নিয়মবহির্ভূত ভাবে কোনো ব্যক্তি ভোটার হয়েছেন । এমন ক্ষেত্রে আপনার করনীয় কি?

নিয়মবহির্ভূত ভাবে কোনো ব্যক্তি ভোটার হয়েছেন । এমন ক্ষেত্রে আপনার করনীয় কি?

আপনার বা পরিচিত কারও ভোটার তথ্যে ভুল হয়েছে বা অন্য কারও তথ্য এসে গেছে তা হলেও নির্বাচন কমিশনে তথ্য দিন –নিয়মবহির্ভূত ভাবে কোনো ব্যক্তি ভোটার হয়েছেন

মনে করেন, ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসূচি- ২০২২ এ আপনার জানামতে নিয়মবহির্ভূত ভাবে আপনার এলাকায় এমন কোনো ব্যক্তি ভোটার হয়েছেন যিনি আসলে প্রকৃতপক্ষে মায়ানমারের নাগরিক; অথবা কোনো ব্যক্তি যে নাম,পিতার নাম, মাতার নাম দিয়ে ভোটার হয়েছেন সেই তথ্যগুলো আসলে সঠিক নয়।

এমন ক্ষেত্রে আপনার করনীয় কি? ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ পর্যন্ত দেশব্যাপী চলমান রিভাইজিং অথরিটির কার্যক্রমে আপনি উক্ত ভোটারদের বিরুদ্ধে আপত্তি দিতে পারেন। এ জন্য উপযুক্ত তথ্যপ্রমাণ সহ ফরম-৭ পূরন করে সংস্লিষ্ট উপজেলা নির্বাচন অফিসে আপনাকে জমা দিতে হবে। আপনার আপত্তি পাওয়ার পরে যাচাই-বাছাই করে এবং শুনানি করে উক্ত ভোটারের অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হবে। খসড়া তালিকায় ভুল তথ্য থাকলে করণীয় ২০২৩ । নতুন ভোটার তথ্য সংশোধন ফরম- ৮ ডাউনলোড

নতুন ভোটারগণ আইডি কার্ড কবে পাবেন? এ যারা ভোটার হিসাবে নিবন্ধিত হয়ে NID কার্ড পাচ্ছেন, তাদের ভিতর যাদের জন্মতারিখ ০১-০১-২০০৫ পর্যন্ত, তাদের খসড়া ভোটার তালিকা ২০২৩ সালের জানুয়ারি মাসে ইতোমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে। উক্ত খসড়া ভোটার তালিকায় নাম আছে এমন কারো কোনো তথ্যে ভুল থাকলে তিনি ২০২৩ সালের জানুয়ারি মাসে বিনা খরচে বা ফ্রিতে তথ্য সংশোধন করে দেওয়া হবে। এজন্য তার NID তথ্যের ভু সংশোধনের জন্য নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হবে।

তথ্য প্রদানে ৪ পৃষ্ঠার ফরম পূরণ করুন / তথ্য সংশোধনে সহায়তা করুন

খসড়া সংশোধন করে আগামী মার্চ মাসেই চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে

ফরম-৭ ডাউনলোড PDF

ভোটার তথ্য হালনাগাদে তথ্য প্রদান ফরম ৭ । কি কি তথ্য দিতে হবে

  1. যাহার বিরুদ্ধে আপত্তি তাহার তথ্য যেমন ভোটার নম্বর, নাম এলাকা।
  2. আপত্তিকারীর তথ্য- নাম, মোবাইল নম্বর জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর ইত্যাদি।
  3. আপত্তিকারী কর্তৃক দ্বিতীয় অংশ পূরণ করতে হবে।
  4. আপত্তি সম্পোর্ক নোটিশ জারীর প্রত্যয়ন পত্র।
  5. আপত্তিকারীর প্রতি নোটিশ ফরম পূরণ।

নতুন ভোটার হয়েছেন তাতে ভুল আসছে?

গত বছরই শেষ হল ভোটার হালনাগাদ কার্যক্রম এখন নতুন ভোটারের খসড়া তালিকা প্রকাশি হয়েছে। তাই দেরি না করে যদি কোন রক্ষণ বা শব্দের ভুল থাকে তবে যত তারাতারি সম্ভব ফরম পূরণ করে জমা দিতে হবে। উপরোক্ত ফরম পূরণ করে যে আগে জমা দিবেন তার তথ্য আগে সংশোধন হবে। আগামী ২রা মার্চ ২০২৩ চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ হওয়ার পূর্বেই তথ্য সংশোধন করে নিতে হবে অন্যথায় স্মার্ট কার্ডে তথ্য ভুল আসবে এবং তথ্য আপনাকে নিজ খরচায় তথ্য সংশোধন করতে হবে। সকল ফরম এখানে দেখুন

সূত্র: সৌমেন বিশ্বাস ছন্দ

খসড়া তালিকায় ভুল তথ্য থাকলে করণীয় ২০২৩ । নতুন ভোটার তথ্য সংশোধন ফরম- ৮ ডাউনলোড

(Visited 62 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *