ভিজিডি অর্থ কি, ভিজিডি কার্ডের অনলাইন আবেদন, ভিজিডি কার্ডের তালিকা, ভিজিডি তালিকা ২০২১-২০২২, ভিজিডি কর্মসূচি Vgd এর পূর্ণরূপ কি, ভিজিডি তালিকা, ভিজিডি চাল

ভিজিডি অনলাইন আবেদন । VGD অন্তর্ভূক্তির শর্তাবলী ২০২২

ভিজিডি (Vulnerable Group Development-VGD) কর্মসূচি মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আওতায় বাংলাদেশের গ্রামীণ দুঃস্থ মহিলাদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বাস্তবায়িত একটি অন্যতম সামাজিক নিরাপত্তামূলক কর্মসূচি, যা সম্পূর্ণরূপে আর্থ-সামাজিকভাবে দুঃস্থ পরিবার বিশেষত: মহিলাদের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করে।

ভিজিডি কি? কত টাকা পাওয়া যায়?

ভিজিডি কর্মসূচি মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আওতায় বাংলাদেশের গ্রামীণ দুঃস্থ মহিলাদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বাস্তবায়িত একটি অন্যতম সামাজিক নিরাপত্তামূলক কর্মসূচি, যা সম্পূর্ণরূপে আর্থ-সামাজিকভাবে দুঃস্থ পরিবার বিশেষত: মহিলাদের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করে। অতি দরিদ্র মহিলাদের উন্নয়ন স্থায়ীত্বের জন্য এই কর্মসূচির আওতায় প্রতি ২ (দুই) বছর মেয়াদী ভিজিডি চক্রে জন দুঃস্থ মহিলা মাসিক ৩০ কেজির বস্তাজাত খাদ্য (চাল) সাহায্যের পাশাপাশি উন্নয়ন প্যাকেজ সেবার আওতায় নির্বাচিত এনজিও’র মাধ্যমে জীবনদক্ষতা উন্নয়নমূলক প্রশিক্ষণ এবং আয়বর্ধকমূলক প্রশিক্ষণ পেয়ে থাকে। তাছাড়া, উপকারভোগীগণ সঞ্চয় ব্যবস্থাপনার আওতায় প্রতি মাসে ২০০/- টাকা সঞ্চয় জমা করে থাকে, যা ক্ষুদ্র ব্যবসা পরিচালনার জন্য প্রারম্ভিক মূলধন গঠন হিসেবে কাজ করে।

ভিজিডি কর্মসূচির লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য ২০২২

বাংলাদেশের দারিদ্র পীড়িত এবং দুঃস্থ গ্রামীণ মহিলাদের আর্থ-সামাজিক অবস্থার ইতিবাচক উন্নয়ন করা, যাতে তারা বিদ্যমান খাদ্য নিরাপত্তাহীনতা এবং নিম্ন সামাজিক মর্যাদার অবস্থানকে সফলভাবে অতিক্রম করে চরম দারিদ্র স্তরের উপরের অবস্থানে/স্তরে টিকে থাকার সক্ষমতা অর্জন করতে পারে। গ্রামীণ দু:স্থ পরিবারসমূহের দৈনন্দিন খাদ্য চাহিদা পূরণে সহায়তা করা এবং বিপণনযোগ্য দক্ষতা বৃদ্ধিকল্পে প্রশিক্ষণের সুযোগ সৃষ্টি করা, সঞ্চয়ের মাধ্যমে বিনিয়োগের প্রারম্ভিক মূলধন সংগ্রহের জন্য উৎসাহিত করা, ঋণ প্রাপ্তিতে সুযোগ প্রদানের মাধ্যমে উপার্জনক্ষম করে গড়ে তোলা এবং চলমান উন্নয়ন কর্মসূচি গুলোতে অন্তর্ভুক্তিকরণের জন্য যোগ্য করে গড়ে তোলা।

 ভিজিডি অন্তর্ভূক্তির শর্তাবলী ২০২২

  • বয়সসীমা ২০ হতে ৫০ বছর।
  • ডাটাবেজ তৈরির জন্য জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর বাধ্যতামূলক।
  • পরিবারে কর্মক্ষম দুস্থ, বিধবা, তালাকপ্রাপ্ত ও স্বামী পরিত্যক্তা নারী আছে এবং
  • কোন উপার্জনক্ষম সদস্য অথবা অন্য কোন স্থায়ী /নিয়মিত আয়ের উৎস নেই।
  • একটি পরিবার কেবলমাত্র একটি ভিজিডি কার্ড পাবে।
  • নির্বাচিত মহিলাগণ বিনাশর্তে এবং বিনামূল্যে ভিজিডি কার্ড পাবেন।

ভিজিডি কার্ড প্রদানের অগ্রাধিকার ২০২২

  1. প্রকৃত অর্থে ভূমিহীন অর্থাৎ খানা বা পরিবারের কোন জমি নেই অথবা নিজ মালিকানার বসত ভিটা ও চাষযােগ্য মােট জমির পরিমান ০.১৫ একর (১৫ শতাংশ) অথবা কম। ভূমিহীন যে সব পরিবারের মহিলা দুঃস্থ ও অসহায় এবং যাদের অন্য কোন স্থায়ী/নিয়মিত আয়ের উৎস নেই।
  2. যে পরিবার দৈনিক দিনমজুর হিসেবে জীবিকা নির্বাহ করে, বিশেষভাবে কৃষিক্ষেত্রে দিনমজুর হিসেবে কাজ করে সে পরিবার অগ্রাধিকার পাবে।
  3. যে সব দরিদ্র পরিবারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত কিশােরী আছে সে সকল পরিবারের “মা” অগ্রাধিকার পাবে। কিশােরীরা নিয়মিত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যাবে, বাল্য বিবাহ করবে না এবং কোন ঝুঁকিপূর্ণ কাজে যুক্ত থাকবে না মর্মে অংগীকারবদ্ধ হতে হবে।
  4. যে পরিবারের ঘরের দেয়াল মাটির/পাটকাঠি বা বাঁশের তৈরী, সে পরিবার অগ্রাধিকার পাবে।
  5. যে সব দরিদ্র পরিবারে অটিজম/প্রতিবন্ধী সদস্য আছে, সে সব পরিবার ভিজিডি উপকারভােগী নির্বাচনে অগ্রাধিকার পাবে।
  6. যে পরিবারে বিদ্যুৎ সংযােগ নেই, সে পরিবার অগ্রাধিকার পাবে।

ভিজিডি তালিকা ২০২১-২০২২

 ভিজিডি তালিকা ২০২১-২০২২

 ভিজিডি কার্ড প্রদানের ক্ষেত্রে বাছাই কমিটিতে কারা থাকেন?

কে দিয়েছে ভিজিডি কার্ড?

আপনার অনলাইন আবেদন ভিজিডি কার্ড অনুমোদন হয়েছে কিনা তা চেক করতে এখানে ক্লিক করুন। ভিজিডি কর্মসূচীর উপকারভোগী হওয়ার আবেদন ফরম সংগ্রহ করুন। বর্তমানে আবেদন জমা দেয়ার সময় শেষ। অনলাইনে ভিজিডি কার্ডের আবেদন করতে ভিজিট করতে থাকুন: dwavgd.gov.bd/applicant/vgd/form

ভিজিডি’র মাধ্যমে নারীদের ভবিষ্যৎ ২০২২

আয় রোজগারের জন্য যেমন দক্ষতা লাগে, তেমনি জীবন ও পরিবেশ পরিস্থিতির সঙ্গে খাপ খাইয়ে চলার জন্য নানাবিধ জ্ঞান ও দক্ষতার প্রয়োজন হয়; যাকে জীবন দক্ষতা বলে অভিহিত করা হয়। উপকারভোগী মহিলাদের প্রশিক্ষণ প্রদানের জন্য নির্বাচিত ও চুক্তিবদ্ধ এনজিও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর কর্তৃক সরবরাহকৃত প্রশিক্ষণ মডিউল অনুযায়ী ভিজিডি উপকারভোগী মহিলাদের সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। নির্বাচিত প্রত্যেক ভিজিডি উপকারভোগী মহিলা (১০০%) ২ (দুই) বৎসর মেয়াদী ভিজিডি চক্রে ৪৬ ঘন্টার (১৩ দিন) আনুষ্ঠানিক সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক মৌলিক প্রশিক্ষণ এবং ১৭.৩০ ঘন্টার (৭দিন) রিফ্রেশার্স প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে থাকে। জীবন দক্ষতা উন্নয়নমূলক প্রশিক্ষণের উদ্দেশ্য হচ্ছে অতি দরিদ্র ও দরিদ্র মহিলাদের জীবন-জীবিকার মান উন্নয়ন করা। মৌলিক প্রশিক্ষণে বিভিন্ন বিষয়ের উপর সচেতন করা হয়, যা দৃষ্টিভঙ্গি এবং আচরণ পরিবর্তন ও প্রাত্যহিক জীবনে তার প্রয়োগ ঘটাতে ইতিবাচক ভূমিকা পালন করে থাকে।

জীবন দক্ষতা প্রশিক্ষণের বিষয়ঃ 

১) ভিজিডি কর্মসূচি, ব্যক্তিগত স্বাস্থ্য ও পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা

২) দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব

৩) মা ও শিশু স্বাস্থ্য, খাদ্য ও পুষ্টি

৪) নারীর ক্ষমতায়ন

৫) এইচআইভি/এইডস এবং মাদক ও তামাকজাত দ্রব্যের প্রভাব।

আয় বৃদ্ধিমূলক দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ: আয় বৃদ্ধিমূলক দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণের উদ্দেশ্য হলো ভিজিডি উপকারভোগী মহিলাদের দক্ষতা উন্নয়নের জন্য চুক্তিবদ্ধ এনজিও’র মাধ্যমে প্রশিক্ষণ প্রদান করা। নির্বাচিত প্রত্যেক ভিজিডি উপকারভোগী মহিলা (১০০%) প্রথমে কমপক্ষে ৪২ ঘন্টার আনুষ্ঠানিক মৌলিক প্রশিক্ষণ এবং দ্বিতীয় পর্যায়ে ফলোআপ হিসেবে ২১ ঘন্টার রিফ্রেশার্স প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে থাকে। আয় বৃদ্ধিমূলক দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণের মাধ্যমে অতি দরিদ্র ও দরিদ্র মহিলাদের আয়বৃদ্ধিমূলক কর্মসূচির সাথে সম্পৃক্ত করে তাদের জীবন-জীবিকার মান উন্নয়ন ও আত্মনির্ভরশীল করে গড়ে তোলা। এতদ্ব্যতীত ভিজিডি উপকারভোগী মহিলাগণ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে উদ্যোক্তা উন্নয়ন ও ব্যবসা ব্যবস্থাপনাসহ নির্দিষ্ট আয় বৃদ্ধিমূলক কাজের উপর ধারণা পেয়ে থাকে এবং নিজস্ব দক্ষতা/চাহিদার ভিত্তিতে একটি ব্যবসা পরিকল্পনা করে থাকে।

প্রশিক্ষণের বিষয়ঃ 

১) উদ্যোক্তা উন্নয়ন

২) দেশী মুরগী ও হাঁস পালন

৩) বাড়ীর পাশে সবজী চাষ

৪) গরু ও ছাগল পালন।

ভিজিডি কর্মসূচির আওতায় ২০২১-২০২২ চক্রের ভিজিডি উপকারভোগী বাছাই/নির্বাচন, ভিজিডি খাদ্য ও কার্ড বিতরণ সংক্রান্ত পরিপত্র: ডাউনলোড

(Visited 17,032 times, 1 visits today)

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *