ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র । ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা খরচ ২০২২

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র । ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা খরচ ২০২২

ভারতে ভ্রমণের জন্য ট্যুরিস্ট ভিসা সংগ্রহ করতে হয় – ট্যুরিস্ট ভিসার ফি? – ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা খরচ ২০২২

ভিসা ফী কত এবং কিভাবে জমা দিবো? – উত্তরা, গুলশান, মতিঝিল, শ্যামলী, চট্টগ্রাম, রাজশাহীঃ ৮০০ টাকা। সিলেট, খুলনা, বরিশাল, ময়মনসিংহ, রংপুর, যশোরঃ ৮০০ টাকা। এখন অনলাইনে পেমেন্ট দেওয়া যায় সব সেন্টারের জন্য। আপনি চাইলে Ucash থেকেও পেমেন্ট করে দিতে পারবেন। আপনার নিজের বা এজেন্ট থেকে Ucash পেমেন্ট করতে পারবেন। আপনি আপনার যে কোন মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট এবং কিছু ব্যাংকের ডেবিট, ক্রেডিট, ভিসা, মাস্টারকারড দিয়ে পেমেন্ট করতে পারবেন অনলাইনে। অনলাইনে পেমেন্ট করতে এখানে যাবেনঃ https://payment.ivacbd.com Ucash এজেন্ট লিস্ট পাবেন এখানেঃ http://bit.ly/ucashagent ভিসা জমা দেওয়ার আগের দিনই টাকা জমা দিয়ে যাবেন। টাকা জমা দেওয়া হয়ে গেলে মোবাইলে একটি ম্যাসেজ পাবেন।

ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্রের (আইভিএসি) ওয়েবসাইটে স্বাগতম।ভারতীয় ভিসা প্রার্থীদের (কূটনৈতিক ও অফিসিয়াল পাসপোর্ট ব্যতীত) কাছ থেকে ভারতীয় ভিসার আবেদনপত্র গ্রহণ এবং আবেদনকারীর কাছে প্রক্রিয়াকরণের পর পাসপোর্ট ফেরৎ দেয়ার জন্য আমরাই ভারতীয় হাইকমিশন, ঢাকার একমাত্র আউটসোর্স সংস্থা। অনুগ্রহ করে লক্ষ্য করুন যে, প্রক্রিয়াকৃত পাসপোর্ট গ্রহণ এবং ফেরত প্রদানের ক্ষেত্রে আমাদের ভূমিকা নিরেট প্রশাসনিক প্রকৃতির এবং ভিসার আবেদনের ফলাফল বা প্রক্রিয়াকরণের উপর কোন প্রভাব বা তাৎপর্য নেই। Indian Visa Application Center (IVAC), Bangladesh

এগুলো কেবলমাত্র ভারতীয় হাইকমিশনের প্রক্রিয়া এবং এ বিষয়ে তাদের সিদ্ধান্তই চুড়ান্ত। আবেদনকারীরা তাদের জমাকৃত আবেদনপত্র এবং প্রদানকৃত তথ্যের জন্য নিজেরাই একমাত্র দায়ী। তাদের ভিসার আবেদনের স্বপক্ষে কোন ভুয়া দলিল বা তথ্যের অন্যান্য মিথ্যা উপস্থাপনা ভারতীয় হাইকমিশন দ্বারা তাদের আবেদনের ফলাফলের উপর সরাসরি প্রভাব ফেলতে বাধ্য হবে। আবেদনকারীদের যথাযথ ভিসা হওয়ার পরই শুধুমাত্র ভারত ভ্রমন এর জন্য পরিকল্পনা করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। indian visa application

ইন্ডিয়ান ভিসা বন্ধ, ভারতীয় ভিসা আপডেট ভারতীয় ভিসা ফি, ইন্ডিয়ান মেডিকেল ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা খরচ, ইন্ডিয়ান ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ২০২২, ভিসার মূল্য ভারতীয় ভিসার সর্বশেষ খবর ২০২২,

ভিসা জমা দেওয়ার দিন আমাকে কি কি কাগজ নিয়ে যেতে হবে? ১) ভিসা আবেদন পত্র। ২) ভিসা আবেদনে ছবি লাগানো এবং ২টা স্বাক্ষর করা পাসপোর্টের মত। ৩) জাতীয় পরিচয় পত্র বা জন্ম নিবন্ধন সনদের কপি। যেটা দিয়ে পাসপোর্ট করেছেন সেটাই দিবেন। ৪) ব্যাংক স্টেটমেন্ট/ডলার এন্ডরসমেন্ট/ক্রেডিট কার্ড/ট্র্যাভেল কার্ড। ৫) ট্রেড লাইসেন্স/এন ও সি/ স্টুডেন্ট আইডি কার্ডের কপি। ৬) আবেদনকারীর পাসপোর্টের ফটোকপি। ৭) ফ্যামিলি ভিসার ক্ষেত্রে (বাবা/মা, ভাই/বোন অবিবাহিত, স্বামী/স্ত্রী, ছেলে/মেয়ে) যিনি পাসপোর্ট জমা দিতে আসবে তার পাসপোর্টের ফটোকপি সংযুক্ত করতে হবে। ৮) সকল পুরাতন পাসপোর্ট সাথে নিয়ে যেতে হবে। Indian Visa Online

ইন্ডিয়ান ভিসা কি বন্ধ? ভিসা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানুন

মিথ্যা বা ভূয়া তথ্য বা পেপার্স পরিবেশন থেকে বিরত থাকুন। ভিসা প্রদানের ক্ষেত্রে ভিসা কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত তাই সতর্ক থাকুন।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র । ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা খরচ ২০২২

সকল পুরাতন পাসপোর্ট ও মেডিকেলের মুলকাগজপত্র অবশ্যই সাথে আনতে হবে।

ভারতীয় ভিসা ফি ২০২২ । ভারতীয় ভিসা আপডেট প্রশ্নোত্তর জেনে নিন।

  1. পাসপোর্ট থাকতে হবে এবং পাসপোর্টের মেয়াদ মিনিমাম ৬ মাস থাকতে হবে। ১) বিজনেস/ ব্যবসায়িক ভিসা ২) দীর্ঘমেয়াদী সফর ভিসা ৩) ট্রানজিট একক প্রবেশাধিকার ভিসা ৪) ট্রানজিট দ্বি-প্রবেশাধিকার ভিসা ৫) মেডিকেল/মেডিকেল এটেনডেন্ট ভিসা ৬) স্টুডেন্ট/শিক্ষার্থী ভিসা ৭) রিসার্চ/ গবেষণা ভিসা ৮) কনফারেন্স/ সম্মেলন ভিসা ৯) এমপ্লয়মেন্ট/ কর্মসংস্থান ভিসা ১০) ট্রেইনিং/ প্রশিক্ষণ ভিসা সব ভিসার ব্যাপারে বিস্তারিত এখানে পাবেনঃ http://bit.ly/indiavisatype
  2. রঙ্গিন পোশাকে সাদা ব্যাকগ্রাউন্ডে ২X২ সাইজের ছবি তুলবেন। ছবির সফট কপি এবং হার্ড কপি নিবেন। ব্যাংক স্ট্যাট্মেন্ট বা ডলার এন্ডরসমেন্ট করে নিবেন। ব্যাংক স্ট্যাট্মেন্ট গত ৬ মাস থেকে ঐদিন পর্যন্ত নিবেন। ব্যাংকে এন্ডিং ব্যালেন্স মিনিমাম ২০ হাজার থাকতে হবে। আর যদি ডলার এন্ডরসমেন্ট করেন তাহলে মিনিমাম ১৫০ ডলার এন্ডরস করতে হবে। তবে বেশি করা ভাল।
  3. অনলাইনে আবেদন করতে https://indianvisa-bangladesh.nic.in/visa এই সাইটে গিয়ে এপ্লাই অনলাইনে ক্লিক করে আবেদন করতে পারবেন। সম্পূর্ণ প্রসেস দেখতে এই লিঙ্কে জানঃ http://bit.ly/indianvisaaplly এই লিঙ্কের কিছু জিনিস পুরানো হয়ে গেছে সেগুলা ক্লিয়ার হওয়ার জন্য নিচের প্রশ্ন এবং উত্তর গুলা দেখুন।
  4. সাবমিট করার পর আপনার এপ্লিকেশন আইডি আর গিভেন নেমটা সেভ করে রাখুন। সাবমিট করার পর Get Appointment বাটনে ক্লিক করে আপনার কাছের ভিসা সেন্টার অনুযায়ী এপয়েনমেন্ট নিন। সকাল.১১.৩০ থেকে ১২.০০ টায় চেস্টা করলে ঢাকার সেন্টার গুলার এপয়েনমেন্ট পাওয়া যায়। অন্য সেন্টার গুলাতে নরমালি যে কোন সময়েই পাওয়া যায়। ডেট পাওয়া হয়ে গেলে ফর্ম প্রিন্টের অপশন আসবে। প্রিন্ট করে নিন।
  5. চট্টগ্রাম, রাজশাহী, রংপুর এবং শ্যামলী ভিসা সেন্টারে টুরিস্ট ভিসার আবেদন করলে এপয়েনমেন্ট লাগেনা। মেডিকেল ভিসার জন্যও এপয়েনমেন্ট প্রয়োজন নেই।
  6. ভিসা সেন্টারে কি আমার কোন ভাইভা নিবে? না। সকাল সকাল ভিসা সেন্টারে চলে যাবেন। গেলেই বাকি প্রসেস বুঝে যাবেন।
  7. নরমালি ৩-৭ কর্ম দিবসের মধ্যে পেয়ে যাবেন। আবেদন জমা দেওয়ার পর একটা রিসিট দিবে সেখানে আপনার পাসপোর্ট কালেকশনের ডেট লেখা থাকবে।
  8. ভিসা হয়েছে কিনা সেটা পাসপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত বুঝা যাবে না। তবে আপনার পাসপোর্ট ডেলিভারির জন্য রেডি আছে কিনা সেটা এখান থেকে দেখতে পারবেনঃ http://ivacbd-etoken.com/
  9. আপনি কোথায় যাবেন তার উপর নির্ভর করবে আপনি কোন পোর্ট দিয়ে যাবেন। তবে বাই এয়ার, হরিদাসপুর/বেনাপোল, গেদে/ট্রেন দিয়ে সবাই যেতে আসতে পারবে। এই পোর্ট গুলা ছাড়া অন্য পোর্ট সিলেক্ট করবেন কারণ এসব দিয়ে আপনি যেতে পারবেন যে পোর্টই সিলেক্ট করেন না কেন। পোর্ট নিয়ে অনেক প্রশ্নের উত্তর দেওয়া আছে এখানেঃ http://bit.ly/indianport
  10. লিগালি ১০ হাজার টাকা নিয়ে যেতে এবং আনতে পারবেন। লিগালি রুপি নেওয়া যাবেনা।ডি.এস.এল.আর নিতে চাইলে বর্ডার থেকে ডি.এস.এল.আর পাসপোর্টে এন্ডরস করে নিতে পারবেন। ভারতে ৫০০০ ডলার পর্যন্ত নিতে পারবেন ১ কেলেন্ডার ইয়ারে। তবে আপনি ২০০ ডলার এন্ডরস করে ৩০০ ডলার নিতে পারবেন না। ডলার এন্ড্রসমেন্টের খুঁটিনাটি জানতে এই পোস্ট দেখতে পারেনঃ http://bit.ly/dollarendorse

মেডিকেল ভিসার জন্য কি কি কাগজ লাগবে?

পূরণকৃত ভিসা ফরম, ন্যাশানাল আইডি কার্ড বা জন্ম সনদ, বর্তমান ঠিকানার ৬ মাসের মধ্যের বিদ্যুৎ/গ্যাস/পানির বিলের কপি, ৬ মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট বা বাণিজ্যিক ব্যাংক হতে ডলার এনডোরসমেন্ট, ইন্ডিয়ান ডাক্তারের এপোয়েন্টমেন্ট, বাংলাদেশ ডাক্তারের রেফার লেটার, সদ্য ৬ মাসের মধ্যে মেডিকেলের কাগজপত্র ফটোকপি, পাসপোর্ট এর ফটোকপি।

(Visited 6,285 times, 9 visits today)

3 comments

  1. আমি ১/১১/২২ তারিখে আমার নিজের ,আমার স্ত্রীর ও এক সন্তানের ভিসার জন্য আবেদন করি।স্ত্রী ও সন্তানের ভিসা পেলেও, আমার ভিসা পাইনি। কেন পাইনি তাও জানি না ?

    1. অ্যাম্বাসিতে যোগাযোগ করুন। তথ্য ঘাটতি থাকতে পারে অথবা অন্য কোন কারণ থাকতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *