বিকাশে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম, মোবাইলে ট্রেনের টিকিট কাটার নিয়ম, ট্রেনের টিকিট কাটার অ্যাপস, ট্রেনের টিকিট কতদিন আগে কাটা যায়, টিকেট বুকিং, ট্রেনের অগ্রিম টিকেট, ট্রেনের অগ্রিম টিকিট অনলাইন, ট্রেনের টিকিট কাউন্টার,

বিকাশে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম ২০২৪ । ঘরে বসে ঈদ যাত্রার ট্রেনের টিকিট কাটুন

অনলাইনে কিন্তু আপনি ট্রেনের টিকিট কেটে নিতে পারেন – ট্রেন টিকিট কাটতে আপনার মোবাইল বা কম্পিউটার ব্যবহার করুন – বিকাশে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম ২০২৪

ট্রেনের টিকেটের পেমেন্ট করুন বিকাশে – বাংলাদেশ রেলওয়ের টার্মস অ্যান্ড কন্ডিশনে (শর্তাবলী) অ্যাগ্রি করতেই চলে আসবে পেমেন্ট অপশন। যেখানে ইউজার বিকাশ অ্যাকাউন্ট দিলেই পাওয়া যাবে একটি ছয় সংখ্যার ভেরিফিকেশন কোড। কোডটি লিখে বিকাশ পিন নম্বর দিয়ে কনফার্ম করলেই হয়ে যাবে টিকিট কাটা।

প্রথমে www.eticket.railway.gov.bd ওয়েব সাইটে প্রবেশ করতে হবে। “Log in” এর প্যানেল ই-মেইল ঠিকানা, পাসওয়ার্ড এবং সিকিউরিটি কোড পূরণ করতঃ “Log in” বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর যে Pageটি আসবে তাতে “Purchase ticket” বাটনে ক্লিক করতে হবে। ই-টিকেটিং সিস্টেমে টিকেট ক্রয়ের পদ্ধতি ২০২৪

আপনি যে কারও নামেও টিকিট কাটতে পারেন। আপনি বৈধ টিকিট ব্যবহার করে সন্ধার টিকিটে মাঝ রাতেও ভ্রমণ করতে পারবেন এক্ষেত্রে ছোট খাট যাত্রার জন্য। যদিও রেল মন্ত্রণালয়ের কড়া নির্দেশ যে যারা টিকিট তাকেই  এবং তার মোবাইল ও এনআইডি দিয়েই কাটতে হবে। তাই নিজের নামে নিজের টিকিট কেটে ভ্রমণ করাই শ্রেয়। ট্রেন টিকিট অনলাইনে ক্রয়ের নিয়ম ২০২৩ । ঈদ যাত্রীদের প্রতি নির্দেশনা ও শর্তাবলী দেখে নিন

১২-১৮ বছর বয়সী যাত্রীগণ জন্মনিবন্ধন নম্বর প্রদান ও জন্মনিবন্ধন সনদ আপলোড করার মাধ্যমে নিবন্ধন সম্পন্ন করবেন। সফলভাবে এনআইডি/পাসপোর্ট/জন্মনিবন্ধন যাচাই পূর্বক নিবন্ধন ব্যতীত কোনো যাত্রী আন্তঃনগর ট্রেনের টিকেট ক্রয় করতে পারবেন না। স্ট্যান্ডিং যাত্রীদের ক্ষেত্রেও রেজিস্ট্রেশন বাধ্যতামূলক।
একজন যাত্রী সর্বোচ্চ চারটি টিকিট ক্রয় করতে পারবেন। তবে অনলাইনে টিকিট ক্রয়ের সময় সহযাত্রীদের নাম ও জাতীয় পরিচয়পত্র/জন্ম নিবন্ধন নম্বর লিপিবদ্ধ করতে হবে।

অনলাইনে বা ইন্টারনেটে টিকিট কেটে ট্রেন ভ্রমণ করুন / নিরাপদ ভ্রমণের জন্য ট্রেনের চেয়ে উত্তম কিছু হতে পারে না। যদিও আমাদের দেশের ট্রেন টাইম টেবিল মানে না।

Purchase your train ticket by bkash payment

বিকাশে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম ২০২২ । ঘরে বসে ট্রেনের টিকিট কাটুন

Caption: Choice your seat in available train.

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটুন । ঘরে বা রাস্তায় চলমান অবস্থায় টিকিট কেটে নিতে পারেন।

  1. প্রথমে www.eticket.railway.gov.bd ওয়েব সাইটে প্রবেশ করতে হবে।
  2. “Log in” এর প্যানেল ই-মেইল ঠিকানা, পাসওয়ার্ড এবং সিকিউরিটি কোড পূরণ করতঃ “Log in” বাটনে ক্লিক করতে হবে। এনআইডি দিয়ে ভেরিফাই করে নিতে হবে।
  3. এরপর যে Pageটি আসবে তাতে “Purchase ticket” বাটনে ক্লিক করতে হবে।
  4. এখানে যে Pageটি আসবে সে Page এ আপনার চাহিত ভ্রমণ তারিখ, প্রারম্ভিক স্টেশন, গন্তব্য স্টেশন, ট্রেনের নাম, শ্রেনী, টিকেট সংখ্যা যেভাবে রয়েছে তা পূরণ করতে হবে।
  5. এর পরের পেইজে “Registration Seat Available” দ্বারা চাহিত টিকেট এবং এর মূল্যমান জানিয়ে দেয়া হবে। টিকেট থাকলে “Purchase ticket” বাটন ক্লিক করতে হবে।
  6. ক্রেডিট কার্ড, ক্যাশ কার্ড কিংবা ব্রাক ব্যাংকের একাউন্ট মারফত যাত্রির জমাকৃত টাকা থেকে টিকেট মূল্য কেটে নেয়া হবে এবং যাত্রীর ই-মেইলে ই-টিকেটটি পাঠিয়ে টিকেট নিশ্চিত করা হয়ে থাকে।
  7. ই-মেইল মেসেজ বক্স থেকে প্রেরিত টিকেটটির প্রিন্ট নিয়ে ফটো আইডিসহ ই-টিকেট প্রদত্ত “Ticket Print Information” প্রদান করে সংশ্লিষ্ট সোর্স ষ্টেশন থেকে যাত্রার পূর্বে ছাপানো টিকেট সংগ্রহ করতে হবে।

ট্রেনের টিকিট নাকি অনলাইনে পাওয়া যায় না?

অবশ্যই পাওয়া যায় –অনলাইনে টিকিট কেটে যাত্রার সময় কাউন্টার থেকে অবশ্যই মূল টিকিট সংগ্রহ করবেন। অনলাইনে কতটি সিট বিক্রি হয়েছে এবং কতটি সিট সহজলভ্য রয়েছে তা দেখা যায়। তাছাড়া সরকারি এখন ট্রেনের টিকিট কালো বাজারি রোধে বেশ কিছু ব্যবস্থা নেয়ার ফলে ট্রেনের টিকিট অনলাইনে পাওয়া সহজ হয়েছে। টিকিট যার ভ্রমণ তার নীতিকে রেলওয়ে অনুসরণ করছে তাই অন্যের টিকিটে ভ্রমণ করবেন না অন্যথায় জরিমানা গুণতে হবে।

বি:দ্র: সার্ভার সমস্যার কারণে আপনাকে বার বার ট্রাই করতে হবে। সার্ভার আপ হয়েছে কিনা খেয়াল করে Purchase করতে হবে।

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার ভিডিও দেখে নিন……

ই-টিকেটিং সিস্টেমে টিকেট ক্রয়ের পদ্ধতি ২০২২

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *