ইউনিক আইডি অনলাইন আবেদন ২০২২ । ইউনিক আইডি'র সার্ভার খুলে দেয়া হয়েছে

ইউনিক আইডি অনলাইন আবেদন ২০২২ । ইউনিক আইডি’র সার্ভার খুলে দেয়া হয়েছে

ছাত্র ছাত্রীদের ইউনিক আইডি প্রদানের প্রক্রিয়া চলমান – ইউনিক আইডি সার্ভার ওপেন রয়েছে – ইউনিক আইডি অনলাইন আবেদন ২০২২

ইউনিক আইডি চেক – সকল বিভাগের জন্য ডাটা এন্ট্রির সময়সীমা ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১২ তারিখ পূণ:নির্ধারন করা হলাে। Software এ ২০২২ সালে ষষ্ঠ ও একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের তথ্য এন্ট্রির Option তৈরি করা হয়েছে। উল্লিখিত তারিখের মধ্যে ২০২২ সালের ষষ্ঠ ও একাদশ শ্রেণিতে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীর Data Entry সম্পন্ন করতে হবে।

এমতাবস্থায়, ২০২১ সালের যেসমস্ত শিক্ষার্থীর Data Entry ও Upload সম্পন্ন হয় নাই সেসমস্ত শিক্ষার্থীসহ ২০২২ সালের ষষ্ঠ ও একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের Data ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ তারিখের মধ্যে Entry ও Upload সম্পন্ন করার জন্য অনুরােধ করা হয়েছে।

২০২২ সালের ষষ্ঠ ও একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের Data Entry এর জন্য নিম্নের নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে।শিক্ষার্থী ফরমের Page-1 এ শিক্ষার্থী তথ্যছক ২০২১ এর উপরে “বছর নির্বাচন করুন” এই বক্সে ২০২২ নির্বাচন করলে ২০২২ সালের এন্ট্রি ফরম প্রদর্শিত হবে। ফরমে প্রদর্শিত তথ্যসমূহ ২০২১ এর ন্যায় পূরণ করতে হবে। যেসমস্ত শিক্ষার্থীর মাতা অথবা পিতার NID নেই তাদের মাতা অথবা পিতাকে NID জরুরী ভিত্তিতে সংগ্রহপূর্বক Data Entry করতে হবে। এখন পর্যন্ত যেসকল শিক্ষার্থীর অনলাইন জন্মনিবন্ধন নাই উপজেলা ও প্রতিষ্ঠান ভিত্তিক সেসকল শিক্ষার্থীর শ্রেণিভিত্তিক তালিকা নিম্নস্বাক্ষরকারীর নিকট জরুরী ভিত্তিতে প্রেরণের জন্য উপজেলা/থানা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারগণকে অনুরােধ করা হলাে।

Banbeis.gov.bd / CRVs ব্যবস্থার আলােকে শিক্ষার্থীদের প্রােফাইল ডেটাবেজ তৈরি ও ইউনিক আইডি প্রদান সংক্রান্ত ডাটা এন্ট্রির জন্য
পূণ:নির্ধারিত সময়সীমা বৃদ্ধি

ইউনিক আইডি নোটিশ 2022

UID এর ডাটা এন্ট্রি এর সময়সীমা বৃদ্ধি

ইউনিক আইডি ডাটা এন্ট্রি । ইউনিক আইডি’র সার্ভার খুলে দেয়া হয়েছে।

  1. IPEMIS সিস্টেমে ব্যবহার করা মোবাইল নম্বর/ ইমেইল এবং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে লগইন
    করতে হবে।
  2. আপাতত প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণি এবং ২০২২ সালের নতুন ভর্তিকৃত ছাত্র-ছাত্রীর তথ্য এন্ট্রি করা যাবে।
  3. এন্ট্রিকৃত শিক্ষার্থী “অনিবন্ধিত শিক্ষার্থীর তালিকা” অপশনে দেখা যাবে।
  4. ২০২১ সালের ছাত্র-ছাত্রীর তথ্য (৫ম শ্রেণি বাদে) পিইএসপি উপবৃত্তি কার্যক্রম থেকে মাইগ্রেশন হয়ে আসবে। এজন্য আপাতত অন্যান্য শ্রেণির তথ্য এন্ট্রি না করাই ভাল। তথ্য মাইগ্রেশন হলে কাজ অনেকটাই কমে যাবে।
  5. শিক্ষার্থীর তথ্য মাইগ্রেশন হলো কিনা জানতে নিয়মিত “আনভেরিফাইড শিক্ষার্থী” অপশনে সার্চ করুন। মাইগ্রেশন সম্পন্ন হলে শ্রেণিভিত্তিক সকল শিক্ষার্থীর তথ্য এখানে দেখা যাবে। এই অপশন ব্যবহার করেই সকল শিক্ষার্থীর তথ্য আপডেট করতে হবে।

কেন ইউনিক আইডি ফরম পূরণ করে জমা দিতে হবে?

বাংলাদেশ শিক্ষাতথ্য ও পরিসংখ্যান ব্যুরো (ব্যানবেইজ-BANBEIS) ইতোমধ্যে এস্টাবলিশমেন্ট অব ইন্টিগ্রেটেড এডুকেশনাল ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (IEIMS) প্রকল্প এর আওতায় শিক্ষার্থীদের ইউনিক আইডি কার্যক্রম হিসাবে তথ্য এন্ট্রি শুরু হয়েছে। সকল শ্রেণির শিক্ষার্থীদের একটি আইডি নম্বর প্রদান করে সার্ভারে করা থাকবে। সরকার জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদান, অনুদান ইত্যাদি’র এর কার্যক্রমে ইউনিউ আইডি ব্যবহার করেই পরিচালনা করবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের জন্য ৭ম শ্রেণী হতে ১২ তম শ্রেণী অর্থাৎ উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের ইউনিক আইডি ফরম ও পূরণের নিয়মাবলি জারি করেছে।

Student Unique ID Form 2022। স্টুডেন্ট ইউনিক আইডি ফরম PDF DOWNLOAD

(Visited 1,228 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *