উপবৃত্তির খবর ২০২৪ । মোবাইল ব্যাংকিং বিকাশে কি সরকারি উপবৃত্তি বিতরণ বন্ধ হয়েছে

বাংলাদেশ সরকার উপবৃত্তি বছরে ৪ বার প্রদান করে থাকে- কোন ক্ষেত্রে ৬ মাস অন্তর অর্থাৎ বছরে দুইবার উপবৃত্তি বিতরণ করা হয়ে থাকে– উপবৃত্তির খবর ২০২৪

উপবৃত্তির কি আরেক কিস্তি দিবে?  – একই মাসে বা একই সাথে একাধিক কিস্তি বিতরণ হয় না। যারা মনে করছেন যে আমার উপবৃত্তি কম এসেছে অবশিষ্ট অর্থ আমরা দ্বিতীয় কিস্তিতে এখনই পাবো কিনা। আপনি আগে জেনে নিন কোন ক্লাশে উপবৃত্তি কত। আপনার উপবৃত্তির পরিমানের সাথে নিচের দেওয়া উপবৃত্তির পরিমান তালিকা মিলিয়ে নিন এবং বুঝে নিন আপনার উপবৃত্তি। উপবৃত্তি কম পেয়ে থাকলে আপনি হেল্প লাইনে ইমেইল করুন।

নগদ একাউন্ট ছাড়া নাকি টাকা পাওয়া যাবে না? বাংলাদেশ সরকার সকল উপবৃত্তির একাউন্ট নগদ করার জন্য নির্দেশনা জারি করেছে। তবে বিকাশ এবং ব্যাংক একাউন্টেও সরকার উপবৃত্তি বিতরণ করছে। এ বছরও বিকাশ ও ব্যাংক একাউন্টে উপবৃত্তির টাকা ঢুকছে। তাই এটি বলা ঠিক হবে না যে, আপনার নগদ একাউন্ট নাই মাসে আপনি উপবৃত্তি পাবেন না।

যারা উপবৃত্তির টাকা পাননি তারা পাবে না? হ্যাঁ পাবেন, স্কুল কলেজ সমূহ নির্ধারিত সময়ে বিতরণ শুরু করতে চাহিদা সংক্রান্ত কার্যাদি সম্পন্নকরণের জন্য PESP MIS Software উন্মুক্ত করা হয়েছে। উক্ত সময়ের সুবিধাভোগী শিক্ষার্থীদের অনুকূলে উপবৃত্তির চাহিদা প্রস্তুত, সংরক্ষণ, যাচাই-বাছাই ও অনুমোদন হয়ে বিতরণ শুরু হয়েছে। যাদের উপবৃত্তি বাউন্সব্যাক করেছে। তাদের গুলো পুনরায় ট্রান্সমিট করা হবে তাই অপেক্ষা করুন। উপবৃত্তি যেহেতু একই সময়ে বিপুল সংখ্যক অভিভাবকের ব্যাংক হিসাব বা মোবাইল ব্যাংকিং এ প্রেরণ করা হয় তাই আপনাকে অবশ্যই ধৈর্য্য ধরে অপেক্ষা করতে হবে। বিচলিত না হয়ে অপেক্ষা করবেন। উপবৃত্তি সংক্রান্ত আপডেট এই সাইটে প্রকাশ করা হবে।

উপবৃত্তির বিতরণ কার্যক্রম ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে এটি শুরু হয়।

যারা উপবৃত্তি এখনও পাননি তারা অপেক্ষা করুন। উপবৃত্তি ক্রমান্বয়ে ছাড় করা হচ্ছে।

উপবৃত্তির খবর ২০২৪ । মোবাইল ব্যাংকিং বিকাশে কি সরকারি উপবৃত্তি বিতরণ বন্ধ হয়েছে

Caption: bkash upobritti message

সরকারি উপবৃত্তির পরিমান ২০২৪ । আপনার কি মনে হচ্ছে যে, আপনি উপবৃত্তি কম পেয়েছেন?

  1. ষষ্ঠ ও সপ্তম শ্রেণির প্রত্যেক শিক্ষার্থী ১ হাজার ২০০ টাকা।
  2. অষ্টম শ্রেণির প্রত্যেক শিক্ষার্থী ১ হাজার ৫০০ টাকা।
  3. নবম ও দশম শ্রেণির প্রত্যেক শিক্ষার্থী ১ হাজার ৮০০ টাকা।
  4. দ্বাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের প্রত্যেক শিক্ষার্থী ৩ হাজার ৯০০ এবং অন্যান্য বিভাগের শিক্ষার্থীরা ৩ হাজার ৬০০ টাকা করে পাবে।
  5. একাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা পাবেন ৩ হাজার ৯০০ টাকা করে। অন্যান্য বিভাগের প্রত্যেক শিক্ষার্থী পাবেন ৩ হাজার ৪০০ টাকা

উপবৃত্তি অর্থ উত্তোলনে অভিযোগ কোথায় দাখিল করবো?

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি আগামীকাল হতেই মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে প্রদান করা হবে। সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীদের অভিভাবকের অ্যাকাউন্টে উপবৃত্তির অর্থ দেয়া হবে। এ অর্থ উত্তোলনের জন্য শিক্ষার্থী বা অভিভাবকদের আলাদা কোনো ফি দিতে হবে না। এক্ষেত্রে কেউ ফি দাবি করলে hsp.sstipend@gmail.com মেইলে লিখিত অভিযোগ জানাতে বলা হয়েছে। আপনি উপবৃত্তি কম পেলেও উক্ত ঠিকানায় ইমেইল করতে পারবেন এবং অভিযোগ জানাতে পারেন।

তথ্য ঘাটতির কারণেই কি উপবৃত্তি পেতে বিলম্ব বা বাতিল হয়? হ্যাঁ হয়। ৬ষ্ঠ (মাদ্রাসাসহ) শ্রেণি- ২০০×৬=১২০০/- (প্রতি শিক্ষার্থী) টাকা। ৭ম (মাদ্রাসাসহ) শ্রেণি- ২০০×৬=১২০০/- (প্রতি শিক্ষার্থী) টাকা প্রদান করা হয়। ৮ম (জুনিয়র দাখিলসহ) শ্রেণি- ২৫০×৬=১৫০০/- (প্রতি শিক্ষার্থী) টাকা। ৯ম (মাদ্রাসাসহ) শ্রেণি- ৩০০×৬=১৮০০/- (প্রতি শিক্ষার্থী) টাকা। ১০ম (দাখিলসহ) শ্রেণি- ৩০০×৬=১৮০০+১০০০ (পরীক্ষার ফি বাবদ)= ২৮০০/- (প্রতি শিক্ষার্থী) টাকা। ১২শ (আলিম ২য় বর্ষসহ) শ্রেণি- ৪০০×৬=২৪০০/- (প্রতি শিক্ষার্থী) টাকা।

উপবৃত্তির অর্থ বিতরণ আপডেট ২০২৪ । উপবৃত্তির অর্থ হতে নির্ধারিত ক্যাশআউট চার্জ কর্তন হবে না

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *