পাসপোর্ট ও জন্ম সনদে ভুল থাকলে করণীয় ২০২৩ । জন্ম নিবন্ধন নাম কমপক্ষে ২ শব্দ বিশিষ্ট হতে হবে কেন?

এক শব্দের নাম দিয়েও পাসপোর্ট করা যায়-তবে বিদেশে অনেক সার্ভিস নিতে ঝামেলা এড়াতে সেটি ২ শব্দ করার জন্য নির্দেশনা জারি করা হয়েছে – পাসপোর্ট ও জন্ম সনদে ভুল থাকলে করণীয় ২০২৩

নাম দুই শব্দ বিশিষ্ট মানে কি? – জন্ম নিবন্ধন ব্যক্তির প্রথম ও প্রাথমিক নিবন্ধন। জন্ম নিবন্ধন সনদ ব্যক্তির ও ব্যক্তির পিতা মাতার পরিচয় বহন করে। এ নিবন্ধনের উপর ভিত্তি করে ব্যক্তি জীবনের পরবর্তী সকল নিবন্ধন হয়ে থাকে। কিন্তু এক্ষেত্রে অনেকে অসাবধানবশত করে বা অজ্ঞাতে শুধু ডাক নাম বা এক শব্দ বিশিষ্ট নাম উল্লেখ করে জন্ম নিবন্ধন করে যেমন: সখিনা, রশিদ। সখিনা বা রশিদের আগে বা পরে আরও একটি অংশ থাকতে হবে যেমন: সখিনা বেগম, রশিদ শিকদার।

একশব্দ নাম দিয়ে কি পাসপোর্ট করা যায় না? যায়। তবে এরকম নিবন্ধন দ্বারা পাসপোর্ট তৈরিসহ অনেক ক্ষেত্রে বিদেশে বিভিন্ন সেবা গ্রহণে সমস্যার সৃষ্টি হয়। এর নিরসনকল্পে ব্যক্তির নাম ন্যূনতম দুই শব্দ বিশিষ্ট হওয়া দরকার। নাম দুই শব্দ বিশিষ্ট যেমন, সখিনা বেগম বা সখিনা খাতুন, আব্দুর রশিদ বা মো: আব্দুর রশিদ সরকার এভাবে লিখতে হবে। ইহার অনুসরণ বা কার্যকরে তাঁর নিয়ন্ত্রনাধীন সকল নিবন্ধন অফিস-কে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

নাম যদি চার শব্দের হয়? পাসপোর্টে আপনি দুটো দুটো করে Given Name আর Surname দিতে পারবেন অর্থাৎ আপনার নাম ৪ শব্দের হলে দুটো দুটো করে দিবেন৷ এতে কোনো সমস্যা নেই। ই-পাসপোর্ট কিংবা মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট দুটোর ক্ষেত্রেই একই। এ ক্ষেত্রে আপনার মূল নাম ঠিক থাকবে বা থাকতেই হবে এবং কোন পরিবর্তন করা যাবে না। ধরুন আপনার নাম Mohammad Shahriar Salman Khan. এবং আপনার NID কার্ডে এই একই নাম দেয়া (বাধ্যতামূলক ভাবে NID এবং পাসপোর্ট এর নাম মিল থাকতে হবে)।

পাসপোর্ট করলে কি জন্ম সনদ লাগে? / জন্ম সনদ নম্বর দিতে হয় তাছাড়া যাদের এনআইডি’র বয়স হয়নি তাদের জন্ম সনদ দিয়েই পাসপোর্ট করতে হয়

পাসপোর্টে নাম সংশোধনে কি এফিডেফিট করতে হয়? প্রথম শ্রেনীর ম্যাজিস্ট্রেট এর মাধ্যমে পাসপোর্টে আপনার নামের বানান কি ভুল আছে তা উল্লেখ করে এফিডেফিট করে নিবেন। এভিডেফিট করতে একজন উকিল এর মাধ্যমে আবেদন করতে হয়। ১০০ টাকা মূল্যের ৩ টি স্ট্যাম্পে আবেদন করবেন। এফিডেফিট করতে খরচ হবে ১৫০০ থেকে ২০০০ টাকা (সম্ভাব্য)।

Caption: Passport Instruction 2023

পাসপোর্ট নাম সংশোধন ডকুমেন্ট ২০২৩ । পাসপোর্ট সংশোধনের ডকুমেন্টগুলো কিভাবে সাজাবেন?

  1. পাসপোর্ট ফি বা রিইস্যু ফি জমার স্লিপ দিবেন।
  2. রিইস্যু ফরম ( অফিস থেকেও অনেক সময় অফলাইন ফরম দেয় , ওখান থেকে হাতে লিখেও জমা দেওয়া যাবে) । অনলাইনেও আবেদন করা যাবে।
  3. পাসপোর্ট আবেদনের সামারী বা বিবরণী পেইজ।
  4. পূরণকৃত পাসপোর্ট আবেদন ফরম।
  5. জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি।
  6. পূর্বের ই পাসপোর্ট বা MRP Passport এর ফটোকপি।
  7. এসএসসি বা এইচএসসি সার্টিফিকেট এর ফটোকপি ( যাদের সার্টিফিকেট নেই তারা ডিজিটাল জন্মনিবন্ধন সাথে নিয়ে যাবেন)।
  8. ইউপি কর্তৃক প্রদত্ত নাগরিক সনদ।
  9. এফিডেফিট বা ঘোষণাপত্র (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)
  10. অঙ্গীকারনামা (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)
  11. কোন কোন অফিসে তাদের নিজেদের প্রিন্ট করা অঙ্গীকারনামা থাকে অথবা অফিসে বাইরে কম্পিউটারের দোকানে থাকতে পারে) উপরে উল্লেখ করা ডকুমেন্ট গুলো পর পর সাজিয়ে নিয়ে পাসপোর্ট অফিসে জমা দিবেন। অনেক সময় এই ডকুমেন্ট ছাড়াও প্রযোজ্য ক্ষেত্রে মা, বাবা’র NID ফটোকপি এবং নতুন করে পুলিশ ভেরিফিকেশন হতে পারে।

বাংলাদেশে কোন বানানটি বেশি ভুল হয়?

বাংলাদেশের নামের বানানে সব চেয়ে বেশী যে ভুল টি হয় তা হল Md এবং Mohammad নামের অংশ নিয়েই। এখানে দেখা যায় যে, MD এর পাশে একটি ডট ব্যবহার হয় কিন্তু পাসপোর্ট এ ডট না থাকলে ভুল হিসাবে ধরা হবে। তাছাড়া যখন MRP Passport করেছে তখন জন্মনিবন্ধন দিয়ে করেছে কিন্ত বর্তমানে ই পাসপোর্ট আবেদন করতে গিয়ে NID এর সাথে পূর্বের পাসপোর্ট এর নামের বানানের পার্থক্য হয়ে গেছে। জন্মনিবন্ধন দিয়ে এম আর পি পাসপোর্ট করেছিলেন। বর্তমানে ই পাসপোর্ট করতে গিয়ে সমস্যায় পরেছে। বাংলাদেশ সরকার বিশ্বমানের ই পাসপোর্ট করতে গিয়ে সারা বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলার চেষ্টা করছে আর তাতেই পূর্বের পাসপোর্টে যে ভুল ছিল সেটা নতুন ই পাসপোর্ট করতে গিয়ে ধরা পড়ছে। শুরুতেই জন্ম নিবন্ধনে নামটি সঠিক ভাবে লিখুন। ভাল হয় ২ শব্দ ব্যবহার করা তবে বেশি শব্দও চাইলে ব্যবহার করতে পারবেন কিন্তু ১ শব্দ ব্যবহার করা যাবে না।

পাসপোর্ট তথ্য । ই-পাসপোর্ট তৈরীর এ টু জেড ২০২৩পাসপোর্ট সংশোধন ফরম ২০২৩ । পাসপোর্ট সংশোধণ করতে কি কি কাগজপত্র লাগে?
ই পাসপোর্ট ফি কত? । ই পাসপোর্টের টাকা জমা দেওয়ার নিয়ম ২০২৩Passport renewal fee। পাসপোর্ট নবায়ন ফি কত টাকা?
পাসপোর্ট সংশোধণ করার নিয়ম । দেশে ও বিদেশে পাসপোর্ট রি-ইস্যু আবেদন নিষ্পত্তিকরণ নির্দেশনা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *