যথায় পেনশনারের মৃত্যুর পর যে অর্থ জমা হবে তা পুনরায় সরকারি কোষাগারে জমা দিয়ে অতপর পারিবারিক পেনশন চালু করা যাবে।

পেনশন বন্ধ করতে হয় কেন?

পেনশনার মারা গেলেই অনলাইনে মৃত্যু সনদ আপলোড করে পরিবার পেনশন বন্ধ করবে এবং অতপর পারিবারিক পেনশনের জন্য আবেদন করতে হবে। যদি পেনশন বন্ধ না করা হয় তবে ব্যাংক একাউন্টে পেনশন জমা হতেই থাকবে প্রতি মাসে। তাই অতিরিক্ত গৃহীত পেনশন সরকারি কোষাগারে জমা না দেওয়া পর্যন্ত পারিবারিক পেনশন চালু হবে না।

বর্তমানে পেনশনার মারা গেলে হিসাবরক্ষণ অফিসে না গিয়েই অনলাইনে পেনশন বন্ধ করা যাবে। আপনি চাইলে মোবাইল নম্বরে ফোন করে মৃত্যু সংবাদ দিয়ে এনআইডি ও মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে মাসিক পেনশন ব্লক বা বন্ধ করতে পারেন। আবার চাইলে হিসাবরক্ষণ অফিসে মৃত পেনশনারের এনআইডি এবং মোবাইল নম্বর জমা দিয়েও পেনশন বন্ধ করা যাবে।

অনলাইনে মৃত্যু সনদ জমা দিয়ে মাসিক পেনশন বন্ধ করুন

Pensioner’s Death Information entry

Website Link: https://www.cafopfm.gov.bd

অনলাইনে কিভাবে পেনশন বন্ধ করা যাবে?

  1. প্রথমে আপনি আপনার মোবাইল বা কম্পিউটার থেকে https://www.cafopfm.gov.bd এই লিংকে প্রবেশ করবেন।
  2. স্ক্যানার দিয়ে মৃত্যু সনদ স্ক্যান করবেন বা মোবাইল দিয়ে ছবি তুলে নিবেন। মৃত্যু সনদ অবশ্যই অনলাইন হতে হবে।
  3. cafopfm.gov.bd এই ওয়েবসাইটে গেলে একেবারে নিচের দিকে স্ক্রল করে গেলেই Pensioner’s Death Information entry নামে একটি কলাম পাবেন।
  4. NID/Smart ID নম্বর ইনপুট দিবেন। Please insert Pensioner’s 17-Digit NID or 10-Digit Smart ID number and Registered phone number for EFT
  5. Phone No এন্ট্রি করবেন। যে মোবাইল নম্বরটি আপনি ইএফটি’র সময় দিয়েছেন সেটি।
  6. Date of Death লিখবেন।
  7. Upload Death Certificate (optional) আপলোড করবেন। Choose এ ক্লিক করে ফাইল সিলেক্ট করে নিবেন।
  8. Submit Click করলে মোবাইলে একটি ওটিপি আসবে সেটি ইনপুট দিয়ে Ok করলেই কাজ শেষ।
  9. Done

পারিবারিক পেনশন সম্পন্ন হলে পুনরায় আবার পারিবারিক পেনশন চেক করতে পারবেন। তাই ঝামেলা এড়াতে পেনশনারের মৃত্যুর সাথে সাথেই অনলাইনে পেনশনারের মৃত্যুর তথ্য এন্ট্রি দিয়ে পেনশন বন্ধ করবেন।

শত্রুতাবশত কারও পেনশন বন্ধ করা শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

(Visited 172 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published.

close