E challan bd ই-চালান ব্যবহার সুবিধা।

E challan bd- এ চালান সোনালী ব্যাংক ব্যাংক চালান কি-সোনালী ব্যাংক চালান ফরম

ই-চালান –ব্যাংক চালানের মাধ্যমে সরকারের রাজস্ব জমা প্রদানের প্রচলিত পদ্ধতির পাশাপাশি ‘ই চালান’ এর মাধ্যমে সরকারি রাজস্ব জমা প্রদানের ক্ষেত্রে নিম্নোক্ত ৪ ধরনের সুবিধা পাওয়া যাবে।

এটি দুইভাবে করা যাবে। প্রথমতঃ বিষয়ভিত্তিক মেন্যু থেকে সংশ্লিষ্ট মেন্যুটি নির্বাচন করলে সেবার তালিকা পাওয়া যাবে। সেখান থেকে নির্দিষ্ট সেবার অপশনটি ক্লিক করে প্রয়োজনীয় তথ্য পূরণ করে অন-লাইনে টাকা জমা দেওয়া যাবে। এছাড়া সেবাভিত্তিক মেন্যু থেকে নির্দিষ্ট সেবাটি নির্বাচন করেও প্রয়োজনীয় তথ্য পূরণ করে অন-লাইনে টাকা জমা দেওয়া যাবে।

বর্তমানে শুধুমাত্র Qcash কার্ড কিংবা সোনালী ব্যাংকের কার্ড কিংবা সোনালী ব্যাংকের কাউন্টার কিংবা এ্যাকাউন্ট-এর মাধ্যমে অন-লাইনে চালান জমা দেওয়ার সিস্টেম চালু হয়েছে। অচিরেই সকল ব্যাংকের মাধ্যমে অন-লাইনে চালান জমা দেওয়ার সিস্টেম চালু হবে।

অনলাইনে চালান জমাদান পদ্ধতি / অনলাইনে চালান এর অর্থ জমাদান কি নিরাপদ?

অবশ্যই ব্যাংকে চালান জমাদানের পাশাপাশি আপনি চাইলে অনলাইনেও নিরাপদ কিউক্যাশ পেমেন্ট গেইটওয়ের মাধ্যমে নিরাপদে ই চালান জমা দিতে পারেন।

Caption: E-challan Payment and Use your Debit can be deposit challan

অনলাইন জমা প্রদানের সুবিধা, নির্দিষ্ট চালান ফরম পূরণ পদ্ধতি ইত্যাদি

  1. অনলাইন জমা প্রদানের সুবিধাঃ অনলাইন ব্যাংকিং সুবিধা রয়েছে এমন যে কেউ অনলাইনে রাজস্ব জমা দিতে পারবেন। তথ্য প্রদানের মাধ্যমে নির্দিষ্ট ফরম অনলাইনে পূরণ করার পর ‘পরিশোধের পদ্ধতি’ অংশে গিয়ে ‘অনলাইন পরিশোধ’ অপশনটি নির্বাচন করে নির্দিষ্ট ব্যাংক একাউন্ট থেকে অর্থ ট্রান্সফারের মাধ্যমে চালানের অর্থ জমা দেওয়া যাবে।
  2. কাউন্টারে জমা প্রদানের সুবিধাঃ অনলাইন ব্যাংকিং সুবিধা নেই কিংবা টাকার পরিমাণ বেশী কিংবা অনলাইন লেনদেনে আগ্রহী নন, এমন যে কেউ ‘ই চালান’ এর নির্দিষ্ট অংশসমূহের তথ্য পূরণের পর ‘পরিশোধের পদ্ধতি’ অংশে গিয়ে ‘কাউন্টার জমা’ অপশনটি নির্বাচন করবেন । এরপর প্রিন্ট অপশন গিয়ে ‘বার কোড’ যুক্ত পূরণকৃত চালান ফরমটি প্রিন্ট করে নির্দিষ্ট ব্যাংকের শাখায় গিয়ে নগদ/চেক/ড্রাফট/পে অর্ডারসহ জমা দিতে হবে। ‘বার কোড’ রিডিং এর মাধ্যমে ব্যাংক কাংঙ্খিত তথ্য আহরিত করে লেনদেনটি সম্পন্ন করবে।
  3. নির্দিষ্ট চালান ফরম পূরণঃ অনলাইন ব্যাংকিং বা কাউন্টারে জমা প্রদান না করেও শুধুমাত্র নির্দিষ্ট চালান ফরম পূরণ করে টাইপকৃত চালান ফরম প্রিন্ট করার সুবিধাও ‘ই-চালান’ এ রয়েছে। এক্ষেত্রে সুবিধামত যে-কোন শাখায় পূরণকৃত চালান ফরমটি ব্যবহার করা যাবে।
  4. শূন্য ফরমঃ আপনি যদি শুধু শূন্য ফরম চান তাও ‘চালান ফরম’ মেনুতে ক্লিক করে শুধু চালান ফরম প্রিন্ট করে পরবর্তীতে হাতে লিখে জমা দিতে পারবেন।
  5. বিষয়ভিত্তিক জমা – আপনি যে খাতে টাকা জমা দিতে চান, ‘বিষয়ভিত্তিক জমা’ মেনু থেকে নির্দিষ্ট বিষয়ে যাওয়ার পর প্রর্দশিত সাব-মেনুসমূহ থেকে সঠিকটি নির্বাচন করে প্রয়োজনীয় কোডটি চিহ্নিত করতে পারবেন।
  6. প্রতিষ্ঠানভিত্তিক জমা – যে কোডের বিপরীতে আপনি টাকা জমা দিতে চান, সে কোড সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান এর নাম জানা থাকলে ‘প্রতিষ্ঠানভিত্তিক জমা’ মেনুতে গিয়ে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান নির্বাচনপূর্বক প্রর্দশিত কোডসমূহের তালিকা থেকে আপনি সঠিক কোডটি নির্বাচন করতে পারবেন।
  7. অর্থনৈতিক কোডভিত্তিক জমা – নির্দিষ্ট কোড জানা থাকলে ‘অর্থনৈতিক কোডভিত্তিক জমা’ মেনু থেকে নির্দিষ্ট কোডটি নির্বাচন করেও আপনি রাজস্ব জমা প্রক্রিয়াকরণ করতে পারবেন।

এখন আমি কিভাবে লগইন করবো??

আমি ব্যক্তি হিসেবে সকল তথ্য দিয়ে নিবন্ধন করেছি, লগইন করতে গেলে ই-মেইলের মাধ্যমে লগইন করতে বলছে কিন্তু আমি আমার ই-মেইলে ই-চালান সিস্টেম হতে কোন মেইল পাইনি। এমন প্রশ্নে আমি বলবো সঠিক ই-মেইল ঠিকানা দেওয়া হয়েছে কিনা তা নিশ্চিত করতে হবে। সঠিক ই-মেইল ঠিকানায় ১টি Link প্রেরণ করা হয়। উক্ত Link এ ক্লীক করলেই এ্যাকাউন্টটি এ্যাকটিভ হবে।

(Visited 219 times, 2 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published.

close