NID Online Services ২০২২

NID Online Services ২০২২ । জাতীয় পরিচয়পত্র সার্ভিস services.nidw.gov.bd

নতুন জাতীয় পরিচয়পত্র আবেদন, অনলাইন সংশোধন আবেদন – services.nidw.gov.bd – একটি ওয়েবসাইট হতেই করা যাবে।

নতুন ভোটার হওয়ার আবেদন – বাংলাদেশ এনআইডি পোর্টাল- যারা জাতীয় পরিচয়পত্র পেয়েছেন তারা সংশোধন / ডুপ্লিকেট কপির জন্য আবেদন করতে পারবেন, যাদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই তারা নতুন নিবন্ধনের জন্য আবেদন করতে পারবেন। যারা ইতিমধ্যে নিবন্ধন করেছেন কিন্তু জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি পান নি, তারা অ্যাকাউন্ট রেজিস্টার করে ডাউনলোড অপশন থেকে জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি সংগ্রহ করতে পারবেন।

স্বাক্ষর ও ছবি পরিবর্তন ছাড়া অন্য যে কোন তথ্য পরিবর্তন আপনি কিন্তু অনলাইনেই করতে পারেন এক্ষেত্রে আপনাকে জাতীয় নির্বাচন কমিশন অফিসে যেতে হবে না। যেমন-নামের অংশ পরিবর্তন, জন্ম তারিখ পরিবর্তন, পিতার নামের সংশোধন, মাতার নামের সংশোধন, ব্লাড গ্রুপ যোগ, পেশা পরিবর্তন, বৈবাহিক অবস্থা পরিবর্তন ইত্যাদি কাজ ডকুমেন্ট অনলাইনে স্ক্যান করে আপলোড করলেই ঘরে বসেই পরিবর্তন সম্ভব এবং সংশোধনের পর জাতীয় পরিচয়পত্র অনলাইনেই ডাউনলোড করা যায়।

জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর অথবা ভোটার নিবন্ধন ফর্ম নম্বর এবং জন্মতারিখ ব্যবহার করে ভোটার তথ্য ও ভোটার এরিয়া তথ্য দেখুন। services.nidw.gov.bd এই একটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনি যে কোন ভোটার আইডি কার্ড ভুয়া কিনা তা চেক করে নিতে পারেন। এজন্য ভোটার তথ্য দেখুন এ ক্লিক করুন।

সাধারণ ও স্মার্ট কার্ডের ফি ভিন্ন হয় /আবার জরুরি ভিত্তিতে সংশোধন করতে ভিন্ন ফি ধার্য করা হয়েছে।

জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন, অন্যান্য তথ্য সংশোধন, জাতীয় পরিচয়পত্র ও অন্যান্য তথ্য সংশোধন, রি-ইস্যু ইত্যাদি ফি এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ক্যালকুলেশন করা যায়। ফি হিসাব করুন

জাতীয় পরিচয়পত্র আবেদন ফি ২০২২

ক্যাপশন: কার্ডের তথ্য পরিবর্তন অথবা সংশোধন অথবা কার্ড রিইস্যু ফি হিসাব করুন

যে পরিবর্তনের জন্য যে ডকুমেন্ট আপলোড করতে হয়।

  1. ভুলক্রমে পিতা/স্বামী/মাতাকে মৃত হিসেবে উল্লেখ করা হলে সংশোধনের জন্য কি কি সনদ দাখিল করতে হবে? উত্তরঃ জীবিত পিতা/স্বামী/মাতাকে ভুলক্রমে মৃত হিসেবে উল্লেখ করার কারণে পরিচয়পত্র সংশোধন করতে হলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির পরিচয়পত্র দাখিল করতে হবে।

  2. আমি অবিবাহিত। আমার কার্ডে পিতা না লিখে স্বামী লেখা হয়েছে। কিভাবে তা সংশোধন করা যাবে? উত্তরঃ সংশ্লিষ্ট উপজেলা/থানা/জেলা নির্বাচন অফিসে আপনি বিবাহিত নন মর্মে প্রমাণাদিসহ আবেদন করতে হবে।

  3. বিয়ের পর স্বামীর নাম সংযোজনের প্রক্রিয়া কি? উত্তরঃ নিকাহনামা ও স্বামীর আইডি কার্ড এর ফটোকপি সংযুক্ত করে অনলাইন/এনআইডি রেজিস্ট্রেশন উইং/ সংশ্লিষ্ট উপজেলা/ থানা/ জেলা নির্বাচন অফিস বরাবর আবেদন করতে হবে।
  4. বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে গেছে। এখন আইডি কার্ড থেকে স্বামীর নাম বিভাবে বাদ দিতে হবে? উত্তরঃ বিবাহ বিচ্ছেদ সংক্রান্ত দলিল (তালাকনামা) সংযুক্ত করে অনলাইন/এনআইডি রেজিস্ট্রেশন উইং/সংশ্লিষ্ট উপজেলা/ থানা/ জেলা নির্বাচন অফিসে আবেদন করতে হবে।
  5. নিজ/পিতা/স্বামী/মাতার নামের বানান সংশোধন করতে আবেদনের সাথে কি কি দলিল জমা দিতে হবে? উত্তরঃ এসএসসি/সমমান সনদ, জন্ম সনদ, পাসপোর্ট, নাগরিকত্ব সনদ, চাকুরীর প্রমাণপত্র, নিকাহ্‌নামা, পিতা/স্বামী/মাতার জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত কপি জমা দিতে হয়।
  6. পিতা/মাতাকে ‘মৃত’ উল্লেখ করতে চাইলে কি কি সনদ দাখিল করতে হয়? উত্তরঃ পিতা/মাতা/স্বামী মৃত উল্লেখ করতে চাইলে মৃত্যু সনদ দাখিল করতে হবে।
  7. এ সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর জানতে এখানে দেখুন

বিদেশে বসেও কি সংশোধনের আবেদন করা যাবে?

অবশ্যই যাবে। শুধুমাত্র ছবি এবং স্বাক্ষর পরিবর্তন ব্যতীত যে কোন ধরনের পরিবর্তনের জন্য আপনি অনলাইনেই আবেদন করতে পারেন। অনলাইনে আবেদনের জন্য আপনার সংশোধনটির স্বপক্ষে শুধুমাত্র একটি ডুকমেন্ট স্ক্যান করে আপলোড করতে হবে। আবার সংশোধন সম্পন্ন হয়ে গেলে বা ইসি যদি অনুমোদন করে দেয় তবে আপনি অনলাইনেই ডাউনলোড করে প্রিন্ট করতে পারবেন আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র। এখনই সংশোধনের আবেদন করুন

আইডি কার্ড তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন ফর্ম ২০২২

(Visited 26,875 times, 4 visits today)

11 comments

    1. অনুগ্রহ করে আরও কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে। বিস্তারিত জানতে ১০৫ এ কল করুন।

  1. NID card এ স্থায়ী ঠিকানা ভুল কিভাবে সংশোধন করা যাবে এবং কি কি ডকুমেন্টস লাগবে দয়া করে জানাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *