এনআইডি কার্ড সংশোধন 2022, ভোটার কার্ড সংশোধন অ্যাপস, জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন ২০২১, জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন করতে কতদিন সময় লাগে, জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন, অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ড জন্ম তারিখ সংশোধন, স্মার্ট আইডি কার্ড সংশোধন, ভোটার আইডি কার্ড নাম সংশোধন,

জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন ২০২২ । আগামী জানুয়ারি মাসে বিনা খরচে সংশোধন করা যাবে

প্রতিবারই জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধনের বিশেষ সুযোগ দেয়া হয় – এন্ট্রি জনিত বা তথ্য ভুল জনিত যে কোন প্রকার সংশোধন করা যাবে ফ্রিতে – ফিতে NID Correction 2023

এনআইডি কার্ড সংশোধন 2022 – সারাদেশে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসূচি চলছে। এই হালনাগাদে ভোটার নিবন্ধনের জন্য ছবি তোলার কয়েকদিনের ভিতরই উক্ত ভোটারের মোবাইল নম্বরে এসএমএস এর মাধ্যমে তার NID নম্বর জানিয়ে দেয়া হচ্ছে এবং উক্ত ব্যক্তি নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইট থেকে তার NID ডাউনলোড করে নিতে পারছে। ভুলত্রুটি থাকলে বিচলিত হবেন না।

ভোটার আইডি কার্ড নাম সংশোধন – নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইট থেকে NID কার্ড ডাউনলোড করার পরে যদি দেখেন যে আপনার NID কার্ডের কোনো তথ্যে ভুল আছে, তাহলে আপনি কিভাবে উক্ত ভুল সংশোধন করবেন?

ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম-২০২২- এ যারা ভোটার হিসাবে নিবন্ধিত হয়ে NID কার্ড পাচ্ছেন, তাদের ভিতর যাদের জন্মতারিখ ০১-০১-২০০৫ পর্যন্ত, তাদের খসড়া ভোটার তালিকা ২০২৩ সালের জানুয়ারি মাসে প্রকাশিত হবে। উক্ত খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশিত হওয়ার পরে উক্ত খসড়া ভোটার তালিকায় নাম আছে এমন কারো কোনো তথ্যে ভুল থাকলে তিনি ২০২৩ সালের জানুয়ারি মাসে বিনা খরচে ফ্রি ফ্রি তার তথ্য সংশোধন করে তার NID কার্ডের তথ্যের ভুল সংশোধন করে নিতে পারবেন।

ফ্রিতে ভোটার আইডি কার্ড সংশোধনের উপায় / ভুল করবে নির্বাচন কমিশন তা সংশোধনে ফি লাগবে কেন?

২০২৩ সালের জানুয়ারি মাসে বিনা খরচে ফ্রি ফ্রি তার তথ্য সংশোধন করে তার NID কার্ডের তথ্যের ভুল সংশোধন করে নিতে পারবেন।

এনআইডি কার্ড সংশোধন 2022, ভোটার কার্ড সংশোধন অ্যাপস, জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন ২০২১, জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন করতে কতদিন সময় লাগে, জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন, অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ড জন্ম তারিখ সংশোধন, স্মার্ট আইডি কার্ড সংশোধন, ভোটার আইডি কার্ড নাম সংশোধন,

সরকার ঘোষিত নিয়মতান্ত্রিক লোডশেডিং ঢাকাতে সহনীয় হলেও উপজেলা পর্যায় অসহনীয়। কারণ, অন্তত ৭ ঘণ্টার লোডশেডিং। কোথাও কোথাও সময় লাগে তারও বেশি। এ অবস্থায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করা হলেও দিনশেষে ইসি সার্ভারের কাজ করতে পারছেন না মাঠ কর্মকর্তারা। এছাড়া ভোটার নিবন্ধনের কাজও কোথাও কোথাও শুরু হয়েছে। এতে ভোটারের তথ্য ইসির সার্ভারে আপলোড করতেও হচ্ছে সমস্যা। ফলে মধ্যরাত পর্যন্ত কাজ করতে হচ্ছে কর্মকর্তাদের।

জাতীয় পরিচয়পত্র বাধ্যতামূলক । ২২ ধরনের সেবা পাওয়ার ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্র কাজে লাগবে

আয়করদাতা শনাক্তকরণ নম্বর পাওয়া, শেয়ার আবেদন ও বিও হিসাব খোলা, ড্রাইভিং লাইসেন্স করা ও নবায়ন, ট্রেড লাইসেন্স করা, পাসপোর্ট করা ও নবায়ন, যানবাহন রেজিস্ট্রেশন, চাকরির আবেদন, বিমা স্কিমে অংশগ্রহণ, স্থাবর সম্পত্তি ক্রয়-বিক্রয়, বিয়ে ও তালাক রেজিস্ট্রেশন, ব্যাংক হিসাব খোলা, নির্বাচনে ভোটার শনাক্তকরণ, ব্যাংকঋণ, গ্যাস-পানি-বিদ্যুতের সংযোগ, সরকারি বিভিন্ন ভাতা উত্তোলন, টেলিফোন ও মোবাইলের সংযোগ, সরকারি ভর্তুকি, সাহায্য ও সহায়তা, ই-টিকেটিং, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তি, আসামি ও অপরাধী শনাক্তকরণ, বিজনেস আইডেনটিফিকেশন নম্বর পাওয়া ও সিকিউরড ওয়েব লগে ইন করার ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর লাগবে।

চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশের আগে ভুল সংশোধন করা যাবে না?

ফি দিয়ে সংশোধন করতে হবে – আর কেউ যদি ২০২৩ সালের জানুয়ারি মাসের খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশের আগেই তার NID কার্ডের তথ্য সংশোধন করে নিতে চান, তাহলে সরকারি সংশোধন ফি জমা দিয়ে অনলাইনে বা সংস্লিষ্ট উপজেলা নির্বাচন অফিসে সংশোধন আবেদন করে NID কার্ড সংশোধন করে নিতে পারবেন।

(Visited 6,445 times, 1 visits today)

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *