পোস্ট অফিস সঞ্চয়পত্র ২০২২, সুদের হার বাংলাদেশ পোস্ট অফিসে একাউন্ট খোলার নিয়ম, সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম ২০২২, পোস্ট অফিসে টাকা রাখার নিয়ম ২০২২, পোস্ট অফিস সঞ্চয়পত্র কেনার নিয়ম, পোস্ট অফিস সঞ্চয়পত্র ফরম,

Post office sanchayapatra । পোস্ট অফিস সঞ্চয়পত্র কেনার নিয়ম ২০২২

সঞ্চয়পত্র বিনিয়োগ লাভজনক – ডাকঘর সঞ্চয়পত্র ক্রয় করার নিয়ম – Post office sanchayapatra 2022

ডাকঘর সঞ্চয়পত্র – জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর কর্তৃক জেলা সঞ্চয় ব্যুরো, ডাকঘর এবং তফসিলী ব্যাংক গুলোর মাধ্যমে সঞ্চয়পত্র বিক্রয় করা হয়। অটোমেশন সফটওয়্যারের মাধ্যমে অনলাইনে এসব বিক্রয় কেন্দ্র হতে খুবই স্বল্প সময়ে সঞ্চয়পত্র ক্রয় করা যায়। Sanchayapatra purchase limit 2022

একজন ব্যক্তি বর্তমানে একক নামে ৫০ লক্ষ টাকার সঞ্চয়পত্র ক্রয় করতে পারে। ডাকঘর সঞ্চয়পত্র ক্রয়কালে নগদ লেনদেনের মাধ্যমে সঞ্চয়পত্র মূল্য পরিশোধ করা হত। সঞ্চয়পত্র ডাকঘর হতে ক্রয় করতে হলে বর্তমান সম্পূর্ণ নগদমূল্যে ক্রয় করা যাবে না। এক লক্ষ টাকার উপরের সঞ্চয়পত্র ক্রয় করতে হলে আপনাকে অবশিষ্ট অর্থ অবশ্যই ব্যাংক চেকের মাধ্যমে পরিশোধ করতে হবে। নগদ লেনদেনের ঝুকি এড়াতে ব্যাংক চেকের মাধ্যমে মূল্য পরিশোধের নতুন নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

Post office sanchayapatra ক্রয়কালে আপনাকে প্রথমেই ব্যাংক হিসাব খুলতে হবে। যদিও ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত সঞ্চয়পত্র ক্রয়কালে সরাসরি নগদ টাকায়ই ডাকঘর সঞ্চয়পত্র ক্রয় করা যাবে। ব্যাংক হিসাব ছাড়াও প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট জমা দিতে হবে।

পরিবার সঞ্চয়পত্র / এটি মহিলার ক্রয় করতে পারে। তবে ৬৫ বছরের উর্ধ্ব বয়সী পুরুষও এটি ক্রয় করতে পারবেন।

এক লাখ টাকা পরিবার সঞ্চয়পত্রে বিনিয়োগে প্রতিমাসে ৯১২ টাকা মুনাফা পাওয়া যাবে। তবে বিনিয়োগ অবশ্যই ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হতে হবে।

Post office sanchayapatra

Caption: Family Post office sanchayapatra Profit rate and Limit 2022

Post office sanchaya patra Purchase Documents

  1. সঞ্চয়পত্র ক্রেতা বা আমানতকারীর NID কার্ড বা জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি এবং দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
  2. মনোনীতি নমিনীর দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
  3. ২ লক্ষ টাকার অধিক জমা করতে হলে নগদে করা যাবেনা সেক্ষেত্রে ব্যাংক চেক এ পরিশোধ করতে হবে।
  4. চেক এ পরিশোধ করলে চেকের পাতা এবং TIN সার্টিফিকেট এর ফটোকপি।
  5. চেকের অপর পাতায় “Good for Payment” লিখে ব্যাংক কর্মকর্তার স্বাক্ষর কিংবা ব্যাংক থেকে ইনটিমেশন ফর্ম (ব্যাংক কর্মকর্তার স্বাক্ষর ও সীল সংবলিত ) জমা দিতে হবে।
  6. ক্রেতাকে বা আমানতকারীকে স্বশরীরে উপস্থিত হতে হবে।

ডাকঘর বা পোস্ট অফিস থেকে সঞ্চয়পত্র ক্রয় করলেও মুনাফা কি ব্যাংক হিসাবে জমা হবে?

না – আপনি ফরম পূরণ করে ডাকঘর সঞ্চয়পত্র কিনলে আপনার প্রতিমাসের মুনাফা ম্যানুয়ালি তুলতে হবে। ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত প্রতিমাসের লাখ প্রতি ৯১২ টাকা মুনাফা আপনাকে স্বশরীরে গিয়ে ডাকঘর সঞ্চয়পত্র বই ব্যবহার করে তুলতে হবে। প্রতিমাস বা ৬ মাস বা এক বছর পর পরও অর্থ উত্তোলন করা যাবে। সঞ্চয়পত্রে ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগে টিন সার্টিফিকেট লাগবে না।

প্রশ্নোত্তর:

প্রশ্ন: ডাকঘর হতে সঞ্চয়পত্র কিনলে সেটি কোন কোন মার যেতে পারে?

উত্তর: না ডাকঘর একটি সরকারী প্রতিষ্ঠান। দেশ দেওলিয়া না হলে মার যাবে না। তাছাড়া জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর কর্তৃক অর্থ সঞ্চিত থাকে বলে এ অর্থ হারিয়ে বা বাজেয়াপ্ত বা নষ্ট হওয়ার সুযোগ নেই।

প্রশ্ন: সঞ্চয়পত্র ব্যাংক থেকে কিনবো নাকি ডাকঘর থেকে কিনবো, কোনটি ভাল?

উত্তর: ব্যাংক হতে সঞ্চয়পত্র কিনলে খুব সহজেই মুনাফা ব্যাংক হিসেবে জমা হয় এবং মেয়াদ শেষে মূল অর্থ জমা হয় তাই অটো ফেরত আসে। সঞ্চয়পত্র ডাকঘর থেকে ব্যাংক থেকে ক্রয় করাই উত্তম। ডাকঘর বা ব্যাংক যেখানে থেকেই সঞ্চয়পত্র ক্রয় করা হোক না কেন এরা শুধু বিক্রয় কেন্দ্র মাত্র। সঞ্চয়কৃত অর্থ জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তরেই সংরক্ষিত থাকে এবং সরকারি কাজে এ অর্থ ব্যয় করা হয়। Sanchayapatra Form 2022 । সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের আবেদন ফরম

(Visited 2,707 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *