ই-নথি হতে ডি-নথি মাইগ্রেশন ২০২৪ । ৪-১৪ জুলাই ই-নথির কার্যক্রম বন্ধ থাকবে কিনা জেনে নিন

ই-নথি হতে ডি-নথি মাইগ্রেশন ২০২৪ । ৪-১৪ জুলাই ই-নথির কার্যক্রম বন্ধ থাকবে কিনা জেনে নিন

বাংলাদেশ সরকার ইলেকট্রনিক নথিকে  ডিজিটাল নথিতে রূপান্তর করছে- ই নথি হতে ডি নথিতে মাইগ্রেশন চলছে- এ সময় ই নথি কার্যক্রম বন্ধ থাকবে–ই-নথি হতে ডি-নথি মাইগ্রেশন ২০২৪

কেন ই নথি হতে ডি নথি? স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের অন্যতম লক্ষ্য স্মার্ট সরকার বাস্তবায়নের জন্য ই-নথি-কে আরো গতিশীল ও আধুনিক ডি-নথি সিস্টেমে রূপান্তর করা হয়েছে। বর্ণিত লক্ষ্য বাস্তবায়নের নিমিত্ত মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনা এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সহযোগিতায় ই-নথির অফিসসমূহকে ডি-নথিতে মাইগ্রেশন করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।। আগামী ০৪ জুলাই ২০২৪ সন্ধ্যা ৬টা থেকে আগামী ১৪ জুলাই ২০২৪ সকাল ৯টা পর্যন্ত সংযুক্ত তালিকার অফিসসমূহের মাইগ্রেশন চলমান থাকবে। উক্ত সময়ে বর্ণিত অফিসের ই-নথির সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে।

অফিস মাইগ্রেশনের পূর্বে ব্যবহারকারীদেরকে পদক্ষেপগুলো কি? ই-নথি থেকে প্রস্তুতকৃত কোন খসড়া বা জারির জন্য অপেক্ষমাণ কোন পত্র রাখা যাবে না। অন্যান্য অফিস থেকে আগত কোন নোট পেন্ডিং রাখা যাবে না । মাইগ্রেশনের পর ই-নথির ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড দিয়ে ডি-নথিতে লগইন করা যাবে। মাইগ্রেশনের পর ডি-নথিতে লগইন এর জন্য URL হবে: d.nothi.gov.bd/login । মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করার জন্য গুগল প্লে-স্টোর থেকে Android ও অ্যাপ-স্টোর থেকে iOS এর জন্য আলাদা আলাদা ডি-নথি অ্যাপ (dNothi System) ডাউনলোড করে ইন্সটল করতে হবে। ডি-নথির সংক্ষিপ্ত ম্যানুয়াল অত্র পত্রের সঙ্গে সংযুক্ত করা আছে ।

প্রথম দুই সপ্তাহ কি সমস্যা হবে? নথি ব্যবহারে সাময়িক ধীর গতি হতে পারে । অন্য অফিসে নথি/পত্র প্রেরণ করা সম্ভব হচ্ছে না – এরূপ যান্ত্রিক ত্রুটি আসতে পারে । ডাক এবং নোটের সংযুক্তি ফাইলসমূহ ফাঁকা দেখাতে পারে, কিছু ক্ষেত্রে পত্র (খসড়া পত্র) সংরক্ষণ করার পর ফাঁকা দেখাতে পারে। নোট ওপেন সংক্রান্ত যান্ত্রিক ত্রুটি আসতে পারে ।নোটের অনুচ্ছেদ দেখাচ্ছে না অথবা টেবিল ভেঙ্গে যাওয়া সংক্রান্ত সমস্যা হতে পারে । ই-নথি অফিস থেকে ডি-নথি অফিসে নথি/পত্র প্রেরণের ক্ষেত্রে সমস্যা হতে পারে । ড্যাশবোর্ডে এবং এপিএ রিপোর্ট জেনারেট করলে তথ্য ভুল আসতে পারে।।

ই নথি হতে ডি নথিতে মাইগ্রেশন চলছে / ই নথি বাদ দিয়ে ডি নথিতে বাংলাদেশ

ডি নথি কি?– ডিজিটাল নথি অথাৎ সংখ্যা ভিত্তিতে অনলাইন ভিত্তিক নথি। সচিবালয় নির্দেশমালা-২০০৮ এর ৪১ (৭) নং নির্দেশনা অনুযায়ী নির্ধারিত অধিকতর সংশোধনকরতঃ নির্ধারিত ১৯ ডিজিটের ডিজিটাল নথি নম্বর এর পরিবর্তে ১৮ ডিজিটের ডিজিটাল নথি নম্বর খোলা ও কোড নম্বর বরাদ্দ প্রদান করা হয়।

ডি নথি কার্যক্রম স্থানান্তর

Caption: ডাউনলোড ডি নথি ব্যবহার সহায়িকা ২০২৪

ডি নথির ডাক আপলোড করার নিয়ম ২০২৪। যেভাবে আপনি ডি নথি ব্যবহার করবেন

  1. তাক বাটনে ক্লিক করতে হবে। বামপাশের মেন্যু থেকে ডাক আপলোড বাটনে ক্লিক করতে হবে। দাপ্তরিক তাক বাটনে ক্লিক করলে ডাক আপলোডের উইন্ডো দেখা যাবে। ব্রাউজ বাটনে ক্লিক করে কম্পিউটারে সংরক্ষিত ফাইল নির্বাচন করতে হবে এবং মূলগত্র বাছাই করতে হবে। প্রেরক বাছাই এর জন্য পরিবার পুঁদুন অপশন থেকে কর্মকর্তার নাম অথবা পদবি দিয়ে কাঙ্ক্ষিত কর্মকর্তাকে খুঁজে পাওয়া যাবে।
  2. অথবা, অফিসার শাই করুন অপশন থেকে অফিস খুঁজুন (অফিসের নাম দিয়ে) অথবা অফিস লেয়ার থেকে মন্ত্রণালয়/বিভাগ/অন্যান্য দপ্তর/সংস্থা ইত্যাদি বাছাইয়ের পর অফিস নির্বাচন করে কাঙ্ক্ষিত কর্মকর্তাকে চেক বক্সে টিক মার্ক সিলেক্ট করে নির্বাচন করতে হবে।
  3. অথবা, ই-নথি/ডি-নথি সিস্টেমে নেই এমন কাউকে প্রেরক হিসেবে বাছাই করতে তথ্য নিলে লিখুন বাটনে ক্লিক করে তার নাম, ইমেইল, পদবি, শাখা, কার্যালয় এর তথ্য লিখে নিশ্চিত করুন বাটনে ক্লিক করলে প্রেরক বাছাই হবে।
  4. তাকের বিচক্ষণ অংশে স্মারক নম্বর, স্মারকের তারিখ, প্রেরণের মাধ্যম বাছাই করা, বিষয় লিখতে হবে এবং প্রযোজ্য ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার ও গোপনীয়তা বাছাই করতে হবে। সিদ্ধান্ত দিন অংশেফিল্ট সিদ্ধান্ত দেয়া থাকবে, প্রয়োজনে সিদ্ধান্ত সম্পাদন করা যাবে।
  5. প্রাপক অংশে নতুন সিল বানান বাটনে ক্লিক করে বাম পাশ থেকে নিজ শাখা/নিজ শাখার বাইরে পদসমূহ থেকে নামের পাশের চেক বক্সে টিক চিহ্ন ক্লিক করে প্রাপক তালিকা বাছাই করতে হবে এবং সংরক্ষণ করতে হবে।
  6. প্রাপক তালিকা হতে মূল প্রাপক বাছাই করতে হবে। প্রযোজ্য ক্ষেত্রে কার্যার্থে অনুলিপি, আাতার্থে অনুলিপি ও দৃষ্টি আকর্ষণ বাছাই করতে হবে। প্রেরণ বাটনে ক্লিক করলে সরাসরি প্রাপকদের আগত ডাকে চলে যাবে অথবা, ইসড়া সংরক্ষণ বাটনে ক্লিক করলে সংরক্ষণ হবে এবং পরবর্তীতে “সা ফাফ থেকে সেটিকে প্রেরণ করতে হবে।

নথি-তে কি লগিন করা যাবে?

না। মাইগ্রেশন চলাকালীন সময়ে নথি সিস্টেমে লগইন না করা। মাইগ্রেশনের বিষয়টি আপনার অফিসের সকলের সাথে শেয়ার করা। ব্যবহারকারীগণ উপরোল্লেখিত কোন সমস্যা সম্মুখীন হলে এটুআই-এর নথি সংশ্লিষ্ট ফোকালের সাথে যোগাযোগ করা। অফিসের নামের তালিকা এবং ডি-নথির সংক্ষিপ্ত ইউজার ম্যানুয়াল সংগ্রহ করে ডি নথি সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা নিতে পারেন।

https://bdservicerules.info/%e0%a6%a1%e0%a6%bf-%e0%a6%a8%e0%a6%a5%e0%a6%bf-%e0%a6%a1%e0%a6%bf%e0%a6%9c%e0%a6%bf%e0%a6%9f%e0%a6%be%e0%a6%b2-%e0%a6%a8%e0%a6%a5%e0%a6%bf/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *