আইবাস++ পরিচিতি

ibass2 । আইবাস++ কি? কি কাজে ব্যবহার হয়?

আইবাস++ এর পরিচিতি – ধারণা সমন্বিত বাজেট ও হিসাবরক্ষণ পদ্ধতি বা ‘আইবাস++ (Integrated Budget and Accounting System- iBAS++) হচ্ছে বাংলাদেশ সরকারের একটি সমন্বিত আর্থিক ব্যবস্থাপনা তথ্য পদ্ধতি। এটি মূলতঃ একটি ইন্টারনেটভিত্তিক সফটওয়্যার, যার মাধ্যমে সরকারের বাজেট প্রণয়ন, বাজেট বাস্তবায়ন অর্থাৎ বরাদ্দ বিভাজন, অর্থ অবমুক্তি, বাজেট পুনঃউপযােজন, অনলাইনে বিল দাখিল এবং তার বিপরীতে চেক বা ইএফটির মাধ্যমে অর্থ প্রদান, রাজস্ব জমার হিসাবরক্ষণ, স্বয়ংক্রিয় ব্যাংক হিসাব সমন্বয় ইত্যাদি আর্থিক কর্মকাণ্ড একটি একক সার্ভারের মাধ্যমে সম্পন্ন হয়।

 আইবাস++ এ মােট চারটি মডিউল রয়েছে। এগুলাে হচ্ছে

ক. বাজেট প্রণয়ন 

খ. বাজেট বাস্তবায়ন 

গ. হিসাবরক্ষণ

ঘ, জেনারেল লেজার 

ক. বাজেট প্রণয়ন 

বাজেট প্রণয়ন মডিউলের মাধ্যমে তিনটি ধাপে বাজেট প্রণয়ন করা হয়

১. কৌশলগত ধাপ – মন্ত্রণালয়ের কৌশলগত উদ্দেশ্য ও অগ্রাধিকার খাত বিবেচনা করে ব্যয়সীমা নির্ধারণ করে। 

২. প্রাক্কলন ধাপ – মন্ত্রণালয়/বিভাগ ও অধিদপ্তর বিভিন্ন ফরম পূরণের মাধ্যমে বাজেট প্রাক্কলন এবং প্রক্ষেপন প্রস্তুত করে। 

৩. চূড়ান্তকরণ ধাপ – অর্থ বিভাগের প্রাক্কলন এবং প্রক্ষেপন চূড়ান্ত করে জাতীয় সংসদে উপস্থাপনের জন্য বাজেট সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রতিবেদন তৈরী করে।

খ. বাজেট বাস্তবায়ন 

বাজেট বাস্তবায়ন মডিউলের মাধ্যমে নিম্নোক্ত কার্যক্রমসমূহ সম্পন্ন হয়: 

বরাদ্দ বিভাজন 

বাংলাদেশ সরকারের বাজেট প্রণীত হয় মন্ত্রণালয়/বিভাগ এবং অধিদপ্তর/পরিদপ্তর পর্যায়ে; অর্থাৎ কোন একটি অধিদপ্তরের সারা দেশব্যাপী বিস্তৃত সকল অফিসের মােট প্রাপ্তি ও ব্যয়ের বাজেট একত্রে প্রণয়ন করা হয়। যেমন, বাজেটে বলা থাকে সারা দেশের সকল উপজেলা কৃষি কার্যালয়ের একত্রে মােট ভ্রমণ ভাতার জন্য বরাদ্দ কত। কিন্তু এই অর্থ ব্যয়ের পূর্বে অবশ্যই প্রতিটি উপজেলা কৃষি কার্যালয়ে ভ্রমণ ভাতা বাবদ পৃথক পৃথকভাবে বরাদ্দ নির্ধারণ করে দিতে হয়। এই প্রক্রিয়াটি বরাদ্দ বিভাজন নামে পরিচিত। আইবাস++ এর বরাদ্দ বিভাজন সাব-মডিউলের মাধ্যমে সুষ্ঠুভাবে বরাদ্দ বিভাজন করা যায়। বাজেটের অতিরিক্ত বরাদ্দ দেওয়া বা বরাদ্দের অতিরিক্ত ব্যয় এই সিস্টেমের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিয়ন্ত্রিত হয়ে থাকে। তাছাড়া বাজেট বরাদ্দ ও ব্যয়ের বিভিন্ন প্রয়ােজনীয় বিশ্লেষণও এর মাধ্যমে করা যায়। 

অর্থ অবমুক্তি 

নগদ ব্যবস্থাপনা (Cash Management) – এর অংশ হিসেবে স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প ও স্কিমের ক্ষেত্রে ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে অর্থ অবমুক্ত করার পর ব্যয় করা হয়। আইবাস++ এ এই কাজটি সুষ্ঠুভাবে করার ব্যবস্থা রয়েছে, যার ফলে একদিকে যেমন বাজেটের অতিরিক্ত অবমুক্তি এবং অবমুক্তির অতিরিক্ত ব্যয় নিয়ন্ত্রণ করা যায়, তেমনি এ সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ বিশ্লেষণ তৈরী করা যায়, যা নগদ ব্যবস্থাপনায় মূল্যবান ভূমিকা পালন করে। বর্তমানে কিছু কিছু ক্ষেত্রে আইবাস++ এর মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে অর্থ অবমুক্তির ব্যবস্থা করা হয়েছে। 

পুনঃউপযােজন 

প্রয়ােজনের নিরিখে অধিক অর্থের প্রয়ােজনে এক বা একাধিক অর্থনৈতিক কোড হতে অন্য এক বা একাধিক অর্থনৈতিক কোডে অর্থ স্থানান্তরের প্রয়ােজন হয়। এক্ষেত্রে প্রশাসনিক মন্ত্রণালয় বা অর্থ বিভাগ কর্তৃক বিধি-বিধানের আলােকে যৌক্তিকভাবে পুনঃউপযােজন করা হয়ে থাকে। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে অধিদপ্তর পর্যায়ে পুনঃউপযােজনের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে, যা বাজেট বাস্তবায়ন মডিউলের মাধ্যমে সম্পন্ন করা যাবে।

গ. হিসাবরক্ষণ 

এই মডিউলের মাধ্যমে (বিশেষ করে ডিডিও অর্থাৎ আয়ন-ব্যয়ন কর্মকর্তার জন্য) অনলাইনে ক্রয়াদেশ ও বিল দাখিল থেকে শুরু করে বিল নিরীক্ষণ এবং অনুমােদনের প্রতিটি ধাপ, গ্রহীতাকে চেক বা ইএফটি প্রদান, ব্যাংকে ইলেকট্রনিক অ্যাডভাইস প্রেরণ, ব্যাংক থেকে প্রেরিত ইলেকট্রনিক ডেবিট ও ক্রেডিট স্ক্রল সিস্টেমে আপলােডের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ব্যাংক হিসাব সমন্বয় ইত্যাদি কাজ করা যায়। 

ঘ. জেনারেল লেজার 

জেনারেল লেজার মডিউলটি হচ্ছে আইবাস++ এর কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা – যা সিস্টেমের অন্তরালে থেকে সরকারের আর্থিক ব্যবস্থাপনার গুরুত্বপূর্ণ নিয়ন্ত্রক হিসেবে কাজ করে। আইবাস++ এ যত লেনদেন ঘটে থাকে, তার সব কিছুই জেনারেল লেজারে অন্তর্ভুক্ত হয়। এর মাধ্যমে সরকারের আয়-ব্যয়ের সর্বশেষ হিসাব যেমন তৎক্ষণাৎ পাওয়া যাবে, তেমনি সরকারের আর্থিক সম্পদ ও দায় এবং সংশ্লিষ্ট অর্থ প্রবাহের একটি পূর্ণাঙ্গ চিত্রও পাওয়া যায়।।

আইবাস -++ এ প্রবেশের নিয়ম (ইন্টারনেট ব্রাউজার নির্বাচন) 

আইবাস++ একটি ইন্টারনেটভিত্তিক সফটওয়্যার হওয়ার কারণে এটিতে প্রবেশ করতে হলে ব্যবহারকারীকে কোন একটি ইন্টারনেট ব্রাউজার (যেমন- C Google Chrome অথবা Mozilla Firefox, ইত্যাদি) ব্যবহার করতে হবে। এ জন্য ব্যবহারকারীকে যেকোন একটি ইন্টারনেট ব্রাউজারের আইকনে ক্লিক করে তাতে প্রবেশ করতে হবে। এক্ষেত্রে Mozilla Firefox Browser ব্যবহার করাই ভালাে।। 

আইবাস++ এ লগইন 

আইবাস++ ব্যবহার করতে হলে ব্যবহারকারীকে আবশ্যিকভাবে ইউজার একাউন্ট খুলতে হবে। আবেদনের নির্দিষ্ট ফরম অর্থবিভাগের ওয়েবসাইট (www.mof.gov.bd) থেকে ডাউনলােড করে যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে আবেদন করে অর্থবিভাগের FSMU শাখায় প্রেরণ করতে হয়। পরবর্তীতে অর্থবিভাগ হতে আইবাস++ ব্যবহারকারীর নামে ইউজার একাউন্ট তৈরি করে মােবাইল ফোনে এসএমএস-এর মাধ্যমে ইউজার আইডি ও এককালীন পাসওয়ার্ড জানিয়ে দেওয়া হয়। উক্ত ইউজার আইডি ও এককালীন পাসওয়ার্ড দিয়ে আইবাস++- এ লগইন করতে হবে। 

ibass2 । আইবাস++ কি? কি কাজে ব্যবহার হয়? : ডাউনলোড

(Visited 1,393 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *