উপবৃত্তির অর্থ বিতরণ ২০২৩ । ইতোমধ্যে মোবাইলে টাকা পাঠানো শুরু হয়েছে

উপবৃত্তির অর্থ বিতরণ ২০২৩ । ইতোমধ্যে মোবাইলে টাকা পাঠানো শুরু হয়েছে

উপবৃত্তির টাকা প্রতি ৬ মাস পর পর প্রেরণ করা হয় – এখনও টাকা না পেয়ে থাকলে অপেক্ষা করুন –উপবৃত্তির অর্থ বিতরণ ২০২৩

উপৃবৃত্তির টাকা কখন পাবো?– উপবৃত্তির অর্থ বিতরণ ২০২৩ চাহিদা অনুমোদন হওয়া সত্ত্বেও এখনো যে সকল বেনিফিসিয়ারিদের হিসাবে টাকা যায়নি তাদের টাকা পেতে একটু অপেক্ষা করতে হবে। পর্যায়ক্রমে ২ (দুই) সপ্তাহের মধ্যে টাকা যাবে তাই এ বিষয়ে চিন্তার কারণ নেই। সব টাকা আইবাস কর্তৃক ছাড় হয়েছে যাথাযথ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ৯৩ লক্ষ শিক্ষার্থীর অভিভাবক বা বেনিফিসিয়ারির মোবাইল বা ব্যাংক হিসাবে টাকা পর্যায়ক্রমে যাবে। টেনশন না করে ধৈর্য্য ধরে অপেক্ষা করুন।

নগদ বা বিকাশে উপবৃত্তি? হ্যাঁ প্রাথমিক পর্যায়ের উপবৃত্তি বিতরণের দায়িত্ব নগদ/বিকাশ-এর কাছে আসার পর থেকেই বদলে গেছে স্কুলগুলোর চেহারা। অভিভাবকের নগদ/বিকাশ অ্যাকাউন্টে সরাসরি উপবৃত্তির অর্থ পৌঁছে যাওয়ার কারণে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি বেড়েছে। সঠিকভাবে ও নিরাপদে উপবৃত্তি বিতরণের জন্য নগদ/বিকাশ বড় একটি ভূমিকা পালন করছে তাই আপনার নগদ বা বিকাশ হিসাবের পিন বা পাসওয়ার্ড তথ্য কারও নিকট দিবেন না।

সরকার টু উপকারভোগী? হ্যাঁ। বর্তমানে শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির অর্থ G2P (সরকার থেকে ‍উপকারভোগী) পদ্ধতিতে বিতরণ করা হয় সেহেতু কারিগরি কার্যক্রম এবং উপবৃত্তি বিতরণের সার্বিক প্রস্তুত গ্রহণের কর্মপরিধি আপনার ধারনার চেয়ে বেশি বড়। তাই কেউ অধৈর্য হবেন না অচিরেই আপনিও টাকা পেয়ে যাবেন। কিছু ক্ষেত্রে ট্রান্সমিট বাউন্স ব্যাক করে সেগুলোর তথ্য সংগ্রহ করে পুনরায় অর্থ প্রেরন করে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

যারা পায়নি তার কি আর পাবেই না? / বাদ পড়া উপবৃত্তির তালিকা তৈরি হবে এবং তাদের মোবাইলে পুনরায় প্রেরণ করা হবে। 

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি প্রদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

এখনও টাকা না পেয়ে থাকলে অপেক্ষা করুন।

উপবৃত্তির পরিমাণ ২০২৩ । ৬ মাস পর পর কত টাকা পাওয়া যায়?

  1. এখন প্রাক্-প্রাথমিকের প্রতি শিক্ষার্থীকে মাসিক ৭৫ টাকা করে উপবৃত্তি দেবে সরকার। প্রতি ছয় মাস অন্তর ৪৫০ টাকা।
  2. প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ুয়া একজন শিক্ষার্থী মাসিক ১৫০ টাকা এবং এক পরিবারে দুজন শিক্ষার্থী থাকলে দুজন মিলে পাবে ৩০০ টাকা। ১৫০ টাকা হারে ৬ মাস অন্তর ৯০০ টাকা।
  3. এ ছাড়া কোনো পরিবারে ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া একজন শিক্ষার্থী থাকলে উপবৃত্তি পাবে মাসে ২০০ টাকা। ২০০ টাকা হারে ৬ মাস অন্তর ১২০০ টাকা।

মোবাইলে টাকা আসতে এত দেরী হয় কেন?

পাশের বাসার কেউ হয় উপবৃত্তির টাকা পেয়েছেন কিন্তু আপনি পাননি। প্রথমে বলতে চাই উপবৃত্তি বিতরণ কার্যক্রম সময় সাপেক্ষ বিষয় তাই কেউ ধৈর্য হারাবেন না। আপনারা জানেন সরকার কর্তৃক প্রতি ৬ মাস পর পর গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষাখাতে সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে উপবৃত্তির অর্থ বিতরণ করা হয়। একই সাথে শিক্ষার্থীদের মাসিক বেতন বা টিউশন ফি বাবদ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে টিউশন ফি’র অর্থ বিতরণ করা হয়।