পরিবার সঞ্চয়পত্র ফরম ২০২২, নতুন সঞ্চয়পত্র ফরম ৩ মাস অন্তর মুনাফাভিত্তিক সঞ্চয়পত্র ফরম pdf, সঞ্চয়পত্র ফরম পিডিএফ, সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্র ফরম, অনলাইন সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের ফরম, সঞ্চয়পত্র ফরম পূরণের নিয়ম, পারিবারিক সঞ্চয়পত্র ফরম পূরণের নিয়ম,

New family sanchayapatra form 2022 । নতুন এক পাতার সঞ্চয়পত্র ফরম

সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের জন্য প্রথমেই যে জিনিসটি দরকার তা হল সঞ্চয়পত্র ফরম – শুধু ফর্ম সংগ্রহের জন্য ব্যাংকে যাওয়ার দরকার নেই –New family sanchayapatra form 2022

নতুন এক পাতার সঞ্চয়পত্র ফরম – নতুন সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের ফর্মটি যদি আপনি এখন থেকে ডাউনলোড করে কয়েক কপি প্রিন্ট করে রাখেন তবে সেটি পূরণ করেই জমা দিতে পারবেন। ফর্ম, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও টাকা সহ একবারে গিয়ে সব কিছু সেরে আসতে পারেন। এক পাতার সঞ্চয়পত্র ফরম।

সব ধরনের সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার গত মাসে কমিয়েছে সরকার। তারপরও পেনশনার সঞ্চয়পত্র ছাড়া সাধারণ সঞ্চয়কারীদের জন্য নির্ধারিত পাঁচ বছর মেয়াদি পরিবার সঞ্চয়পত্রেই সবচেয়ে বেশি মুনাফা পাওয়া যায়। এখনো এ সঞ্চয়পত্রে মেয়াদ শেষে মুনাফার হার ১১ দশমিক ৫২ শতাংশ। এ হার অবশ্য ১৫ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগের ক্ষেত্রে। ১৫ লাখ ১ টাকা থেকে ৩০ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগের ক্ষেত্রে মেয়াদ শেষে মুনাফার হার ১০ দশমিক ৫ শতাংশ। আর ৩০ লাখ ১ টাকা থেকে তার বেশি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে মেয়াদ শেষে মুনাফা সাড়ে ৯ শতাংশ। সঞ্চয়পত্র ক্রয়ে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রাদি ২০২২

বর্তমানে ১০ হাজার, ২০ হাজার, ৫০ হাজার, ১ লাখ, ২ লাখ, ৫ লাখ এবং ১০ লাখ টাকা মূল্যমানের পরিবার সঞ্চয়পত্র রয়েছে। একজন ব্যক্তি একক নামে সর্বোচ্চ ৫০ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র কিনতে পারলেও পরিবার সঞ্চয়পত্র কেনা যায় ৪৫ লাখ টাকার, বাকি ৫ লাখ টাকার অন্য সঞ্চয়পত্র কেনার সুযোগ রয়েছে। Sanchayapatra Form 2022 । সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের আবেদন ফরম

New Paribar Sanchaypatro 2022 / পারিবারিক সঞ্চয়পত্র ফরম সংগ্রহ করুন।

বর্তমানে মহিলাদের সবচেয়ে জনপ্রিয় সঞ্চয়পত্র হচ্ছে পরিবার সঞ্চয়পত্র

New family sanchayapatra form 2022 । নতুন এক পাতার সঞ্চয়পত্র ফরম

Caption: New family sanchayapatra form 2022 । নতুন এক পাতার সঞ্চয়পত্র ফরম ডাউনলোড

পরিবার সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট ২০২২ । সঞ্চয়পত্র ক্রয়ে যা যা লাগবে।

  1. নতুন এক পাতার সঞ্চয়পত্র ফরম ডাউনলোড
  2. ক্রেতার ০২(দুই) কপি পাসপাের্ট সাইজ ছবি৷
  3. ক্রেতার জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি।
  4. ক্রেতার ই-টিন সার্টিফিকেটের ফটোকপি ((০৫ লক্ষ টাকার বেশি ক্রয়ের জন্য) ।
  5. এমআইসিআর চেকের মাধ্যমে বিনিয়ােগের টাকা পরিশােধ করতে হবে (০১ লক্ষ টাকার বেশি হলে)।
  6. নমিনীর ০২(দুই) কপি পাসপাের্ট সাইজ ছবি এবং জাতীয় পরিচয় পত্রেরফটোকপি।
  7. রিটার্ণ দাখিল করেছেন কর্মে প্রত্যয়নপত্র (যদি ৫ লক্ষ টাকার বেশি ক্রয় করেন)
  8. প্রয়োজনীয় নগদ টাকা ব্যাংকে জমা থাকতে হবে।

সঞ্চয়পত্র মেয়াদপূর্তির পূর্বে নগদায়ন করা যায় কি?

সময়ের পূর্বেই ভাঙ্গালে যে হার পাওয়া যাবে –নতুন নিয়মে, এখন ১৫ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগের ক্ষেত্রে পূর্ণ মেয়াদ শেষে মুনাফার হার ১১ দশমিক ৫২ শতাংশ। এ ছাড়া প্রথম বছর শেষে ভাঙালে মুনাফা মিলবে সাড়ে ৯ শতাংশ, দ্বিতীয় বছর শেষে ভাঙালে মুনাফা পাওয়া যাবে ১০ শতাংশ হারে, তৃতীয় বছর শেষে মুনাফা মিলবে সাড়ে ১০ শতাংশ হারে আর চতুর্থ বছর শেষে ভাঙালে মিলবে ১১ শতাংশ হারে মুনাফা।

মেয়াদপূর্তির পূর্বে সঞ্চয়পত্র সম্পূর্ণ/ আংশিক নগদায়ন সংক্রান্ত আবেদনপত্র নমুনা।

(Visited 285 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *