উত্তরাঞ্চলে উপযোগী সুগন্ধি ধানের জাত চাষ পদ্ধতি।

আমদের দেশে আমন মৌসুমে সুগন্ধি ধানের উচ্চফলনশীল জাতের বিআর ৫, ব্রিধান ৩৪, ব্রিধান ৩৪, ব্রিধান ৩৭, ব্রিধান ৩৮, ব্রিধান ৮০, বিনাধান-৯ ও বিনাধান-১৩ এবং স্থানীয় জাতের মধ্যে কাটারিভোগ, কালিজিরা, চল্লিশাজিরা, চিনিগুড়া (জিরাকাটারী), ফিলিপাইনকাটারী, জটাকাটারী, চিনিকাটারী, চিনিআতপ, বাদশাভোগ, খাসকানী, বেগুনবিচি, দুলাভোগ, উকনী, কৃষ্ণভোগ, তুলসীমালা উল্লেখযোগ্য।

ব্রিধান ৩৪ স্থানীয় সুগন্ধি জাতের ধান চিবিগুড়া বা কালিজিরার মতোই অথচ ফল প্রায় দ্বিগুন। ব্রিধান৭০ ও ব্রিধান ৮০ আমন মৌসুমে ব্রি কর্তৃক সর্বমেষ উচ্চফলনশীল সুগন্ধি ধান এবং আলোক অসংবেদনশীল। গড় ফলন হেক্টরপ্রতি ৪.৫-৫.০ মেট্রিক টন, যা কাটারিভোগ ধানের চেয়ে দ্বিগুন। ব্রিধান ৭০ ধানের চাল দিনাজপুরের ঐতিহ্যবাহী কাটারি ভোগের চাইতে আরও লম্বা। আর ব্রিধান ৮০ থাইল্যান্ডের জনপ্রিয় জেসমিন ধানের মতো, সুগন্ধিযুক্ত এবং খেতেও সুস্বাধু। অপরদিকে বোরো মৌসুমে সুগন্ধিযুক্ত আধুনিক জাত হচ্ছে ব্রিধান ৫০ (বাংলা মতি)। এ জাতের চালের মান বাসমতির মতোই। হেক্টর প্রতি ফলন ৬ মেট্রিক টন।

চাষাবাদ পদ্ধতি:

রোপা আমন মৌসুমে ৫-২৫ জুলাই (২১ আষাঢ়-১০ শ্রাবন) পর্যন্ত বীজতলায় বীজ বপনের উপযুক্ত সময়। ২৫-৩০ দিনের চারা প্রতি গুছিতে ২-৩টি করে ১৫-২০ সেন্টিমিটার দুরত্বে রোপন করা হয়।

সার ব্যবস্থাপনা:

সুগন্ধি ধানের জমিতে আমন মৌসুমে প্রতি বিঘা বা ৩৩ শতকে ইউরিয়া ১৮-২০ কেজি, টিএসপি ১০-১২ কেজি, এমওপি ১৩ কেজি, জিপসাম ৯ কেজি, দস্তা ১.৩ কেজি হারে প্রয়োগ করতে হয়। ইউরিয়া সার সমান ৩ কিস্তিতে জমি তৈরির শেষ পর্যায়ে, রোপনের ২০-২৫ এবং ৪৫ দিন পর প্রয়োগ করতে হবে। লক্ষ্য রাখতে হবে যে, স্থানীয় সুগন্ধি ধানের জাতে ইউরিয়ার পরিমাণ সাধারণত কম লাগে। তবে এলসিসি ভিত্তিক ইউরিয়া সার প্রয়োগ করা উত্তম। শুধু রাসায়নিক সার ব্যবহার করলে উফশী জাতে স্থানীয় জাতের ধানের মতো সুগন্ধিযুক্ত হয় না। তাই জৈব সার ব্যবহারের মাধ্যমে চাষাবাদ করা হলে সুগন্ধ তুলানামূলকভাবে বেশি হয়্

রোপনের পর ৩০-৪০ দিন জমি আগাছা মুক্ত রাখা আবশ্যক। চাল শক্ত হওয়া পর্যন্ত প্রয়োজনে সম্পূরক সেচ দিতে হবে।

কর্তনের উপযুক্ত সময ০১-১৫ অগ্রাহায়ন (১৫-৩০ নভেম্বর)। অধিকাংশ ধানের ছড়ায় শতকরা ৮০ ভাগ ধান পাকা অবস্থাতেই ধান কাটা হয়ে থাকে। সংরক্ষণের জন্য আদ্রতা ১২ ভাগের নিচে রাখতে হবে।

বিস্তারিত তথ্যের জন্য উপজেলা কৃষি অফিস বা উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তার পরামর্শ নিন। এছাড়াও যে কোন মোবাইল হতে ১৬১২৩ নম্বরে ফোন করে প্রতিদিন ৭.০০ টা হতে রাত ৯.০০ টা পর্যন্ত সরাসরি কৃষি বিষয়ক তথ্য জানুন। এই সেবা শুক্রবার ও অন্যান্য ছুটির দিন বন্ধ থাকে।

সুত্র: ডাউনলোড

(Visited 486 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published.

close