ইভ্যালিসহ ই-কমার্স বিজনেস-কে আইন মেনে ব্যবসায়ের সুযোগ!

পত্রিকার নিউজগুলো এবং ফেসবুক পোস্টগুলো বলে দিচ্ছিল যে, ই-কমার্স বিজনেস হয়তো বাংলাদেশে আর টিকে থাকতে পারবে না। ইভ্যালি সহ অন্যান্য ই-কমার্সের সময় হয়তো ঘনিয়ে এসেছে। আজই বানিজ্য মন্ত্রণালয়ের মিটিং এ হয়তো ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত নিয়া হবে কিন্তু না পজেটিভ আলোচনা হওয়ায় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোকে দায় পরিশোধের সুযোগ দেয়া হয়েছে এবং বিজনেস প্ল্যান বর্ণনা করে ব্যবসা চালিয়ে যেতে সুযোগ দেয়া হয়েছে। সভায় যে সমস্ত সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

১। ইভ্যালিকে এই বড় দায় পরিশোধের ব্যবসায়িক ব্যাখ্যা দিতে হবে নবগঠিতব্য কমিটির কাছে।

২। ই কমার্স নীতিমালা ২০২১ মেনে তাদের ব্যবসা চালিয়ে যেতে হবে।

৩। বানিজ্য মন্ত্রনালয় হতে বিজনেস আইডেন্টিফিকেশন নম্বর সকল ই কমার্স প্রতিষ্ঠানকে গ্রহণ করতে হবে ।

৪। বাংলাদেশ ব্যাংকের গেইটওয়ে ব্যবহার করে লেনদেন করতে হবে, গ্রাহক পন্য বুঝে পেলেই অর্থ ছাড় হবে।

৫। প্রতিযোগিতা পূর্ণ পরিবেশ তৈরি করতে হবে, গ্রাহকের স্বার্থ মেনেই।

৭। সর্বপরি গ্রাহকের অভিযোগ কেন্দ্র গঠন করা হবে, যেখানে গ্রাহকের অভিযোগ যাচাইয়ের সুযোগ থাকবে।

উপরোক্ত সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে ২-৩ মাস সময় লাগতে পারে, তবে গ্রাহক স্বার্থ রক্ষা করে যে সকল ইকমার্স ব্যবসা করবে তারা টিকে থাকবে। অন্যথায় যারা গ্রাহক স্বার্থ ক্ষুন্ন করবে তাদের ব্যবসা বন্ধ করে দেওয়া হবে।

(Visited 86 times, 1 visits today)

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *