শিক্ষার্থীদের ইউনিক আইডি ২০২৩ । Student Unique ID কবে দিবে?

শিক্ষার্থীদের ইউনিক আইডি ২০২৩ । Student Unique ID কবে দিবে?

দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর ছাত্র-ছাত্রীদের ইউনিক আইডি এ বছরের শুরুর দিকেই প্রদান করা হবে – ডাটা এন্ট্রির শেষ সময় বেধে দেয়া হয়েছে – শিক্ষার্থীদের ইউনিক আইডি ২০২৩

স্টুডেন্ট ইউনিক আইডি তথ্য এন্ট্রি ২০২৩ – প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রোফাইল তৈরির সার্ভারটি বর্তমানে ওপেন করা হয়েছে। সকল শিক্ষক তাদের IPEMIS এ ব্যবহৃত ফোন নম্বর ও পাসওয়ার্ড দিয়ে নিচের লিংকে প্রবেশ করে শিক্ষার্থীর তথ্য এন্ট্রি করতে পারবেন। লিংকঃ http://crvs.dpe.gov.bd:8021

শিক্ষা মন্ত্রণালয়াধীন ব্যানবেইস কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন এস্টাবলিশমেন্ট অব “ইন্টিগ্রেটেড এডুকেশনাল ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (IEIMS)” প্রকল্পের আওতায় CRVS ব্যবস্থার আলোকে মাধ্যমিক পর্যায়ের (ষষ্ঠ ও দ্বাদশ শ্রেণি) শিক্ষার্থীদের শিক্ষার্থী প্রোফাইল ডেটাবেজ প্রণয়ন ও UID প্রদানের লক্ষ্যে শিক্ষা প্ৰতিষ্ঠান পর্যায় হতে Student Profile Database এ Software এর মাধ্যমে Data Entry এর কাজ চলমান রয়েছে। বর্ণিত Data Entry এর সময়সীমা ৩১ ডিসেম্বর 2022 পর্যন্ত নির্ধারিত ছিল। বর্ণিত Data Entry কার্যক্রমের সময়সীমা ৩১ জানুয়ারি 2023 পর্যন্ত পূর্ণনির্ধারন করা হলো। এই সময়সীমার পর Data Entry কার্যক্রমের সময়সীমা আর বৃদ্ধি করা হবে না। Necessary Documents for Student Unique ID । প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ইউনিক আইডি কার্যক্রম

ইউনিক আইডি ফরমের সাথে কি কি ডকুমেন্ট জমা দিতে হবে? মোট ৪টি প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস – শিক্ষার্থীর সদ্য তােলা পাসপাের্ট সাইজের ২ কপি ছবি (সাদা ব্যাকগ্রাউন্ড রঙ্গিন ছবি, যা সম্মুখভাগ থেকে তােলা যেন দুই চোখ একই সাথে দৃশ্যমান হয়)। শিক্ষার্থীর জন্ম নিবন্ধন সনদ (Birth Registration Certificate) এর অনুলিপি (যদি জন্ম নিবন্ধন করা না থাকে দ্রুত করার ব্যবস্থা নিন।শিক্ষার্থীর মাতা, পিতা এবং প্রযােজ্যক্ষেত্রে অভিভাবকের জাতীয় পরিচয়পত্রের অনুলিপি। শিক্ষার্থীর মাতা, পিতা এবং প্রযােজ্যক্ষেত্রে অভিভাবকের জন্ম নিবন্ধনের অনুলিপি (যদি থাকে- না থাকলে জরুরী ভিত্তিতে সংগ্রহ করার প্রয়োজন নেই)। Student Unique ID Form 2023। স্টুডেন্ট ইউনিক আইডি ফরম PDF DOWNLOAD

ছাত্র ছাত্রীদের ইউনিক পরিচয়পত্র বা আইডি / ইউনিক আইডি অনলাইন ডাটা বেইজের মাধ্যমে সংযুক্ত থাকবে

ইউনিক আইডি না করলে কি হবে? ইউনিক আইডি না করলে সরকারি সেবা থেকে বঞ্চিত হতে হবে। উপবৃত্তি বা সরকারি যে কোন সুবিধা প্রাপ্তির ক্ষেত্রে ইউনিক আইডি প্রয়োজন পড়বে। অন্যদিকে ইউনিক আইডি অনুসারেই জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরি হবে। এজন্য আর তথ্য সংগ্রহ বা আবেদন করতে হবে না।

Caption: unique ID related notice

ইউনিক আইডি ডাটা এন্ট্রি । ইউনিক আইডি’র সার্ভার খুলে দেয়া হয়েছে।

  1. IPEMIS সিস্টেমে ব্যবহার করা মোবাইল নম্বর/ ইমেইল এবং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে লগইন
    করতে হবে।
  2. আপাতত প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণি এবং ২০২২ সালের নতুন ভর্তিকৃত ছাত্র-ছাত্রীর তথ্য এন্ট্রি করা যাবে।
  3. এন্ট্রিকৃত শিক্ষার্থী “অনিবন্ধিত শিক্ষার্থীর তালিকা” অপশনে দেখা যাবে।
  4. ২০২১ সালের ছাত্র-ছাত্রীর তথ্য (৫ম শ্রেণি বাদে) পিইএসপি উপবৃত্তি কার্যক্রম থেকে মাইগ্রেশন হয়ে আসবে। এজন্য আপাতত অন্যান্য শ্রেণির তথ্য এন্ট্রি না করাই ভাল। তথ্য মাইগ্রেশন হলে কাজ অনেকটাই কমে যাবে।
  5. শিক্ষার্থীর তথ্য মাইগ্রেশন হলো কিনা জানতে নিয়মিত “আনভেরিফাইড শিক্ষার্থী” অপশনে সার্চ করুন। মাইগ্রেশন সম্পন্ন হলে শ্রেণিভিত্তিক সকল শিক্ষার্থীর তথ্য এখানে দেখা যাবে। এই অপশন ব্যবহার করেই সকল শিক্ষার্থীর তথ্য আপডেট করতে হবে।

ইউনিক আইডি’র ক্ষেত্রে জন্ম নিবন্ধন কি বাধ্যতামূলক?

হ্যাঁ – অনলাইনে এন্ট্রি দেওয়ার ক্ষেত্রে জন্ম নিবন্ধন লাগবে। অনলাইনে যেহেতু তথ্য এন্ট্রি করতে হয় তাই জন্ম নিবন্ধন লাগবে। বর্তমানে জন্ম নিবন্ধন করতে পিতা মাতার নাম হলেই হয়। জন্ম নিবন্ধন জটিলতা সহজ করা হয়েছে তাই সন্তানের জন্য নিবন্ধন করুন এবং প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট জমা দিন।

ইউনিক আইডি অনলাইন আবেদন ২০২২ । ইউনিক আইডি’র সার্ভার খুলে দেয়া হয়েছে

(Visited 596 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *