সার্টিফাইড দলিল

ঘরে বসেই ভূমি সার্টিফায়েড দলিলাদি পাবেন।

ঘরে বসেই ভূমির সার্টিফায়েড দলিলাদি পাবেন ভূমিসেবা গ্রহীতাগণ। ভূমি মন্ত্রণালয় ও ডাক বিভাগের মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে আজ মঙ্গলবার, ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১। পর্চা, খতিয়ান, সার্টিফিকেট বা ম্যাপের মত ভূমি সম্পর্কিত বিভিন্ন প্রামাণ্য দলিলাদি (সার্টিফায়েড ডকুমেন্ট) ভূমিসেবা গ্রহীতা নাগরিকদের বাসায় পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে ভূমি মন্ত্রণালয়।

আজ মঙ্গলবার ভূমি মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে ভূমি মন্ত্রণালয় এবং ‘ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ’র আওতাভুক্ত ডাক বিভাগের মধ্যে এ বিষয়ে একটি সমঝোতা স্মারক সাক্ষর হয়। এ সমঝোতার ফলে ডিজিটাল বাংলাদেশ থেকে উদ্ভাবনী বাংলাদেশের পথে উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় নাগরিক সেবার জগতে নতুন যুগের সূচনা হয়েছে।

সমঝোতা স্মারক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, পিএএ এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন ডাক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোঃ সিরাজ উদ্দিন। ভূমি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব প্রদীপ কুমার দাস ও ডাক বিভাগের অতিরিক্ত মহাপরিচালক এস এম শাহাব উদ্দীন নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন।

এই সমঝোতার আওতায় ভূমি অফিসসমূহ থেকে সার্টিফিকেটসমূহ সংগ্রহ করে নাগরিকদের ঠিকানায় ডাকযোগে পৌঁছে দিবে ডাক বিভাগ। প্রতিটি ডাকঘরের নিযুক্ত ব্যক্তি প্রতিদিন নিকটস্থ ভূমি অফিস থেকে সার্টিফিকেটসমূহ সংগ্রহ করে নাগরিকগণের ঠিকানা বরাবর ডাকে প্রেরণ করবেন। এ সেবার জন্য অনলাইনে আবেদনের সময়েই নাগরিকগণ অনুরোধ জানাতে পারবেন এবং খাম, প্রস্তুতি ও ডাকমাশুল বাবদ অতিরিক্ত সেবামূল্য পরিশোধ করবেন।

ভূমির মালিক হিসাবে বিভিন্ন প্রয়োজনে বাংলাদেশের নাগরিকগণ ভূমি সংক্রান্ত সকল আবেদন ও তার ভিত্তিতে ডকুমেন্ট এবং ম্যাপ সংগ্রহ করে থাকেন। এতদিন পর্যন্ত এ ধরনের প্রয়োজন নিরসনের জন্য নাগরিকগণকে ভূমি অফিসসমূহে একাধিকবার যাওয়ার প্রয়োজন পড়তো। ডিজিটাল ভূমি সেবার আওতায় নাগরিকগণের জন্য অনলাইন তথা ওয়েব, এপ বা কল সেন্টার এর মাধ্যমে আবেদন করার সুযোগ সৃষ্টি করা গেলেও প্রাপ্য পর্চা, খতিয়ান, সার্টিফিকেট বা ম্যাপ সংগ্রহের জন্য ভূমি অফিসে যাওয়ার কোন বিকল্প ছিলো না – এখন এসব সংগ্রহের জন্য আর ভূমি অফিসে যাওয়া লাগবেনা।

উল্লেখ্য, নন-সার্টিফায়েড ডকুমেন্টসমূহও আরও সহজে ও দ্রুততর সময়ে নাগরিকগণ বাড়িতে বসেই ডাকযোগে সংগ্রহ করতে পারবেন।

সমঝোতা স্মারক অনুষ্ঠানে ভূমি মন্ত্রণালয় ও ডাক অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। //মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল ভূমি মন্ত্রণালয়ের সেবা ও স্থাপনা উদ্বোধন করবেন// আগামীকাল ৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ তারিখ সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অংশ নিয়ে ভূমি ভবন, উপজেলা ও ইউনিয়ন ভূমি অফিস ভবন, অনলাইন ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ কার্যক্রম এবং ভূমি তথ্য ব্যাংক-এর শুভ উদ্বোধন করার সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন। রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে (ভিডিও কনফারেন্সের অপর প্রান্ত) ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী সহ অন্যান্য আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন।

বিটিভি ও বাংলাদেশ বেতারসহ দেশের প্রধান প্রধান টেলিভিশন চ্যানেল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি সরাসরি প্রচার করবে। এছাড়া, ভূমি মন্ত্রণালয়ের ভেরিফাইয়েড ফেসবুক পেজেও (www.facebook.com/minland.gov.bd) অনুষ্ঠানটি লাইভ স্ট্রিমিং হবে।

(Visited 423 times, 1 visits today)

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *