Estipend pmeat gov bd । অনলাইনে স্নাতক পর্যায়ে উপবৃত্তি প্রাপ্তির আবেদন করার নিয়ম দেখে নিন

Estipend pmeat gov bd । অনলাইনে স্নাতক পর্যায়ে উপবৃত্তি প্রাপ্তির আবেদন করার নিয়ম দেখে নিন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীগণ অনলাইনে উপবৃত্তি প্রাপ্তির আবেদন দাখিল করতে পারবেন – অনলাইনে স্নাতক পর্যায়ে উপবৃত্তি আবেদন করার নিয়ম ২০২৩

স্নাতক অধ্যয়নরতদের উপবৃত্তি ২০২৩– প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট কর্তৃক স্নাতক (পাস) ও সমমান পর্যায়ের বা ডিগ্রী ১ম বর্ষে (২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এবং ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের ২০২২-২৩ অর্থবছরে উপবৃত্তি প্রদান করা হবে। স্নাতক (পাস) ও সমমান পর্যায়ের উপবৃত্তি প্রদান নির্দেশিকা ২০২২

আবেদনের শেষ তারিখ কবে? স্নাতক (পাস) ও সমমান পর্যায়ের বা ডিগ্রীর শুধু ১ম বর্ষে (২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের) অধ্যয়নরত দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীই উপবৃত্তি প্রাপ্তির জন্য https://estipend.pmeat.gov.bd এ লিংকে প্রবেশ করে অনলাইনে নিবন্ধন করতে হবে। ই-স্টাইপেন্ড সিস্টেমের ব্যবহার নির্দেশিকা অনুসরণপূর্বক ১৫/৩/২০২৩ খ্রি: থেকে ০৬/৪/২০২৩ খ্রি: তারিখ পর্যন্ত https://estipend.pmeat.gov.bd লিংকের সিস্টেম ব্যবহার করে সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবে।

অনলাইনে আবেদনের নিয়ম কি? নিবন্ধনের জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশনা বর্ণিত ওয়েবসাইটে প্রদত্ত ব্যবহার নির্দেশিকা অনুসরণ করতে হবে। সফটওয়্যারে তথ্য এন্ট্রির জন্য সংশ্লিষ্ট সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান এবং উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা কর্তৃক ইতোপূর্বে প্রদত্ত User ID ও Password ব্যবহার করে অথবা, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের EMIS সফটওয়্যারের জন্য ব্যবহৃত User ID ও Password ব্যবহার করেও লগইন করতে পারবেন। সামগ্রিক প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানগণকে আগামী ১৮/৪/২০২৩ খ্রি. তারিখের মধ্যে প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রদানের লক্ষ্যে একটি স্বাক্ষরিত কার্যবিবরণী সংযুক্ত (Upload) করে সিস্টেম ব্যবহার করে অনলাইনে ট্রাস্টে প্রেরণ করবেন এবং প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের তালিকার কোন হার্ড কপি প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্টে প্রেরণের প্রয়োজন নেই। আবেদন বা  ব্যবহার নির্দেশিকা পেতে এখানে ক্লিক করুন

উপবৃত্তি কত টাকা পাওয়া যায়? সরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপবৃত্তি ও অন্যান্য ভাতার হার ২০২৩

শ্রেণি

স্নাতক (পাস) ও সমমান

উপবৃত্তির হার

টাকা

মোট টাকাবই ক্রয়পরীক্ষার ফিসসর্বমোটমন্তব্য
১ম বর্ষ২০০ x ১২২৪০০/=১৫০০/=১০০০/=৪৯০০/=
২য় বর্ষ২০০ x ১২২৪০০/=১৫০০/=১০০০/=৪৯০০/=
৩য় বর্ষ২০০ x ১২২৪০০/=১৫০০/=১০০০/=৪৯০০/=

প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট উপবৃত্তি ২০২৩ / স্নাতক বর্ষের শিক্ষার্থীদের অনলাইনে উপবৃত্তি প্রাপ্তির আবেদন করার নিয়ম দেখে নিন

স্নাতক ও সমমান পর্যায়ের দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে উপবৃত্তি বিতরণ কার্যক্রম

Caption: Source of information

স্নাতক পর্যায়ে উপবৃত্তি প্রাপ্তির শর্তাবলী ২০২৩ । সবাই কি উপবৃত্তি পাবেন?

  1. উপবৃত্তি প্রাপ্তির জন্য শিক্ষার্থীকে ডিগ্রী (পাস)/ফাজিল পর্যায়ে অধ্যয়নরত নিয়মিত শিক্ষার্থী হতে হবে।
  2. নিয়মিত শিক্ষার্থী হিসেবে শ্রেণিকক্ষে (ক্লাস) কমপক্ষে ৭৫% উপস্থিত থাকতে হবে। এক্ষেত্রে আবশ্যিক বিষয় হিসেবে (বাংলা/ইংরেজি) গণনা করা যেতে পারে।
  3. উপবৃত্তি প্রাপ্তির জন্য নির্বাচিত শিক্ষার্থীর অভিভাবকের বার্ষিক আয় মোট ১,০০,০০০/- (এক লক্ষ) টাকার কম হতে হবে।
  4. অভিভাবক/পিতা-মাতার মোট জমির পরিমাণ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় বসবাসকারী ০.০৫ (দশমিক শূন্য পাঁচ) শতাংশ এবং অন্যান্য এলাকায় ০.৭৫ (দশমিক পঁচাত্তর) শতাংশের কম জমি থাকতে হবে।

কাদের উপবৃত্তি দেওয়া হইবে?

দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সানুগ্রহ অভিপ্রায় অনুযায়ী ২০১২ সালে “প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট” গঠন করা হয় । ট্রাস্ট ফান্ড থেকে স্কুল/কলেজ/মাদ্রাসা/বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি, আর্থিক সহায়তা, অনুদান ও উচ্চ শিক্ষায় ফেলোশিপ প্রদান করা হয়।

FAQ’s

প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট এর দায়িত্ব ও কার্যাবলি?

৬ষ্ঠ থেকে স্নাতক (পাস) ও সমমান শ্রেণি পর্যন্ত দরিদ্র ও মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের বিনা বেতনে শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ সৃষ্টি ও উপবৃত্তি প্রদান করা হয়।

অ্যাপের মাধ্যমে আবেদন করা যাবে?

হ্যাঁ। e-Stipend Management Systemঅ্যাপের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা উপবৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবে। যার লিংক https://play.google.com/store/apps/details?id=com.synesisIt.pmeat

রেজিস্ট্রেশন করতে সমস্যা হচ্ছে?

হেল্প ডেস্ক -এ গিয়ে নিচের তথ্যগুলো দিন: ১. ডিগ্রী রেজিস্ট্রেশন নম্বর, ২. এইচ এস সি রোল নম্বর ও রেজিস্ট্রেশন নম্বর, ৩. প্রতিষ্ঠানের নাম, ৪. বর্ষ (১ম, ২য় অথবা ৩য় বর্ষ), ৫. জেলা, ৬. উপজেলা, ৭. ফোন/মোবাইল নম্বর

স্নাতক ও সমমান পর্যায়ের দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে উপবৃত্তি বিতরণ কার্যক্রম ২০২২

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *